নওগাঁর রাণীনগর সাব রেজিস্ট্রারকে ২০দিনের মধ্যে তথ্য প্রদানের নির্দেশ

Wednesday, October 23rd, 2019


রাণীনগর প্রতিনিধি:   তথ্য অধিকার আইনে চাহিত তথ্য আগামী ২০দিনের মধ্যে আবেদনকারীকে প্রদানের জন্য নওগাঁর রাণীনগর সাব রেজিস্ট্রারকে তথ্য কমিশন নির্দেশ দিয়েছে। তথ্য না দেওয়ার ঘটনায় নওগাঁর রাণীনগর উপজেলার এই প্রথম কোনও সরকারী কর্মকতাকে তথ্য কমিশনের মুখোমূখি হতে হলো বলে জানাগেছে।
সংশ্লিষ্ট নির্ভরযোগ্য সূত্রে জানাগেছে, মঙ্গলবার (২২ অক্টোবর) রাজধানীর আগারগাাঁও তথ্য কমিশন কর্যালয়ে এক শুনানী শেষে তথ্য কমিশন এ নির্দেশ প্রদান করেন। শুনানীতে অংশ গ্রহণ করেন প্রধান তথ্য কমিশনার মরতুজা আহম্মেদ এবং তথ্য কমিশনার সুরাইয়া বেগম এনডিসি।
সূত্র মতে,চলতি বছরের ২৭ মার্চ মাসে তথ্য অধিকার আইন ২০০৯ এর আওতায় রাণীনগর উপলোর তৎকালিন সাব রেজিস্ট্রার ইসমাইল হোসেন নিকট কিছু সুনিদিষ্ট তথ্য চেয়ে যথাযথ ভাবে আবেদন করেন দি ডেইলি নিউএজ,দৈনিক আমাদের নতুন সময়, ইউনির্ভাসাল নিউজ২৪নিউজ ডটকম,ক্রাইম সার্চ ডটকম ও ঘাটাইল ডটকম প্রতিনিধি সাংবাদিক রাজেকুল ইসলাম। পরে ৪ এপ্রিল বদলী জনিত কারণে ইসমাইল হোসেনের প্রস্থান হলে ১৫ এপ্রিল যোগদান করেন সাব রেজিস্ট্রার রাশিদা ইয়াসমিন মিলি।
একাধিবার চাহিত তথ্য প্রাপ্তির জন্য তার সাথে ও অফিস সহকারী আব্দুল জলিলের সাথে যোগাযোগ হয় কিন্তু বারংবার তথ্য সরবরাহ করার তারিখ দিয়ে অফিসে যেতে বললেও তথ্য না দিয়ে হয়রানী,নিগৃহীত ও বিভিন্ন অপপ্রচার করতে থাকে। পরে নওগাঁ জেলা রেজিস্ট্রার সৈয়দ মজিবর রহমানের নিকট আপীল দায়ের করলে তিনি বিধি মোতাবেক ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য গত ১১ জুন স্মারক নং ২৬৪ অনুসারে সাব রেজিস্ট্রারকে লিখিত নির্দেশনা দিলেও তা অমান্য করে। বিষয়টি তথ্য কমিশন পর্যন্ত গড়ালে কমিশনের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা স্বাক্ষরিত ২অক্টোবর তারিখের স্মারক নং ১৫.৫১.০০০০.৬০৩.০৩.০০২.১৯.১২২৪ সমন মোতোবেক ২২ অক্টোবর সাব রেজিস্ট্রার ও আবেদনকারীকে তথ্য কমিশনে স্বশরীরে উপস্থিত থেকে শুনানির জন্য সমন জারী করেন।