কালো আর কোঁকড়া চুলের রাজকন্যা

Tuesday, July 9th, 2019

‘দ্য লিটল মারমেইড’ ছবিতে রাজকন্যা অ্যারিয়েলের লুক‘দ্য লিটল মারমেইড’ ছবিতে রাজকন্যা অ্যারিয়েলের লুক

 

ডেস্ক নিউজঃ ‘দ্য লিটল মারমেইড’ ১৯৮৯ সালে মুক্তি পাওয়া হলিউডের জনপ্রিয় ও দারুণ অর্থ আয় করা এক আইকনিক চলচ্চিত্র। ৩৪০ কোটি টাকা খরচ করে তৈরি এই ছবি প্রযোজকদের মুখে হাসি ফুটিয়ে বক্স অফিস থেকে তুলে আনে প্রায় দুই হাজার কোটি টাকা। কিন্তু নতুন প্রজন্মের দর্শক সেই ছবি দেখার অনুভূতি থেকে কেন বঞ্চিত হবেন? তাই ফিরে আসছে ‘দ্য লিটল মারমেইড’।

সপ্তাহখানেক আগে জানা গেছে, হ্যালি বেইলি হবেন নতুন রাজকন্যা অ্যারিয়েল। পানির নিচের পাতালপুরীতেই যার সাম্রাজ্য। কিন্তু হ্যালি বেইলি হবেন রাজকন্যা, সেটি মানতে চান না অনেকেই। কেন? কারণটা হাস্যকর। হ্যালি বেইলির গায়ের রং নাকি এমন, তা কিছুতেই রাজকন্যার চরিত্রের সঙ্গে যায় না। তাঁদের ভাষায়, রাজকন্যাদের গায়ের রং নাকি কালো হয় না! অনেকে আবার হ্যাশট্যাগ ‘নট মাই অ্যারিয়েল’ লিখে পোস্ট করছেন অনলাইন মাধ্যমে।

অনেক খোঁজাখুঁজি করে ‘রাজকন্যা অ্যারিয়েল’ চরিত্রে হ্যালি বেইলিকে চূড়ান্ত করা হয়েছেঅনেক খোঁজাখুঁজি করে ‘রাজকন্যা অ্যারিয়েল’ চরিত্রে হ্যালি বেইলিকে চূড়ান্ত করা হয়েছে

ডিজনির কেবল নেটওয়ার্ক চ্যানেল ফ্রি ফর্ম এসব সমালোচনার মুখে কষে চপেটাঘাত করেছে। এক খোলা চিঠিতে এই প্রতিষ্ঠানের কর্তৃপক্ষ বলেছেন, ‘অ্যারিয়েল একজন মৎস্যকন্যা। পানির রাজ্যেই তাঁর রাজত্ব। সে সাঁতরে যেখানে খুশি যেতে পারে। “দ্য লিটল মারমেইড” ছবির কাহিনি লিখেছেন একজন ডেনমার্কের নাগরিক। আর ডেনমার্কের নাগরিকদের গায়ের রং কালোও হয়। তাই তর্কের খাতিরে ধরে নিলাম, অ্যারিয়েল ডেনমার্কের মৎস্যকন্যা।’

হ্যালি বেইলির চুলের রং নিয়েও ধুয়ে দিয়েছেন সমালোচকেরা। বলেছেন, রাজকন্যাদের গায়ের রং শুধু কালো হয় না, এমনকি তাঁদের চুল কোঁকড়া হয় না, আবার চুলের রং সোনালি-লালও হয় না। তার জবাবে ডিজনি খোলা চিঠিতে জানিয়েছে, ডেনমার্কের মৎস্যকন্যার গায়ের রং কালো হয় আর তার মাথায় সোনালি-লাল রঙের কোঁকড়া চুলও থাকে। অসম্ভব মেধাবী, পরিশ্রমী, গর্জিয়াস হ্যালি বেইলি অ্যানিমেশনের অ্যারিয়েলের মতো দেখতে নয় বলে সে অ্যারিয়েল হতে পারবে না, সেই ভাবনা খুবই শিশুতোষ।

‘রাজকন্যা অ্যারিয়েল’ চরিত্রে হ্যালি বেইলিকে মানতে চান না অনেকেই‘রাজকন্যা অ্যারিয়েল’ চরিত্রে হ্যালি বেইলিকে মানতে চান না অনেকেই

চিঠিতে আরও বলা হয়েছে, ‘অনেক খোঁজাখুঁজি করে হ্যালি বেইলিকে এই চরিত্রের জন্য চূড়ান্ত করা হয়েছে। হ্যালির মধ্যে তারুণ্য, হৃদয়, উদ্দীপনা, সরলতা আর ভরাট কণ্ঠস্বর—এই সবকিছুর দুর্লভ, দুর্দান্ত সমাহার রয়েছে। এই আইকনিক চরিত্রে নিজেকে মেলে ধরার জন্য যা যা প্রয়োজন, সবই রয়েছে তাঁর মধ্যে।’

তাহলে এবার বড় পর্দায় কালো, সোনালি-লাল কোঁকড়া চুলের মৎস্যকন্যার সঙ্গে বাস্তবের রাজপুত্রের প্রেম দেখার জন্য তৈরি হতে হবে সবাইকে।