মানুষে মাথা লাগবে গুজব ছড়ানোয় আটক ২

Friday, July 12th, 2019

স্বপ্নের পদ্মাসেতু তৈরি করতে মানুষের মাথা ও রক্ত লাগবে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এমন গুজব ছড়ানোর অভিযোগে রাজবাড়ীর পাংশা ও ভোলার চরফ্যাশন এলাকা থেকে দুজনকে আটক করা হয়েছে। আটকৃতের নাম পার্থ আল হাসান (১৬) ও ভোলা থেকে আটক করা হয় আব্দুল সহিদ হাওলাদারকে (২৪)।

ফেসবুকে পার্থ খান নামের একটি আইডি থেকে ‘পদ্মা সেতুতে মানুষের মাথা লাগবে’ এমন গুজব ছড়ানো হয়। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে পাংশার পাট্টাতে ফরিদপুর র‍্যাব-৮ এর একটি দল অভিযান চালিয়ে পার্থকে আটক করে।

এসময় তার ব্যবহৃত মোবাইল ফোনটি জব্দ করা হয়। পার্থের বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন ২০১৮ এর ২৫/৩১ ধারায় মামলা দায়ের করে পাংশা থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

এর আগে বুধবার বিকেলে ভোলায় মোবাইলে কল, ফেসবুকে পোস্ট ও ম্যাসেঞ্জারের মাধ্যমে ‘মাথা কাটা’ ও ‘ছেলে ধরার’ গুজব ছড়ানোয় আব্দুল সহিদ হাওলাদারকে (২৪) আটক করে পুলিশ।

এসময় তার কাছ থেকে গুজব ছড়ানোর কাজে ব্যবহৃত স্মার্টফোন জব্দ করা হয়। আটককৃত সহিদ হাওলাদার ভোলার চরফ্যাশন উপজেলার চর মাদ্রাজ ইউনিয়নের মোহাম্মদপুর গ্রামের মো. আলী হাওলাদারের ছেলে।

চরফ্যাশন থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শামসুল আরেফিন জানান, দীর্ঘদিন ধরে আবদুল শহিদ হাওলাদার বিভিন্ন এলাকার মানুষকে ফোন করে এবং ফেসবুকে পোস্ট ম্যাসেঞ্জারের মাধ্যমে ‘শিশুদের মাথা কেটে নেয়া হচ্ছে, ছেলে ধরারা শিশুদের ধরে নিয়ে যাচ্ছে’- এমন গুজব ছড়িয়ে আতঙ্ক সৃষ্টি করছিলেন।

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তিনি দোষ স্বীকার করেছেন এবং এ কাজে তার সঙ্গে আরও দুজন রয়েছেন।