নেত্রীর মুক্তির দাবিতে দুই সপ্তাহব্যাপী কর্মসূচি ঘোষণা বিএনপির

Thursday, September 12th, 2019

সাবেক প্রধানমন্ত্রী ও দলের চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে দুই সপ্তাহব্যাপী কর্মসূচি ঘোষণা দিয়েছে বিএনপি।

এর আগে বিএনপি মহাসচিব বেলা ১১টায় বিএনপি কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের কনফারেন্স হলে বিএনপি এবং এর অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাদের সঙ্গে এক যৌথসভা করেন। সভায় দেশনেত্রী খালেদা জিয়ার নি:শর্ত মুক্তির দাবিতে সর্বসম্মতিক্রমে কর্মসূচি পালনের সিদ্ধান্ত হয়। মূলত মানববন্ধন কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়েছে।

কর্মসূচির বিস্তারিত-

১৮ সেপ্টেম্বর এ্যাসোসিয়েশন অব ইঞ্জিনিয়ার্স-বাংলাদেশ (এইবি) এর উদ্যোগে মানববন্ধন। ১৯ সেপ্টেম্বর ডক্টর এ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (ড্যাব) এর উদ্যোগে মানববন্ধন। ২০ সেপ্টেম্বর জাতীয়তাবাদী যুবদলের উদ্যোগে দেশব্যাপী মানববন্ধন। ২১ সেপ্টেম্বর জাতীয়তাবাদী ওলামা দলের উদ্যোগে মানববন্ধন।

২২ সেপ্টেম্বর জাতীয়তাবাদী মহিলা দলের উদ্যোগে দেশব্যাপী মানববন্ধন। ২৪ সেপ্টেম্বর জাতীয়তাবাদী কৃষক দলের উদ্যোগ মানববন্ধন। ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৯ বুধবার জাতীয়তাবাদী শ্রমিক দলের উদ্যোগে মানববন্ধন। ২৭ সেপ্টেম্বর এগ্রিকালচারিষ্ট এ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের (এ্যাব) উদ্যোগে মানববন্ধন। ২৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯ শনিবার জাতীয়তাবাদী স্বেচ্ছাসেবক দলের উদ্যোগে মানববন্ধন।

কর্মসূচি ঘোষণার আগে বক্তৃতায় বিএনপি মহাসচিব বলেন, খালেদা জিয়া রাজনৈতিক প্রতিহিংসার শিকার। একই ধরণের মামলায় অন্যরা জামিন পেলেও অসুস্থ হয়েও তিনি পাচ্ছেন না। তাকে ষড়যন্ত্র করে আটকে রাখা হয়েছে।

সরকার বিরোধী মত দমনে ব্যস্ত এমন অভিযোগ করে তিনি বলেন, শুধু বিএনপির নেতাকর্মীরাই নিপীড়নের শিকার নন। অন্যান্য বিরোধী দলের নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে হাজার হাজার মামলা হয়েছে। ওইসব মামলায় লাখ লাখ আসামি। মূলত বিরোধী মত দমনে সরকার ব্যস্ত।

যৌথ সভায় সভাপতিত্ব করেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল। এ সময় উপস্থিত ছিলেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব এ্যাডভোকেট রুহুল কবির রিজভী, যুগ্ম মহাসচিব খায়রুল কবির খোকন, সাংগঠনিক সম্পাদক ফজলুল হক মিলনসহ বিএনপি এবং অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতারা।