প্রতিযোগিতার সঙ্গে গ্রাহকও বেড়েছে নেটফ্লিক্সে

Thursday, January 23rd, 2020

নেটফ্লিক্সনেটফ্লিক্স

ডেস্ক নিউজঃ ২০১৯ সালের চতুর্থ প্রান্তিকে ৮৮ লাখ নতুন গ্রাহক যুক্ত হয়েছে ভিডিও স্ট্রিমিং প্ল্যাটফর্ম নেটফ্লিক্সে। প্রতিষ্ঠানটির সর্বশেষ আর্থিক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, প্রবৃদ্ধির হার প্রত্যাশা ছাড়িয়েছে। কারণ, প্রতিষ্ঠানটির পূর্বানুমান ছিল, চতুর্থ প্রান্তিকে বড়জোর ৭৬ লাখ নতুন গ্রাহক যুক্ত হতে পারে।

নেটফ্লিক্সের দাবি, বিশ্বব্যাপী তাদের ১৬ কোটি ৭০ লাখ গ্রাহক। এর মধ্যে ১০ কোটির বেশি গ্রাহক যুক্তরাষ্ট্রের বাইরের। আর্থিক প্রতিবেদন অনুযায়ী, প্রতিষ্ঠানটি চতুর্থ প্রান্তিকে আয় করেছে ৫৪৭ কোটি ডলার এবং শেয়ারপ্রতি ১ দশমিক ৩০ ডলার লভ্যাংশ ঘোষণা করা হয়েছে। অথচ ধারণা করা হয়েছিল, সর্বশেষ প্রান্তিকে নেটফ্লিক্সের মোট আয় হবে ৫৪৫ কোটি ডলার।

গত বছর ভিডিও স্ট্রিমিং খাতে তুমুল প্রতিযোগিতা থাকা সত্ত্বেও নেটফ্লিক্স এই সাফল্য অর্জন করল। দুটি বড় স্ট্রিমিং সেবা ডিজনি প্লাস এবং অ্যাপল টিভি প্লাস চালু হয় ২০১৯ সালে। তবে চলতি বছর নেটফ্লিক্সকে আরও বড় প্রতিযোগিতার মুখোমুখি হতে হবে। কারণ, ওয়ার্নারমিডিয়ার এইচবিও-ম্যাক্স এবং এনবিসি-ইউনিভার্সালের পিককের মতো সম্ভাব্য বড় স্ট্রিমিং সেবা চালু হচ্ছে এ বছর।

ডিজনি প্লাসের ‘ম্যান্ডালোরিয়ান’, অ্যাপল টিভির ‘দ্য মর্নিং শো’ বা আমাজনের ‘জ্যাক রায়ান’-এর তুলনায় গুগল সার্চ ইঞ্জিনে নেটফ্লিক্সের ‘দ্য উইটার’ খোঁজার হার অনেক বেশি। নেটফ্লিক্স এ বিষয়েও তাদের আর্থিক প্রতিবেদনে তুলে ধরে। তা ছাড়া নেটফ্লিক্স হয়তো কিছুটা খোঁচা মেরেই দাবি করছে, ডিজনি প্লাস যদি বিশ্বব্যাপী চালু হতো, তবু এই চিত্র খুব একটা আলাদা হতো না। ডিজনি প্লাসের সেবা এখন গুটিকয়েক দেশে সীমাবদ্ধ। সূত্র: টেকক্রাঞ্চ