সুন্দরগঞ্জে ঠিকাদারদেরকে হয়রানির অভিযোগ

Friday, July 12th, 2019


এমএ মাসুদ, সুন্দরগঞ্জ(গাইবান্ধা)প্রতিনিধি:
গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জ পৌরসভার লাইসেন্স নবায়নের নামে ঠিকাদারদেরকে
নানাভাবে হয়রানির অভিযোগে পৌর মেয়র আব্দুল্লাহ্ধসঢ়; আল মামুনের বিরুদ্ধে সংবাদ
সম্মেলন করেছেন কিছু সংখ্যক ঠিকাদার।
শুক্রবার পৌরশহরের প্রাণকেন্দ্র বঙ্গবন্ধু চত্বর সংলগ্ন বিশিষ্ট ঠিকাদার মিজানুর
রহমান লিটুর ব্যাক্তিগত কার্যালয়ে অভিযোগকারী ঠিকাদারদের সমন্বয়ে সংবাদ
সম্মেলনে লিখিত অভিযোগপত্র পাঠ করেন মিজানুর রহমান লিটু। এসময় ঠিকাদারি
লাইসেন্স নবায়নের নামে টালবাহনা ও লাইসেন্স বাতিল করার ষড়যন্ত্রের প্রতিবাদ জানিয়ে
তিনি বলেন- গত ১২ জুন পৌরসভা কর্তৃক ৫টি প্যাকেজ টেন্ডার আহ্ধসঢ়;বান ও ২৭ জুন
সংশ্লিষ্ট ঠিকাদারদের লাইসেন্স নবায়নের জন্য নোটিশ ইস্যু করেন পৌর মেয়র
আব্দুল্লাহ্ধসঢ়; আল মামুন। তিনি লাইসেন্স নবায়নের শেষ তারিখ উল্লেখ করেন ৩১ জুলাই
পর্যন্ত। এদিকে, আহবানকৃত টেন্ডার নোটিশে দরপত্র দাখিলের শেষ দিন ১৫ জুলাই
নির্ধারণ করায় ঠিকাদারগণ তাদের লাইসেন্স নবায়নের জন্য পৌর মেয়রের নিকট বারবার
গেলেও তিনি টালবাহনা করাসহ লাইসেন্স নবায়ন কর্মকর্তাকে সু-কৌশলে পৌর
কার্যালয়ের বাইরে রাখেন। এছাড়া, মেয়র ব্যক্তিগত স্বার্থ হাসিলের জন্য ও তার
আস্থাভাজন গুটিকয়েক ঠিকাদারকে কাজ পাইয়ে দেয়ার ষড়যন্ত্র করায় তাদের লাইসেন্স
নবায়নে টালবাহনা করছেন। এ সময় অন্যান্য ঠিকাদারদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন,
লোকমান সরকার, রেজাউল আলম রেজা, আহসান আজিজ সরদার মিন্টু, মমিনুল ইসলাম,
শহিদুল ইসলাম রানা, গোলাম মর্ত্তুজা টুকু, আব্দুল্লাহ্ধসঢ়; আল মেহেদী রাসেল প্রমূখ।
এব্যপারে পৌর মেয়র আব্দুল্লাহ্ধসঢ়; আল মামুন ঠিকাদারদের আনীত অভিযোগসমূহ
অস্বীকার করে বলেন- গুটিকয়েক ঠিকাদার, যারা আমাকে ভালোবাসে না তারা এ সমস্ত
অভিযোগ করছেন। তিনি আরো বলেন ৩১ জুলাই পর্যন্ত লাইসেন্স নবায়ন করা যাবে।
সেখানে পৌরসভার কোন গাফিলতি নেই। এমনকি, আজ (শুক্রবার) বন্ধের দিনেও তাদের
কাগজপত্র এলে আমি লাইসেন্স নবায়ন করে দিব। এছাড়া, স্থানীয় ঠিকাদারদের আনীত
একটি যৌক্তিক দাবি মেনে নেয়ার চেষ্টা অব্যাহত রেখেছি।