মৌলভীবাজারে কোন অনিয়মের অভিযোগ ছাড়াই পুলিশ কনস্টেবল নিয়োগ সম্পন্ন, উর্ত্তীণ ১৩৬ জন, ৩৭জনই নারী

Friday, July 12th, 2019

জোবায়ের আহমদ,মৌলভীবাজার:

আর্থিক লেনদেন বা অবৈধ পন্থা অবলম্বন, এবং যেকোন ধরনের  তদবির বিহীন  মৌলভীবাজারে পুলিশের নতুন ৩শত ১৫ জন কনস্টেবল নিয়োগ  প্রক্রিয়া নিয়ে প্রেস ব্রিফিং দিলেন মৌলভীবাজার জেলা পুলিশ  সুপার মোহাম্মদ শা্হ জালাল বিপিএম,পিপিএম। 

উল্লেখ্য, গত ২৬শে জুন মৌলভীবাজার পুলিশ লাইনে ট্রেইনি রিক্রুট কনস্টেবল (টিআরসি) অংশগ্রহণকারী পরীক্ষার্থী প্রায় সাড়ে ৩ হাজার প্রার্থীর মধ্যে থেকে শারীরিক মাপযোগ ও শিক্ষাগত যোগ্যতার সনদপত্রসহ অন্যান্য কাগজপত্র যাচাই বাছাই শেষে ৯ শত ১৬ জন প্রার্থীকে লিখিত পরীক্ষায় অংশগ্রহণের জন্য নির্বাচিত করা হয়। তন্মধ্যে লিখিত পরীক্ষার জন্য বাছাই করা হয় ৩শত ১৫জনকে। এতে উর্ত্তীণ হন ১শত ৩৬ জন,এরমধ্যে ৩৭জনই নারী।

ট্রেইনি রিক্রুট কনস্টেবল (টিআরসি) পদে নিয়োগ  চুড়ান্তভাবে যে সব সন্তানরা চাকুরি পেলেন তাদের মধ্যে চা শ্রমিক ১৩জন,দিন মজুর ৬জন, পরিবহন শ্রমিক ২জন, হোটেল শ্রমিক ১জন, পিতৃহীন ১০জন, কৃষক ৪৩জন, প্রবাসী ১১জন, ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী ১২জন, গ্রাম্য ডাক্তার ৩ জন, মুদি দোকানদার ২জন, পান দোকানদার ৩জন, রাজমিস্ত্রী ৩জন, কাঠ মিস্ত্রী ২জন, রিক্সা চালক ১জন, নাপিত ১জন, পুরোহিত ১জন, নাইট গার্ড ১জন, সরকারী চাকুরীজীবি ৬জন, বে-সরকারী চাকুরীজীবি ৪ জন, অবসরপ্রাপ্ত ৬জন, শিক্ষক ১জন ও কর্মহীন ৩জন।

মৌলভীবাজার জেলা পুলিশ সুপার মোহাম্মদ শাহ জালাল বিপিএম, পিপিএম জানান,

পরীক্ষার আগে থেকেই সর্তক ছিল জেলা পুলিশ, দালালরা যাতে চাকুরি প্রার্থীদের প্রতারিত করতে না পারে সে জন্য বিভিন্ন জেলার সকল থানায় মাইকিংও করা হয়। অবশেষে অনিয়মের কোন অভিযোগ ছাড়াই মৌলভীবাজারে নিয়োগ পরীক্ষা সম্পন্ন করা হল।