বালিশকাণ্ড : ৭ প্রকৌশলীকে জিজ্ঞাসাবাদ দুদক কার্যালয়ে

Thursday, November 7th, 2019
বালিশকাণ্ড : দুদক কার্যালয়ে ৭ প্রকৌশলীকে জিজ্ঞাসাবাদ

ফাইল ফটো

ডেস্ক নিউজঃ রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ প্রকল্পে বালিশসহ অন্যান্য সামগ্রী ক্রয়ে দুর্নীতি বিষয়ে তথ্য সংগ্রহের জন্য গণপূর্ত অধিদপ্তরের আরো সাত প্রকৌশলীকে জিজ্ঞাসাবাদ শুরু করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।

আজ বৃহস্পতিবার সকাল ১০টায় দুদকের প্রধান কার্যালয়ে সাত প্রকৌশলীকে জিজ্ঞাসাবাদ শুরু হয়। তাঁদের জিজ্ঞাসাবাদ করেন উপ-পরিচালক মো. নাসির উদ্দিনের নেতৃত্বে দুদকের একটি অনুসন্ধান টিম।

দূদক সূত্র জানায়, আজ যাদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে তারা হলেন পাবনা গণপূর্ত বিভাগের সহকারী প্রকৌশলী আমিনুল ইসলাম, পাবনা গণপূর্ত বিভাগের উপ-সহকারী প্রকৌশল মো. শফিকুল ইসলাম ও সুমন কুমার নন্দি, রাজশাহী গণপূর্ত সার্কেলের তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী এ কে এম জিল্লুর রহমান, পাবনা গণপূর্ত বিভাগের উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী আহমেদ সাজ্জাদ খান, পাবনা গণপূর্ত বিভাগের উপ-সহকারী প্রকৌশলী মো. শাহীন উদ্দিন ও মো. জাহিদুল করিম।

এর আগে গত ৩ নভেম্বর রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ প্রকল্পের প্রকল্প পরিচালক শৌকত আকবরসহ মোট ৩৩ প্রকৌশলীকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তলব করে চিঠি দেয় দুদক।

বিভিন্ন গণমাধ্যমে রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ প্রকল্পে বালিশসহ নানা সামগ্রী কেনা ও ওপরে তোলায় বাড়তি খরচের খবর প্রকাশের পর দুর্নীতির বিভিন্ন অভিযোগের বিষয় গত ১৭ অক্টোবর দুদক কর্মকর্তা নাসির উদ্দিনকে প্রধান করে তিন সদস্যের একটি অনুসন্ধান দল গঠন করে।