মৃত্যুর মিছিলে এবার চীনকে ছাড়িয়ে গেল স্পেন

Wednesday, March 25th, 2020
স্পেনে করোনাআক্রান্তে এক ব্যক্তি।
স্পেনে করোনা আক্রান্ত এক ব্যক্তি। ফাইল ছবি

 

ডেস্ক নিউজঃ মহামারী আকারে ছড়িয়ে পড়া করোনাভাইরাসে মৃত্যুর দিক দিয়ে চীনকে ছাড়িয়ে গেল স্পেন। ইউরোপের এ দেশটিতে মৃতের সংখ্যা ৩ হাজার ৪৩৪ জনে দাঁড়িয়েছে। চীনে এ পর্যন্ত ৩২৮৭ জন মারা গেছেন।

যুক্তরাজ্যভিত্তিক গণমাধ্যম ইনডেপেনডেন্ট বুধবার এক প্রতিবেদনে জানায়, স্পেনে করোনাভাইরাসে সংক্রমিত হয়ে একদিনে ৭৩৮ জনের মৃত্যু হয়েছে। ইউরোপের দেশগুলোর মধ্যে ইতালির পরই স্পেনে ভয়াবহ আকার ধারণ করেছে করোনাভাইরাস। ইতালিতে মৃতের সংখ্যা দাঁড়ায় ৬ হাজার ৮০০ জনে।

স্পেনের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানায়, একদিনে আক্রান্তের সংখ্যা ২০ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়েছে। স্পেনের কর্তৃপক্ষ ইতিমধ্যেই দেশটির রাজধানীতে করোনাভাইরাসে আক্রান্তদের স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত করতে অস্থায়ী হাসপাতাল প্রস্তুত করেছে।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে প্রকাশিত মাদ্রিদের একটি হাসপাতালের ভিডিওতে দেখা যায়, হাসপাতালে জায়গা না পেয়ে শত শত মানুষ বারান্দায়, ব্যালকনিতে কিংবা হাসপাতাল কক্ষের সামনে শুয়ে আছেন। তাদের মধ্যে অনেকেই হাঁচি-কাশি দিচ্ছেন, অনেকেই অক্সিজেন নিচ্ছেন।

এ ছাড়া আরও শত শত মানুষকে হাসপাতালের ওয়েটিংরুমে অপেক্ষা করতে দেখা যায়, যারা চিকিৎসা নেয়ার জন্য মাদ্রিদের ওই হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে এসেছেন।

করোনাভাইরাসের বিস্তার ঠেকাতে হিমশিম খাচ্ছে স্পেন। হাসপাতাল কর্মীদের সংগঠন জেনারেল ইউনিয়ন অব ওয়ার্কারের নেতা জাভিয়ার গার্সিয়া স্থানীয় দৈনিক এল মুন্ডকে বলেন, হাসপাতালের এমার্জেন্সি ওয়ার্ডগুলোর ধারণক্ষমতার চেয়ে তিনগুণ বেশি রোগী ভর্তি রয়েছে।

জনস হপকিংস ইউনিভার্সিটির বরাত দিয়ে মধ্যপ্রাচ্যভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আলজাজিরা জানায়, করোনাভাইরাসে বিশ্বে মৃত্যুর সংখ্যা ১৯ হাজারের বেশি। আর এতে এ পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছেন ৪ লাখ ৩৫ হাজার মানুষ, সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ১ লাখ ১০ হাজার জন।

এর মধ্যে চীনে নতুন করে ৪ জনের মৃত্যু হওয়ায় দেশটিতে মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৩ হাজার ২৮১ জনে।