তানোরে সরকারী সম্পত্তিত্বে বাবুল মার্কেট !

Wednesday, September 11th, 2019

আলিফ হোসেন (তানোর, রাজশাহী প্রতিনিধি) রাজশাহীর তানোরের কলমা ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) এলাকার বিল্লী হাটে সরকারি খাস সম্পত্তি অবৈধভাবে জবনদখল করে সেখানে ব্যক্কিগত দোকান ঘর নির্মাণ ও পজিশন বিক্রি করে প্রায় অর্ধকোটি টাকার বাণিজ্য করেছে বাবুল গাইন বলে জনশ্র“তি রয়েছে। এতে প্রায় দুশ’ বছরের ঐতিহ্যবাহী বিল্লী হাটের অস্থিত্ব চরম হুমকির মূখে পড়েছে।

এব্যাপারে চলতি বছরের ১১ সেপ্টেম্বর বুধবার এলাকার ভূমিহীন ক্ষুদ্র ব্যবসায়িরা এসব সম্পত্তি উদ্ধারের দাবিতে ডাকযোগে রাজশাহী জেলা প্রশাসক (ডিসি) তানোর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) এবং কলমা ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) চেয়ারম্যানের কাছে লিখিত অভিযোগ করেছে।

সরেজমিন বিল্লী হাটে দেখা গেছে, সরকারি খাস সম্পত্তি জবরদখল করে অবৈধ স্থাপনা নির্মাণ করা হয়েছে। রাজনৈতিক পরিচয়ের ভূমিগ্রাসীদের চরম দৌরাত্বে বিল্লী হাটের প্রায় কয়েক কোটি টাকার সরকারি খাস সম্পত্তি বেহাত হয়ে গেছে। অথচ দেশে ওয়ানইলেভেন সরকারের সময়ে বিল্লী হাটের এসব অবৈধ দখলদারদের সরকারি সম্পত্তি থেকে উচ্ছেদ ও সম্পত্তি উদ্ধার করা হয়। কিšত্ত রাজনৈতিক সরকার ক্ষমতায় আসার পর পরই তারা ফের এসব সম্পত্তি জবরদখল করে নেয়। এদিকে এসব সরকারী সম্পত্তি উদ্ধারে এলাকার জনসাধারণ এবার ইউএনওর ভূমিকা দেখতে চাই।

স্থানীয়রা জানান, বিল্লী হাট গ্রামের বাসিন্দা কাশেম গাইনের পুত্র বাবুল গাইন সরকারি সম্পত্তিতে দোকান ঘর নির্মাণ করে নাম দিয়েছেন বাবুল মার্কেট। আর বিভিন্ন ব্যবসায়িদের কাছে মার্কেটের দোকান ঘরের পজিশন বিক্রি করে প্রায় অর্ধকোটি টাকা হাতিয়ে নিয়েছেন বাবুল গাইন। বিল্লী হাটের প্রায় একচতুর্থাংশ সম্পত্তি প্রভাবশালীরা জবরদখল করে নিয়েছে। ফলে স্থান সঙ্কলন না হওয়ায় হতদরিদ্র ও ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীরা চরম বিপাকে পড়েছে। তাদের অনেকে হাটে ব্যবসার জায়গা না পেয়ে ব্যবসা গুটিয়ে নিতে বাধ্য হয়েছেন। এভাবে ব্যবসা গুটিয়ে নেয়ায় অর্থ উর্পাজনের একমাত্র পথ বন্ধ হয়ে যাওয়ায় এসব ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী পরিবার-পরিজন নিয়ে চরম মানবেতর জীবন-যাপন করছেন।

এব্যাপারে জানতে চাইলে বাবুল গাইন নিজেকে যুবলীগ নেতা দাবি করে বলেন, তিনি একা নয় অনেকেই হাটের সরকারি সম্পত্তি দখল করে মার্কেট নির্র্মণ করে পজিশন বিক্রি ও দোকান ঘর ভাড়া দিয়েছেন। তিনি বলেন, সবার যা হবে তারও তাই হবে তবে তিনি পজিশান বিক্রি করেননি ভাড়া দিয়েছেন।

এব্যাপারে তানোর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মোসাঃ নাসরিন বানু বলেন, এসব বিষয়ে বিস্তারিত খোঁজখবর নিয়ে অল্প কিছুদিনের মধ্যেই ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করে অবৈধ দখলদারদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।