থানায় ধর্ষকের সঙ্গে বিয়ে: পাবনার ওসি প্রত্যাহার এসআই বরখাস্ত

Thursday, September 12th, 2019

পাবনায় গণধর্ষণের শিকার গৃহবধূর মামলা না নিয়ে থানায় এক আসামির সঙ্গে বিয়ে দেয়ার ঘটনায় সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ওবায়দুল হককে প্রত্যাহার করা হয়েছে। আর একই থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) এনামুল হককে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে।

এ ঘটনায় হাইকোর্ট নজর রাখছেন বলে জানানোর একদিন পরই এই ব্যবস্থা নেয়া হলো। বুধবার বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি মো. খায়রুল আলমের বেঞ্চে এ ঘটনার প্রকাশিত খবর তুলে ধরে সদর থানার ওসির বিরুদ্ধে পদক্ষেপ নিতে স্বপ্রণোদিত আদেশ চান সুপ্রিমকোর্টের তিন আইনজীবী। তখন বেঞ্চের জ্যেষ্ঠ বিচারক এম ইনায়েতুর রহিম বলেন, ‘মিডিয়ার মাধ্যমে আমরাও বিষয়টা নজরে রাখছি।’

অভিযোগকারী ওই নারী বলছেন, শুক্রবার রাতে পাবনা সদর থানায় জোর করে তার বিয়ে দেয়া হয়।

তবে পাবনা সদর থানার ওসি ওবায়দুল হক বলেন, তারা নিজেরা নিজেরাই মীমাংসা করে বিয়ে করেছেন। আর যার বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ, তিনি নিজেকে নির্দোষ দাবি করে বলেছেন, ‘রিমান্ডের ভয়’ দেখিয়ে পুলিশ তাদের বিয়ে দিয়েছে।

এ ঘটনায় অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (হেডকোয়ার্টার) ফিরোজ আহমেদকে প্রধান ও ডিআই-১ এবং সদর কোর্ট ইন্সপেক্টরকে সদস্য করে ৩ সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।