যুক্তরাজ্যে ঘরে ঘরে যাবে করোনা শনাক্তের কিট

Thursday, March 26th, 2020

ডেস্ক নিউজঃ যুক্তরাজ্যের সরকার করোনাভাইরাসে আক্রান্ত সন্দেহভাজন ব্যক্তিদের ঘরে এই রোগ শনাক্তের একটি কিট পৌঁছে দেওয়ার পরিকল্পনা করেছে। সরকারি প্রতিষ্ঠান পাবলিক হেলথ ইংল্যান্ড (পিএইচই) এ তথ্য নিশ্চিত করেছে। বলা হচ্ছে, প্রথম দফায় কয়েক হাজার টেস্ট কিট পাঠানো হবে।

গার্ডিয়ানের খবরে বলা হয়েছে, নতুন এই টেস্ট কিট দিয়ে বাড়িতে বসে করোনাভাইরাস শনাক্তের পরীক্ষা করা যাবে। এর জন্য ১৫ মিনিট সময় লাগবে। মূলত যেসব ব্যক্তিরা উপসর্গ দেখা দেওয়ায় আইসোলেশনে আছেন, তাদের বাড়িতে এসব টেস্ট কিট পাঠানো হবে।

পাবলিক হেলথ ইংল্যান্ডের ন্যাশনাল ইনফেকশন সার্ভিসের পরিচালক অধ্যাপক শ্যারন পিকক বলেছেন, আগামী সপ্তাহের মধ্যে এই গণপরীক্ষা করা সম্ভব হবে। প্রাথমিকভাবে আমাজনের মাধ্যমে সন্দেভাজন আক্রান্তদের ঘরে ঘরে এই কিট পাঠানো হবে। এই কিট সঠিকভাবে কাজ করবে কিনা-সেটি বোঝার জন্যই এভাবে পাঠানো হবে।

শ্যারন পিকক আরও বলেছেন, এটি এক ধরনের অ্যান্টিবডি টেস্ট। শুধু যুক্তরাজ্য নয়, ইউরোপের বিভিন্ন দেশও নতুন করোনাভাইরাসে আক্রান্তদের শনাক্ত করতে এই পরীক্ষা করছে।

যুক্তরাজ্যের সরকার ৩৫ লাখ এমন টেস্ট কিট কিনেছে। আরও কয়েক মিলিয়ন টেস্ট কিট কেনার প্রক্রিয়া চলছে। সরকারের পক্ষ থেকে বলা হচ্ছে, খুব দ্রুতই জনসাধারণের জন্য এটি উন্মুক্ত করে দেওয়া হবে।

সংশ্লিষ্টরা বলছেন, নতুন টেস্ট কিট এক ধরনের ছোট আকারের যন্ত্র। এর একটি স্থানে আঙুল দিলে, তা থেকে রক্ত গ্রহণ করা হয় এবং পরে তা ওই কিটেই বিশ্লেষণ করা হয়। স্থানীয় বিশেষজ্ঞরা এটি ব্যবহারের অনুমোদন দিয়েছেন। আশা করা হচ্ছে, দ্রুতই এই কিট সব স্বাস্থ্যকর্মী ও সাধারণ মানুষের জন্য উন্মুক্ত করা সম্ভব হবে।

যুক্তরাজ্যের স্বাস্থ্য দপ্তরের দেওয়া হিসাব অনুযায়ী সেদেশে নতুন করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ৮ হাজার ছাড়িয়ে গেছে। এর মধ্যে ৪২২ জনের মৃত্যু হয়েছে। তবে সংশ্লিষ্টরা বলছেন, দেশটিতে করোনাভাইরাসে আক্রান্তের প্রকৃত সংখ্যা আরও বেশি হতে পারে।