আলোচিত বাণিজ্য মেলা

Saturday, January 25th, 2020

ডেস্ক নিউজঃ ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলার ২০তম আয়োজন চলছে রাজধানীতে। বিশ্বের বিভিন্ন দেশেই আয়োজন করা হয় এমন মেলার। চলুন জেনে নিই বিশ্বের আলোচিত পাঁচটি মেলার কথা

কলম্বিয়ান এক্সপোজিশনকলম্বিয়ান এক্সপোজিশন

কলম্বিয়ান এক্সপোজিশন, ১৮৯৩

যুক্তরাষ্ট্রের চাকচিক্যময় নিউইয়র্ক বা ওয়াশিংটন ডিসির সামনে শিকাগো তখন শিল্পকারখানাময় এক নোংরা শহর। কিন্তু ১৮৯৩ সালে শিকাগো দেখিয়ে দেয়, আয়োজনের ক্ষেত্রে তারাও কম যায় না। সে বছর কলম্বিয়ান এক্সপোজিশনে মোট মানুষ হয়েছিল প্রায় তিন কোটি। তবে মানুষের অংশগ্রহণ বা রেকর্ডের হিসাবের চেয়ে কলম্বিয়ান এক্সপোজিশনকে সবাই মনে রাখবে এই সাহস জোগানোর জন্য যে ছোট শহরগুলোও এমন বড় আয়োজন করতে পারে।

ফরাসি আন্তর্জাতিক মেলা, ১৯০০সালফরাসি আন্তর্জাতিক মেলা, ১৯০০সাল

ফরাসি আন্তর্জাতিক মেলা, ১৯০০সাল

১৯০০ সালের ১৪ এপ্রিল প্যারিসের বিখ্যাত আইফেল টাওয়ারের পাশেই আয়োজিত হয়েছিল এক্সপোজিশন ইউনিভার্সেল, বাংলায় আন্তর্জাতিক মেলা। এপ্রিল থেকে নভেম্বর মাস পর্যন্ত চলা এই মেলায় ৪ কোটি ৮০ লাখের বেশি দর্শনার্থীর সমাগম ঘটেছিল, যা মেলাটিকে বিংশ শতাব্দীতে আয়োজিত ইউরোপের সবচেয়ে বড় মেলার স্বীকৃতি এনে দেয়। মেলার মাধ্যমে ফ্রান্স তাদের আধুনিক প্রযুক্তিগুলো বিশ্বের সামনে তুলে ধরতে চেয়েছিল, যার মধ্যে ছিল লিফট, আদি চলচ্চিত্র ইত্যাদি।

নিউইয়র্ক বিশ্বমেলা, ১৯৩৯নিউইয়র্ক বিশ্বমেলা, ১৯৩৯

নিউইয়র্ক বিশ্বমেলা, ১৯৩৯

যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রপতি জর্জ ওয়াশিংটনের শপথ নেওয়ার ১৫০ বছর পূর্তির দিনটিতেই কাকতালীয়ভাবে শুরু হয়েছিল যুক্তরাষ্ট্রের ইতিহাসের সবচেয়ে বড় বাণিজ্য মেলা। ১৯৩৯ সালের ৩০ এপ্রিল, প্রায় ২ লাখ ৬ হাজার দর্শনার্থীর উপস্থিতিতে এই মেলার উদ্বোধন করা হয়েছিল। মেলার উদ্দেশ্য ছিল, মন্দার মুখে থাকা যুক্তরাষ্ট্রে বিনিয়োগের জন্য ব্যবসায়ীদের আকর্ষণ করা। নিউইয়র্কের কুইন্সের করোনা পার্কে ১ হাজার ২০২ একর এলাকাজুড়ে এক বছরের বেশি সময় ধরে চলেছিল মেলাটি। ১৯৪০ সালের অক্টোবর মাসে যখন মেলাটি শেষ হয়, তত দিনে প্রায় সাড়ে চার কোটি দর্শনার্থী মেলাটি ঘুরে দেখার সুযোগ পান। মেলার মূল আকর্ষণের মধ্যে ছিল নাইলনের কাপড়, আধুনিক গাড়ির শহর ইত্যাদি।

এক্সপো ’৭০এক্সপো ’৭০

এক্সপো ’৭০

বন্দরের জন্য বিখ্যাত জাপানি শহর ওসাকায় ১৯৭০ সালের ১৫ মার্চ থেকে শুরু হয় আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলা এক্সপো ’৭০। মেলার স্লোগান ছিল ‘মানুষের জন্য প্রগতি ও সম্প্রীতি’। ৮২০ একর এলাকাজুড়ে আয়োজিত, ছয় মাস ধরে চলা এই মেলায় ৭৭টি দেশ থেকে পণ্য নিয়ে যোগ দেন ব্যবসায়ীরা। এতে প্রায় সাড়ে ছয় কোটি মানুষের সমাগম ঘটে, যা আগের সব মেলার মানুষের উপস্থিতির রেকর্ড ভেঙে দেয়। ওসাকা এক্সপো ’৭০কে বলা হয় বিংশ শতাব্দীর সবচেয়ে বড় মেলা। বিভিন্ন পণ্যের পাশাপাশি মেলার বিশেষ আকর্ষণের মধ্যে ছিল নভোযান ‘অ্যাপোলো–১২’ মিশন থেকে নিয়ে আসা চাঁদের পাথরের টুকরা ও প্রথম আইম্যাক্স চলচ্চিত্র। মজার ব্যাপার হচ্ছে, মেলাটি যে জায়গায় আয়োজন করা হয়েছিল, সেখানে একটি টাইম ক্যাপসুল রাখা আছে যা পাঁচ হাজার বছর পর ৬৯৭০ সালে খোলা হবে!

সাংহাই এক্সপো, ২০১০সাংহাই এক্সপো, ২০১০

সাংহাই এক্সপো, ২০১০

‘ভালো শহর, ভালো জীবন’—এই ধারণার ওপর ২০১০ সালের ১ মে চীনের বাণিজ্য নগরী সাংহাইতে শুরু হয় ইতিহাসের সবচেয়ে বড় বাণিজ্য মেলা। সাংহাই বাণিজ্য মেলা একই সঙ্গে অন্তত তিনটি রেকর্ড তৈরি করে। ছয় মাসের এই মেলায় মোট ৭ কোটি ৩০ লাখ দর্শনার্থী ঘুরে গিয়েছিলেন, যা ইতিহাসে সর্বোচ্চ। অক্টোবরের ১৬ তারিখ, একই দিনে ১০ লাখ মানুষের সমাগম ঘটেছিল সাংহাই বাণিজ্য মেলায়, যা এক দিনে সর্বোচ্চ উপস্থিতির রেকর্ড। মজার ব্যাপার হচ্ছে, যেখানে জাতিসংঘের সদস্যরাষ্ট্রের সংখ্যা ১৯৩, সেখানে শুধু সাংহাই বাণিজ্য মেলায় অংশ নেওয়া ছোট–বড় দেশ, দ্বীপরাষ্ট্র ও অঞ্চলের মোট সংখ্যা ২৪৬। প্রায় ১ হাজার ৩০০ একর জায়গায় আয়োজিত হয় এই মেলা।

ওয়ার্ল্ড অ্যাটলাস অবলম্বনে আকিব মো. সাতিল