ইউনাইটেড রাঙাল চেলসির মাঠ

Tuesday, February 18th, 2020

চেলসিকে এ মৌসুমে আরও একবার হারাল ইউনাইটেড। ছবি: এএফপিচেলসিকে এ মৌসুমে আরও একবার হারাল ইউনাইটেড। ছবি: এএফপি

 

ডেস্ক নিউজঃ কাল স্টামফোর্ড ব্রিজে চেলসিকে ২-০ গোলে হারিয়ে চ্যাম্পিয়নস লিগের আশা বাঁচিয়ে রেখেছে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড।

ম্যানচেস্টার সিটি কি আগামী চ্যাম্পিয়নস লিগ খেলতে পারবে? আন্তর্জাতিক ক্রীড়া আদালতে আবেদন করে উয়েফার আরোপিত দুই বছরের নিষেধাজ্ঞা সিটি কাটাতে না পারলে কপাল খুলে যাবে ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের অন্য দলগুলোর। প্রথম চারের বদলে পঞ্চম দলটিরও সুযোগ মিলবে ইউরোপ সেরার প্রতিযোগিতায় নামার। এ তথ্য জেনেই হয়তো গা ছেড়ে দিয়েছে চেলসি। নিজেদের মাঠে জয় পেলেই যেখানে চতুর্থ স্থানে নিজেদের জায়গাটা সুদৃঢ় হয়, সে ম্যাচেই তারা হেরে বসেছে। কাল স্টামফোর্ড ব্রিজে চেলসিকে ২-০ গোলে হারিয়ে চ্যাম্পিয়নস লিগের আশা বাঁচিয়ে রেখেছে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড।

হারের পেছনে অবশ্য অজুহাত খুঁজে নিয়েছেন চেলসি কোচ ফ্র্যাঙ্ক ল্যাম্পার্ড। ম্যাচে প্রথম গোলের আগেই লাল কার্ড দেখার মতো ঘটনা ঘটেছিল একটি। বল মাঠের বাইরে যাওয়ার পর চেলসির মিচি বাতশুয়াইকে টেনে ফেলে দিয়েছিলেন হ্যারি ম্যাগুয়ার। কিন্তু ভিডিও অ্যাসিস্ট্যান্ট রেফারি সেখানে লাল কার্ড দেওয়ার মতো কিছু দেখেনি। আবার চেলসির একমাত্র গোলটিও ভিএআর বাতিল করে দিয়েছে। সেই ম্যাগুয়ার পরে একটি গোল করে জ্বলুনি বাড়িয়েছেন ল্যাম্পার্ডের, ‘ম্যাগুয়ারকে অবশ্যই বের করে দেওয়া উচিত ছিল। এটাই ম্যাচ বদলে দিয়েছে। আজপিলিকুয়েতাকে ব্র্যান্ডন উইলিয়ামস ধাক্কা দিয়েছে, ফলে আমাদের গোলটাও হওয়া উচিত ছিল। জিরুর পায়ের আঙুল অফসাইডে ছিল, সেটা না হয় মেনেই নিলাম। এখন এটাই নিয়ম। আমি জানি না ওরা কেন ওই মনিটরে দেখে না, ওটা ব্যবহার করা উচিত।’

ল্যাম্পার্ড যতই রেফারির দোষ খুঁজুন না কেন, সত্য হলো চেলসি ভালো খেলেনি কাল। আর ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের বিপক্ষে এ মৌসুমে এটি তৃতীয় হার তাদের। নভেম্বর থেকেই ফর্মটা বাজে যাচ্ছে তাদের। লিগে গত ১০ ম্যাচে মাত্র ৩ জয় তাদের। এ বছরও লিগে মাত্র একটি জয় চেলসির। তবু অন্যদের ব্যর্থতা মিলিয়ে লিগে চতুর্থ স্থানটা ধরে রেখেছে তারা। কিন্তু ২৬ ম্যাচ থেকে ৪১ পয়েন্ট পাওয়া চেলসি এখন সবার ধরাছোঁয়ার মধ্যে। ৪০ ও ৩৯ পয়েন্ট নিয়ে পাঁচ ও ছয়ে আছে টটেনহাম ও শেফিল্ড ইউনাইটেড। ৩৮ পয়েন্ট নিয়ে ম্যানচেস্টারও পিছিয়ে নেই। এমনকি ১১-তে থাকা বার্নলিও মাত্র ৭ পয়েন্ট পিছিয়ে আছে।

২১ মিনিটে ম্য্যাগুয়ার ওভাবে বেঁচে যাওয়ার পর ম্যাচের নিয়ন্ত্রণ ইউনাইটেডের কাছেই ছিল। দুই দলই যে খুব একটা আহামরি ফুটবল খেলেছে তা নয়। কিন্তু সুযোগ কাজে লাগানোয় এগিয়ে গেছে ইউনাইটেড। প্রথমার্ধের শেষ মিনিটে ওয়ান-বিসাকার ক্রস থেকে হেড করে ইউনাইটেডকে এগিয়ে দিয়েছেন অ্যান্থনি মার্শিয়াল। ৫৩ মিনিটেই সমতা ফিরিয়েছেন বলে ভেবেছিলেন কোর্ট জুমা। কিন্তু গোলের আগ মুহূর্তে সিজার আজপিলিকুয়েতা ফ্রেডকে ধাক্কা দেওয়ায়, সে গোল ভিএআর বাতিল করে দিয়েছে।

৬৬ মিনিটে ব্রুনো ফার্নান্দেজের কর্নার থেকে ম্যাগুয়ারের গোল চেলসিকে শেষ করে দিয়েছে। এর পর দুই দলই গোলের সুযোগ পেলেও কাজে লাগাতে পারেনি কেউ। ৭৭ মিনিটে চেলসির অলিভিয়ের জিরুর গোল বাতিল হয় অফসাইডে।