গোপালগঞ্জের মুকসুদপুরে অসুস্থ মুক্তিযোদ্ধাকে ভিটামাটি ছাড়ার ও হত্যার হুমকি : প্রশাসনের হস্তক্ষেপ জরুরী

Wednesday, November 14th, 2018


নিজস্ব প্রতিনিধি, গোপালগঞ্জ : গোপালগঞ্জের মুকসুদপুরে চাওচা
গ্রামের অসুস্থ মুক্তিযোদ্ধা সলেমান শেখকে (৭৩) একটি সন্ত্রাসী চক্র
বাড়ী-ঘর থেকে উৎখাত ও হত্যার হুমকি দিচ্ছে বলে অভিযোগ করেছে তার
পরিবার।
ওই এলাকার আশরাফ আলীর ছেলে এখলাস কসাইয়ের নেতৃত্বে সন্ত্রাসীরা
মুক্তিযোদ্ধা সলেমান শেখকে এ সব হুমকি দেয়। ফলে বর্তমানে চরম
নিরাপত্তাহীনতার মধ্যে দিন কাটছে অসুস্থ ওই মুক্তিযোদ্ধা ও তার পরিবারের।
মুক্তিযোদ্ধা সলেমান শেখের স্ত্রী আফরোজা বেগম অভিযোগ করে বলেন,
সম্প্রতি পুরানো একটি গাছ ভেঙ্গে তাদের ঘরের চালের উপর পড়ে। এতে তাদের
ঘরের ব্যপক ক্ষতি হয়। তার স্বামী ক্ষতিগ্রস্থ ঘরটি অপসারন করে ওই স্থানে
নতুন ঘর নির্মানের উদ্যোগ নিলে এখলাস কসাই ও তার লোকজন লাঠি
সোটা নিয়ে তার অসুস্থ স্বামীর উপর হামলা ও মারপিট করে। এছাড়া পুনরায়
ঘর তোলার চেষ্টা করলে তাকে হত্যা ও বাড়ী থেকে উৎখাত করা হবে বলে হুমকি
দেয় এখলাস কসাইয়ের লোকজন। বর্তমানে এখলাস কসাইয়ের লোকজনের ভয়ে
তারা ভাঙ্গা ঘরের মধ্যে থাকতে বাধ্য হচ্ছে। এছাড়া চরম নিরাপত্তহীনতার মধ্যে
দিন কাটাচ্ছে তারা।
এরআগেও একবার এখলাস কসাই তার লোকজন নিয়ে মুক্তিযোদ্ধা সলেমান
শেখকে মারপিট করে আহত করে বলে তার স্ত্রী আরো জানান।
স্থানীয় লোকজনের সাথে কথা বলে জানা যায়, মুকসুদপুরের বাটিকামারি
ইউনিয়নের চাওচা গ্রামে ১.৩৭ একর জমি নিয়ে মুক্তিযোদ্ধা সলেমান
শেখের সাথে প্রতিপক্ষের দ্বন্দ্ব ও মামলা চলে আসছে।
এখলাস কসাইয়ের সাথে কথা বললে তিনি বলেন, ওই জমিতে তাদেরও স্বত্ত্ব
রয়েছে। সম্পত্তি বাটোয়ারা না করে ঘর তুলতে গেলে আমরা তাকে বাধা
দিয়েছি।