হুমকি-ধমকিতে নির্বাচন নিয়ে জনমনে সন্দেহ বাড়বে: বি চৌধুরী

Wednesday, November 21st, 2018

ডেস্ক নিউজঃ যুক্তফ্রন্ট চেয়ারম্যান ও বিকল্পধারার সভাপতি এ কিউ এম বদরুদ্দোজা চৌধুরী বলেছেন, জনগণ নির্বাচনী মেজাজে রয়েছে, নির্বাচনকে ঘিরে কোনো ষড়যন্ত্র বা হুমকি-ধমকিতে নির্বাচন নিয়ে জনমনে সন্দেহের সৃষ্টি হবে। বিরোধী দলকে এ কথা বুঝতে হবে।

আজ বুধবার বিকেলে মধ্য বাড্ডায় বিকল্পধারার নির্বাচনী কার্যালয়ে দলের মনোনয়নপ্রার্থীদের সাক্ষাৎকার গ্রহণ শেষে সাংবাদিকেদের বদরুদ্দোজা চৌধুরী এসব কথা বলেন।
বি চৌধুরী বিরোধী দলের উদ্দেশে বলেন, জনগণ নির্বাচনী মেজাজে রয়েছে, নির্বাচন ঘিরে কোনো ষড়যন্ত্র, হুমকি-ধমকিতে নির্বাচন নিয়ে জনমনে সন্দেহের সৃষ্টি হবে। নির্বাচন ঠেকিয়ে দেওয়া হবে, ভোটে বাধা দেওয়া হবে, এমন কোনো আভাস দেওয়া হলে ইতিহাস তাদের ক্ষমা করবে না।
সাবেক এই রাষ্ট্রপতি বলেন, ভারসাম্য রাজনীতি প্রতিষ্ঠায় আপস করতে হলে যে দল সরকার গঠন করবে, সে দলের শরিকদের অধিকসংখ্যক আসন দিয়ে ভারসাম্য তৈরি করতে হবে।
মহাজোটের কাছে কয়টি আসন চান? এ বিষয়ে সাংবাদিকেরা জিজ্ঞেস করলে বি. চৌধুরী বলেন, তা এখনই জানাতে চান না। তিনি বলেন, তাঁরা রাজনীতিতে সংশোধন আনতে চান। কোনো দল একক সিদ্ধান্তে যেন স্বেচ্ছাচারিতা করতে না পারে, বিকল্পধারা সেই ধারার রাজনীতি প্রতিষ্ঠা করবে বলেও তিনি উল্লেখ করেন।
নির্বাচনে বিদেশি পর্যবেক্ষকদের নির্বাচনের পর রাজনৈতিক পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণের জন্য আরও কয়েক দিন থাকার অনুমতি দেওয়া উচিত বলে মনে করেন সাবেক এই রাষ্ট্রপতি। এ ছাড়া একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন ‘ঐতিহাসিক নির্বাচন’ হবে বলে তিনি মনে করেন।
বি. চৌধুরী জানান, আগামী কয়েক দিনের মধ্যে তাঁদের নির্বাচনী ইশতেহার প্রকাশ করা হবে। তিনি বলেন, নতুন ভোটারের সংখ্যা অনেক বেশি। তাঁরা যেন নির্বিঘ্নে ভোট দিতে পারেন। নিরপেক্ষ সুন্দর নির্বাচন দেখতে পারেন, তার ব্যবস্থা করতে হবে। কারণ নির্বাচন কমিশন এখন এক শত ভাগ স্বাধীন।
অনুষ্ঠানে বিকল্পধারার প্রেসিডিয়াম সদস্য সমশের মবিন চৌধুরী, প্রেসিডিয়াম সদস্য ও যুক্তফ্রন্টের প্রধান সমন্বয়ক গোলাম সারোয়ার মিলন, প্রেসিডিয়াম সদস্য আবদুর রউফ মান্নান, সাংগঠনিক সম্পাদক ওমর ফারুক প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।