অবশেষে বেকার জীবন শেষ হলো মরিনহোর

Wednesday, November 20th, 2019

স্পার্সের কোচ হলেন মরিনহো। ছবি : এএফপিস্পার্সের কোচ হলেন মরিনহো। ছবি : এএফপি

ডেস্ক নিউজঃ গত রাতে দীর্ঘদিনের ম্যানেজার মরিসিও পচেত্তিনোকে ছাঁটাই করেছে টটেনহাম হটস্পার। তাঁর জায়গাতেই এসেছেন হোসে মরিনহো।

বেকার কোচদের তালিকার এত দিন ধরে সবচেয়ে বড় নাম ছিল হোসে মরিনহো। গত ডিসেম্বরে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড থেকে ছাঁটাই হওয়ার পর আর কোনো ক্লাবের দায়িত্ব নেননি। অবশেষে বেকার জীবনের অবসান ঘটেছে তাঁর। তাঁকে নতুন কোচ হিসেবে নিয়োগ দিয়েছে ইংলিশ ক্লাব টটেনহাম হটস্পার।

দুটি আলাদা আলাদা ক্লাবের হয়ে চ্যাম্পিয়নস লিগ জেতা হোসে মরিনহো এফসি পোর্তো, ইন্টার মিলান, চেলসি ও রিয়াল মাদ্রিদে কাটিয়ে এসেছেন নিজের সোনালি সময়। তবে বয়সের সঙ্গে সঙ্গে নিজের দক্ষতাও যেন আস্তে আস্তে হারাতে বসেছেন তিনি। শেষ কয়েক বছরে তাঁর সাফল্যের চেয়ে ব্যর্থতাই বেশি। না হলে তাঁর মতো কোচ চাকরিহীন কেন থাকবেন! লন্ডনে পুরো পরিবার নিয়ে বাস করেন, তাই বেশ কিছুদিন ধরেই চাচ্ছিলেন লন্ডনের একটা ক্লাবের পরবর্তী ম্যানেজার হতে। চেলসিতে দুবার গিয়ে ছাঁটাই হয়ে এসেছেন, সেখানে এখন ফ্রাঙ্ক ল্যাম্পার্ড বেশ ভালো করছেন, তাই চেলসিতে ফেরার সম্ভাবনা নেই বললেই চলে। আর্সেন ওয়েঙ্গারের সঙ্গে আজীবন বৈরিতার কারণে আর্সেনালের দায়িত্বেও তাঁকে দেখাটা কষ্টকর।

তাই এ সুযোগটাই নিয়েছে টটেনহাম। চেলসি ও আর্সেনালের পর লন্ডনের সবচেয়ে বড় ক্লাব এখন তারাই। মরিনহো নিজেও তক্কে তক্কে ছিলেন টটেনহামের ম্যানেজার মরিসিও পচেত্তিনোর চলে যাওয়ার। যে কারণে গত কয়েক মাসে এসি মিলান, এএস রোমা, শালকে ০৪, লিল, বেনফিকা, ভলফসবুর্গ, মোনাকো, স্পোর্টিং লিসবন, লিওঁর মতো ক্লাবের প্রস্তাব পেয়েও ফিরিয়ে দিয়েছেন। গত রাতে পচেত্তিনোকে ছাঁটাই করেছে স্পাররা। আর সেই ছাঁটাইয়ের রেশ কাটতে না কাটতেই এল মরিনহোর নিয়োগের খবর।

নিয়োগ পাওয়ার পরপর মরিনহো নিজের স্বস্তির কথাই জানিয়েছেন, ‘টটেনহামের মতো ক্লাবে যোগ দিতে পেরে আমি বেশ আনন্দিত, যে ক্লাবটা ইতিহাসের দিক দিয়ে বিখ্যাত। যাদের সমর্থকেরা ক্লাবটাকে জানপ্রাণ দিয়ে ভালোবাসে। ক্লাবের মান ও একাডেমির খেলোয়াড়দের মানা আমাকে মুগ্ধ করেছে। ওদের সঙ্গে কাজ করার জন্য মুখিয়ে আছি আমি।’