পাল্টে গেল পেঁয়াজের বাজারের চিত্র অভিযানে

Tuesday, May 7th, 2019
অভিযানে পাল্টে গেল পেঁয়াজের বাজারের চিত্র

ডেস্ক নিউজঃ পেঁয়াজ-রসুনের আড়তে বিক্রি-বাট্টা নিয়ে ব্যস্ত পাইকাররা। ক্রেতার বাড়তি চাপও চোখে পড়ার মতো। কিন্তু ক্রেতা-বিক্রেতার দরদাম যা হচ্ছে সবই মুখে মুখে। কোনো আড়তেই পণ্যের কত দাম তার কোনো তালিকা নেই। যদিও একটি কাগজ বা বোর্ডে লিখে তা সহজে দৃশ্যমান হয় এমন স্থানে টানানোর বাধ্যবাধকতা রয়েছে।

রমজান শুরুর আগের দিনে গতকাল সোমবার রাজধানীর কারওয়ান বাজারে সিটি করপোরেশন মার্কেটের চিত্র এটি। সকাল সাড়ে ৮টায় হঠাৎ আড়তগুলোতে নজরদারি করতে আসে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের একটি তদারকি দল। তবে সঙ্গে পুলিশ না থাকায় আড়তদাররা প্রথমে বুঝতে পারেনি বিষয়টি। এই টিমের নেতৃত্বে থাকা অধিদপ্তরের ঢাকা বিভাগীয় কার্যালয়ের উপপরিচালক মনজুর মোহাম্মদ শাহরিয়ার তালিকা না থাকার অপরাধে দুটি আড়তকে জরিমানা করার নির্দেশ দেন। তড়িঘড়ি করে বস্তার নিচ থেকে দুই বিক্রেতাই সাদা বোর্ডে পণ্যের কেজিপ্রতি দাম লেখা চার্ট বের করে সামনে রাখেন, কিন্তু তাতে খুব একটা লাভ হয়নি।

আর মুহূর্তেই অভিযানের বিষয়টি জানাজানি হয়ে যায়। অন্য আড়তদাররা ছোটাছুটি শুরু করে। কেউ বস্তার নিচ থেকে, কেউ বা চটের ব্যাগের ওপরেই মার্কার দিয়ে দ্রুত দাম লিখে কোনোমতে টাঙানো শুরু করে। তবে তদারকি দলের অন্য একজন সদস্য আগে এসেই সব আড়ত দেখে রাখেন। এরপর একই অপরাধে সব দোকানকেই পাঁচ হাজার টাকা করে জরিমানা করার নির্দেশ দেওয়া হয়।

দামের চার্ট থেকে দেখা গেল, প্রতি কেজি দেশি পেঁয়াজ ২৬-২৮ টাকা এবং আমদানি করা পেঁয়াজ ২২ টাকা করে পাইকারি বিক্রি হচ্ছে। তবে তদারকি দল জানায়, পুরান ঢাকার শ্যামবাজারে ১৭-২০ টাকা কেজি দরে দেশি পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে। সে তুলনায় এখানে দাম বেশি। তবে বিক্রেতারা তাদের রসিদ দেখিয়ে প্রমাণ করার চেষ্টা করে যে পাবনা ও ফরিদপুরের বিভিন্ন আড়ত থেকে পেঁয়াজগুলো তারা কিনেছে। সেখানে প্রতি কেজি পেঁয়াজের দাম পড়েছে ২৪ টাকা।

মনজুর মোহাম্মদ শাহরিয়ার পরে ভোক্তা অধিদপ্তরের পাবনা কার্যালয়কে বিষয়টি খতিয়ে দেখার নির্দেশ দেন। এই কর্মকর্তা বলেন, ‘এক দিন আগেই সবাইকে সতর্ক করে দেওয়া হয়েছিল মূল্যতালিকা দৃশ্যমান স্থানে টাঙানোর জন্য, কিন্তু তারা কেউই সে কথা শোনেনি। তাই এই অভিযানে সবাইকে সামান্য জরিমানা করা হলো। নিয়মিত অভিযান পরিচালনা করে তাদের নিয়ম মানতে বাধ্য করা হবে।’