সুন্দরগঞ্জে গৃহবধুর রহস্যময় আত্মহত্যা

Saturday, November 17th, 2018

মামুন ইসলাম (সুন্দরগঞ্জ প্রতিনিধি) গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জে গোয়াল ঘরের ধর্ণার সঙ্গে গলায় রশি পেঁচিয়ে সুমী বেগম (১৪) নামে এক গৃহবধু‚ আত্মহত্যা করেছে।
বিভিন্ন সুত্রে জানা যায়, শনিবার সন্ধ্যায় সুন্দরগঞ্জ পৌরসভার ৭ নং ওয়ার্ডের রামডাকুয়া মহল্লার মেহেদী হাসানের স্ত্রী ও পৌরসভার সাবেক কাউন্সিলর নুর- আলমের পুত্রবধু‚ সুমী বেগম গোয়াল ঘরের ধর্ণার সঙ্গে গলায় রশি পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করে। মৃত সুমী বেগম উপজেলার কঞ্চিবাড়ি ইউনিয়নের নতুন দুলাল গ্রামের অবসরপ্রাপ্ত এলজিইডির চতুর্থ শ্রেণীর কর্মচারী শামছুল হকের কন্যা। গত ৩ মাস আগে প্রেমের সম্পর্ক ধরে মেহেদী হাসান ও সুমী বেগম একে অপরকে বিয়ে করে। এ নিয়ে পরিবারে বিবাদ চলে আসার একপর্যায়ে সুমীী বেগম বাড়ির গোয়াল ঘরের ধর্ণার সঙ্গে গলায় রশি পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করে।
মৃত সুমী বেগমের বড় ভাই শফিকুল ইসলাম অভিযোগ করে জানান, গত বৃহস্পতিবার তার ছোট বোন (সুমী বেগম) ধর্মপুর জেএসসি পরীক্ষা কেন্দ্রে পরীক্ষা দিয়ে বের হবার পর সুমীকে জোর পুর্বক বাড়িতে নিয়ে যায় তার স্বামী মেহেদী হাসান। সুমীকে নিয়ে যাবার পর পুর্বজের ধরে পরিবারের সবাই মিলে পাশবিক নির্যাতন করে হত্যা করার পর পরিকল্পিতভাবে সুমী বেগমের আত্মহত্যার নাটক সাজিয়ে প্রকৃত ঘটনা ভিন্ন খাতে প্রবাহের অপচেষ্টা চালাচ্ছে। এ ব্যাপারে হত্যা মামলা করবেন বলে শফিকুল ইসলাম জানান।
থানা অফিসার ইনচার্জ- এসএম আব্দুস সোবহান জানান, এ ব্যাপারে থানায় এখনো কোন অভিযোগ আসেনি।