রংপুরে ইয়ুথ ফর এসডিজি-৬ প্ল্যাটফর্ম এর প্রথম কর্মশালা অনুষ্ঠিত,৮০ জনেরও অধিক স্বেচ্ছাসেবী অংশ নেন

Wednesday, October 23rd, 2019

 

[২৩ অক্টোবর, ২০১৯] বাংলাদেশের মোট জনসংখ্যার এক-তৃতীয়াংশই তরুণ। সমাজের উন্নয়ন এবং অগ্রগতিতে এই জনগোষ্ঠীর রয়েছে বিপুল সম্ভাবনা। কিন্তু পর্যাপ্ত জ্ঞান, সচেতনা এবং সাহায্যের অভাবে পরিবর্তনের প্রতিনিধি হিসেবে নিজেদের সম্ভাবনা কাজে লাগাতে পারছেন না। এছাড়া, মানসম্মত শিক্ষাব্যবস্থার বাইরে তাদের নেই দক্ষতা বৃদ্ধির কোন পর্যাপ্ত সুযোগ-সুবিধা।

দেশের সাধারণ মানুষের জন্য নিরাপদ পানি ও স্যানিটেশন নিশ্চিত করা জাতিসংঘের টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা (এসডিজি)-৬ এর মূল লক্ষ্য। এই লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে তরুণদের সম্পৃক্ত করতে চলতি বছরের জুলাই মাসে ওয়াটারএইড-এর উদ্যেগে ইয়ুথ ফর এসডিজি-৬ প্ল্যাটফর্ম এর যাত্রা শুরু হয়। এই প্ল্যাটফর্মের মাধ্যমে তরুণ জনগোষ্ঠী তাদের দক্ষতা বৃদ্ধির পাশাপাশি নিজেদের কমিউনিটিতে নিরাপদ পানি, স্যানিটেশন ও হাইজিন (ওয়াশ) সংক্রান্ত সকল সমস্যার সমাধানে পৌঁছানোর জন্য আলাপ-আলোচনা ও বিতর্কের মাধ্যমে সমাধানে পৌঁছাতে পারবে।

রংপুরে প্ল্যাটফর্মটির প্রথম ইয়ুথ ওরিয়েন্টেশন কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয় এ বছরের ১৮-১৯ অক্টোবর। কর্মশালাটিতে রংপুরের বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রায় ৮০ জন প্রতিভাবান তরুণ স্বাস্থ্যবিধি (ওয়াশ), ক্যাম্পেইন, নেতৃত্ব বিষয়ক দক্ষতা অর্জন এবং নেটওর্য়াকিং-এর ওপর প্রশিক্ষণ লাভ করে।

ইয়ুথ ফর এসডিজি-৬ প্ল্যাটফর্মটি গঠনে সহায়তা করেছে ওয়াটারএইড। বিভিন্ন ক্ষেত্রে সুপ্রতিষ্ঠিত এবং অত্যন্ত অভিজ্ঞ পেশাদার অ্যাডভাইজরি প্যানেল মেম্বারদের দ্বারা পরিচালিত কর্মশালায় নেতৃত্ববিষয়ক দক্ষতা অর্জন এবং ক্যাম্পেইন সম্পর্কে সেশন পরিচালনা করেন দুইজন বিজ্ঞ প্যানেল মেম্বার জনাব সৈয়দ হাবিব আনোয়ার পাশা, চেয়ারপার্সন এবং সহকারী অধ্যাপক; ইস্টার্ন ইউনিভার্সিটি এবং জনাব সাজিদ অমিত, ওয়াটার.ওআরজি এর কান্ট্রি ডিরেক্টর এবং ইউল্যাব এর এমবিএ প্রোগ্রামের পরিচালক।

দুই দিনব্যাপী এই কর্মশালায় উদ্ভাবনী ক্যাম্পেইন আইডিয়া সৃষ্টি, ক্যাম্পেইন পরিকল্পনা এবং ক্যাম্পেইন সম্পর্কিত বিভিন চ্যালেঞ্জ এবং সমাধানের ওপর আলোকপাত করা হয়। এসডিজি৬-এর লক্ষ্যমাত্রা অর্জন এবং সমাজ পরিবর্তনের নিয়ামক হিসেবে তাদের যে করণীয় আছে সে সম্পর্কেও আলোচনা করা হয়। কর্মশালা শেষে অংশগ্রহণকারীরা ক্যাম্পেইন পরিকল্পনা সম্পর্কে নিত্য নতুন ধারণা পেয়েছে। এতে করে অংশগ্রহণকারীর নিজ নিজ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের আরো তরুণ এবং স্থানীয় কমিউনিটির জনগণকে এসডিজি-৬ সম্পর্কে ধারণা দিতে সহায়ক হবে।

ওয়াটারএইড বিশ্বাস করে, তরুণদের নিজ নিজ কমিউনিটির উন্নয়ন, শান্তি এবং স্থিতিশীলতা আনয়নে তরুণেরা যেভাবে চিন্তা করে ইয়ুথ ফর এসডিজি-৬ ঠিক তেমন একটি প্ল্যাটফর্ম। এই প্ল্যাটফর্ম এর মাধ্যমে শিক্ষণীয় মূল্যবান দক্ষতা তাদের সারা জীবনের পাথেয় হবে।-প্রেস বিজ্ঞপ্তি