আদিবাসীরা পুরোপুরি মানুষ না হলেও বারো আনা মানুষ হয়েছেঃ খাদ্যমন্ত্রী

Thursday, October 10th, 2019

 

কাজী কামাল হোসেন (নওগাঁ প্রতিনিধি) ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠী অর্থাৎ আদিবাসীরা মানুষ হয়েছে, তবে পুরোপুরি মানুষ না হলেও বারো আনা মানুষ হয়েছে একথা বলতে পারি। বারো আনাই মাদকমুক্ত হয়েছে শুধুমাত্র চার আনা যারা আদি তারাই মাদক মুক্ত হতে পারেনি। তবে তারাও খুব শীঘ্রই মাদকমুক্ত হবেন। আবহমান কাল থেকে ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর কৃষ্টি কালচারকে ধরে রাখতেই আমি প্রতিবছর বিজয়া দশমীর পরদিন এই আদিবাসী নৃত্য প্রতিযোগিতার আয়োজন করে থাকি।

গত বুধবার বিকেল ৪টায় নওগাঁর নিয়ামতপুরের ঐতিহ্যবাসী শিবপুর বারোয়ারী দূর্গা মন্দির প্রাঙ্গনে সমতল আদিবাসীদের মিলন মেলায় ঐতিহ্যবাহী সাঁওতালী নৃত্য প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির হিসাবে খাদ্যমন্ত্রী ও নওগাঁ জেলা আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক বীরমুক্তিযোদ্ধা সাধন চন্দ্র মজুমদার এমপি উপরোক্ত কথাগুলো বলেন।

নওগাঁর নিয়ামতপুরের শিবপুর বারোয়ারী দূর্গা মন্দির প্রাঙ্গনে দূর্গা পূজা উপলক্ষে সমতল আদিবাসীদের এক মিলন মেলা অনুষ্ঠিত হয়। বুধবার বিকেল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত দেশের তৃতীয় বৃহত্তম দূর্গা মন্দির শিবপুর বারোয়ারী দূর্গা মন্দির প্রাঙ্গনে উত্তরবঙ্গের সর্ব বৃহৎ সমতল আদিবাসীদের এই মিলন মেলায় ঐতিহ্যবাহী সাঁওতালী নৃত্য প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়। খাদ্যমন্ত্রী, নওগাঁ জেলা আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক বীরমুক্তিযোদ্ধা সাধন চন্দ্র মজুমদার এমপির উদ্যোগে এ নৃত্য প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়।

দেশের বিভিন্ন অঞ্চল থেকে আদিবাসী পুরুষ ও মহিলারা এ নৃত্য প্রতিযোগিতায় অংশ গ্রহন করেন। শিবপুর বারোয়ারী দূর্গা মন্দির কমিটির সভাপতি ও নিয়ামতপুর উপজেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মনোরঞ্জন মজুমদারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত নৃত্য প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি নিজে উপস্থিত থেকে পুরস্কার বিতরণ করেন। প্রধান অতিথি নিজেই প্রতিযোগিতাটি পরিচালনা করেন।

বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন নওগাঁ জেলা প্রশাসক হারুন-অর-রশিদ, নওগাঁ পুলিশ সুপার ইঞ্জিনিয়ার আব্দুল মান্নান, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার রাসিদুল হক, উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ফরিদ আহমেদ, উপজেলা নির্বাহী অফিসার জয়া মারীয়া পেরেরা, নিয়ামতপুর থানার ভারপ্রাপ্ত অফিসার ইন চার্জ (ওসি তদন্ত) হুমায়ন কবির, নওগাঁ জেলা আওয়ামীলীগের সহ-প্রচার সম্পাদক রনজিত কুমার, কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য আবেদ হোসেন মিলন।

অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন হাজিনগর ইউপি চেয়ারম্যান ও হাজিনগর ইউপি আওয়ামীলীগের সভাপতি আঃ রাজ্জাক, সাধারণ সম্পাদক সুরঞ্জন বিজয়পুরী, চন্দননগর ইউপি চেয়ারম্যান বদিউজ্জামান বদি, ভাবিচা ইউনিয়ন চেয়ারম্যান আলহাজ্ব ওবাইদুল হক, হাজিগর ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগ সভাপতি সেলিম রেজা ডালিম, উপজেলা প্রেস ক্লাব সভাপতি তোফাজ্জল হোসেন, ডিষ্ট্রিক স্পেশাল ব্রাঞ্চ (ডিএসবি) তরিকুল ইসলাম ও সিদ্দিকুর রহমান প্রমুখ। প্রতিযোগিতায় নওগাঁ জেলার নিয়ামতপুর, পোরশা, সাপাহার, পতœীতলাসহ রাজশাহী, দিনাজপুর, নাটোর, চাঁপাইনবাবগঞ্জ, জয়পুরহাট জেলা থেকে সমতল আদিবাসীদের প্রায় ২৪টি দল এ প্রতিযোগিতায় অংশ গ্রহন করেন।

প্রতিযোগিতায় পুরুষ দলে নওগাঁ নিয়ামতপুর উপজেলার ভাবিচা ইউপির জাবরিপাড়ার জেটু হাসদার দল ও পোরশা উপজেলার দয়াহারের স্বপন টুডুর দল যৌথভাবে প্রথম, এবং মহিলা দল থেকে নওগাঁর পোরশা উপজেলার দয়াহারের শ্রীমতি টুডুর দল ও জামতলী, হাকিমপুর, দিনাজপুররের বিলাস সাংস্কৃতিক দল যৌথভাবে প্রথম হয়েছে। মোট ১২টি টেলিভিশন পুরস্কার দেওয়া হয়। এছাড়া অংশগ্রহনকারী প্রত্যেক দলকে শান্তনা পুরস্কার এবং যাতায়াত বাবদ ১ হাজার টাকা করে প্রদান করা হয়। প্রতিযোগিতা দেখতে হাজার হাজার আদিবাসী শিবপুর বারোয়াারী দূর্গা মন্দির প্রাঙ্গনে সমবেত হন। অনুষ্ঠান শেষে প্রধান ও বিশেষ অতিথিবৃন্দ বিজয়ীদের মাঝে এলইডি টেলিভিশন পুরস্কার হিসাবে তুলে দেন।