ফাইনালে রোনালদোর কথায় গলে গিয়েছিলেন ডি লিট!

Saturday, July 20th, 2019

নেশনস লিগের ফাইনালে রোনালদো-ডি লিট কথাবার্তার সেই মুহূর্ত। ছবি : টুইটারনেশনস লিগের ফাইনালে রোনালদো-ডি লিট কথাবার্তার সেই মুহূর্ত। ছবি : টুইটার

ডেস্ক নিউজঃ উয়েফা নেশনস লিগের ফাইনালে ডাচ ডিফেন্ডার ডি লিটকে পেয়ে জুভেন্টাসে আসার আমন্ত্রণ জানিয়েছিলেন ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো। বার্সা, রিয়াল, ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড, পিএসজির মতো ক্লাব বাদ দিয়ে জুভেন্টাসে যোগ দেওয়া এ তারকা স্বীকার করেছেন, নেশনস লিগ ফাইনালের দিন রোনালদোর আমন্ত্রণ তাঁর বেশ লেগেছিল

অবশেষে শেষ হয়েছে ডি লিটকে নিয়ে বড় দলগুলোর টানাটানি। গত মৌসুমে চ্যাম্পিয়নস লিগে আয়াক্সকে সেমিতে তোলার অন্যতম কান্ডারি ম্যাথিস ডি লিটকে শেষ পর্যন্ত জুভেন্টাসই পেয়েছে। খালি হাতে ফিরেছে বার্সেলোনা, ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড, পিএসজির মতো ক্লাবগুলো। উয়েফা নেশনস লিগের ফাইনালে খোদ ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো ডি লিটকে ডেকে জুভেন্টাসে আসার নিমন্ত্রণ করেছিলেন। এত দিন পর ডি লিট বললেন, রোনালদোর মতো তারকার কাছ থেকে নিমন্ত্রণ পেতে তাঁর বেশ লেগেছিল।

যদিও নিজের জুভেন্টাসে আসার পেছনে রোনালদোর নিমন্ত্রণই মূল ভূমিকা পালন করেছে, এমনটা বেমালুম অস্বীকার করেছেন ডি লিট, ‘নেশনস লিগের ফাইনাল হওয়ার কিছুদিন আগ পর্যন্ত আমি নিশ্চিত ছিলাম না কোথায় যাব। ভেবেছিলাম, ফাইনালটা শেষ হোক, কয়েক দিন ছুটি কাটাই, তারপর না হয় এ ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেওয়া যাবে। তবে নেশনস লিগের ফাইনাল যে দিন হয়, আমি তত দিনে নিশ্চিত ছিলাম যে আমি জুভেন্টাসেই যাচ্ছি। তাই ম্যাচের পর রোনালদোর সঙ্গে আমার যে কথাবার্তা হয়েছে, আমার জুভেন্টাসে যোগ দেওয়ার সিদ্ধান্তের পেছনে সে আলাপের কোনো প্রভাব নেই। হ্যাঁ, এটা মানতে সমস্যা নেই যে রোনালদোর কথাগুলো শুনে অনেক ভালো লেগেছিল আমার।’

জুভেন্টাসের খেলোয়াড় হিসেবে প্রথম সংবাদ সম্মেলনে কথাগুলো বলেন ডি লিট। যুগ যুগ ধরে বিশ্বমানের ডিফেন্ডার খেলানোর ক্ষেত্রে জুভেন্টাসের জুড়ি নেই। ক্লদিও জেন্টাইল, গায়েতানো চিরেয়া, ফ্যাবিও ক্যানাভারো থেকে শুরু করে এই যুগে আন্দ্রেয়া বারজাগলি, লিওনার্দো বোনুচ্চি ও জর্জো কিয়েল্লিনি—বহু বিশ্বসেরা ডিফেন্ডার খেলে গেছেন এ ক্লাবে। সেই তালিকায় এবার নাম লেখালেন ডাচ তারকা ডি লিটও।

কিয়েল্লিনি, বোনুচ্চি, বারজাগলি-ত্রয়ী বহু বছর ধরে খেলে যাচ্ছেন জুভেন্টাসের হয়ে, বুড়ো হয়েছেন। গত মৌসুম শেষ হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে অবসর নিয়ে নিয়েছেন বারজাগলি। জুভেন্টাসের তাই আদর্শ একজন ডিফেন্ডারের বড় দরকার ছিল। সে লক্ষ্যেই মূলত ডি লিটকে নিয়ে আসা। শুধু জুভেন্টাসই নয়, ইতালি দেশটাই যেন ভালো ডিফেন্ডারদের স্বর্গরাজ্য। রক্ষণভাগের জটিল কৌশলগুলো শিখে নিতে সিরি আ তে খেলার বিকল্প নেই। আর সে কারণেই জুভেন্টাসে এসেছেন ডি লিট, ‘আমি এখানে এসেছি কেননা ঐতিহ্যগতভাবে ইতালি ডিফেন্ডারদের জন্য অনেক ভালো একটা জায়গা। জুভেন্টাসে যোগ দেওয়া আমার ক্যারিয়ারের অনেক বড় একটা ধাপ।’

ছোটবেলা থেকেই জুভেন্টাসের ভক্ত ছিলেন ডি লিট, সংবাদ সম্মেলনে এটাও জানিয়েছেন তিনি, ‘আমার বয়স যখন ছয় কি সাত, তখন জুভেন্টাসে ফ্যাবিও ক্যানাভারো (বিশ্বকাপজয়ী সাবেক ইতালিয়ান ডিফেন্ডার) খেলতেন। তাঁকে অনেক পছন্দ করতাম আমি। তাঁর জার্সি কিনে ছবি তুলেছিলাম।’