হাবিপ্রবি ছাত্রলীগের অনুরোধে প্রথমবারের মতো প্রতিবন্ধী কোটা চালু

Sunday, September 29th, 2019

 

আজিজুর রহমান (হাবিপ্রবি প্রতিনিধি) দিনাজপুরের হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (হাবিপ্রবি) শাখা ছাত্রলীগের অনুরোধে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন প্রথমবারের মতো প্রতিবন্ধী কোটা চালু করেছে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার অধ্যাপক ডা. মোঃ ফজলুল হক বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

গত ২১শে আগস্ট প্রতিবন্ধী কোটা চালুর দাবিতে বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার অধ্যাপক ডা. মোঃ ফজলুল হক বরাবর বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের পক্ষে থেকে একটি স্মারকলিপি জমা দিয়েছিল।

এসময় উপস্থিত ছিলেন,শেখ রাসেল হল শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি রুহুল কুদ্দুস জোহা,শেখ রাসেল হল শাখার সাংগঠনিক সম্পাদক মোরশেদুল আলম রনি,শেখ রাসেল সম্প্রসারণ হল শাখা ছাত্রলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ধনেশ চন্দ্র পাল,কার্যকরী সদস্য রিয়াদ খান,তাজউদ্দিন আহমেদ হল শাখা ছাত্রলীগ নেতা শফিকুল ইসলাম সজল, ডরমিটরি-২ এর কার্যকরী সদস্য ইলিয়াস দেওয়ান ও বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হল শাখার ছাত্রনেতা সাজেদুর রহমান সৈকত প্রমুখ।

এরে প্রেক্ষিতে গত ১৮ সেপ্টেম্বর বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার সাক্ষরিত প্রকাশিত ভর্তি বিজ্ঞপ্তিতে প্রতিবন্ধী কোটা উল্লেখ রয়েছে। ২৫শে সেপ্টেম্বর হতে আবেদন প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে।এখানেও কোটার নিদিষ্ট স্থানে প্রতিবন্ধী কোটা উল্লেখ রয়েছে।

এবিষয়ে ছাত্রলীগ নেতা মোঃ রিয়াদ খান বলেন,বাংলাদেশ ছাত্রলীগ হাবিপ্রবি শাখার সকল নেতা-কর্মীদের প্রাণের দাবি ছিলো উত্তরবঙ্গের সর্বোচ্চ বিদ্যাপীঠ হাবিপ্রবি-তে অনার্স ১ম বর্ষের ভর্তি পরীক্ষায় প্রতিবন্ধী কোটা চালু করা হোক। বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের কাছে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ হাবিপ্রবি শাখার পক্ষ থেকে আবেদন দেওয়া হয় এবং চলতি বছরেই ভর্তি পরীক্ষায় প্রতিবন্ধী কোটা চালু হয়েছে।এজন্য ধন্যবাদ জানাই হাবিপ্রবি’র মাননীয় উপাচার্য অধ্যাপক ড. মু. আবুল কাসেম স্যারকে।