২৫শে সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং | ১০ই আশ্বিন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, শরৎকাল

৫৩৭৭ কোটি টাকার খেলোয়াড় বিক্রি করেছে মোনাকো

প্রকাশিতঃ আগস্ট ৭, ২০১৮, ৯:২২ পূর্বাহ্ণ


‘টাকার গাছ’ আছে ফ্রেঞ্চ ওয়ান লিগের ক্লাব মোনাকোর কাছে! খেলোয়াড়েরাই হলেন মোনাকোর ‘টাকার গাছ’, এটা বলাই যায়। দল বদলের বাজারে খেলোয়াড় বিক্রি করে যে পরিমাণ আয় করছে ক্লাবটি, এ কথা বললে আর ভুল ধরার লোক কোথায়! খেলোয়াড় বিক্রি করে দুই মৌসুমে দলটি আয় করে নিয়েছে প্রায় ৫৫০ মিলিয়ন ইউরো। ৫ হাজার ৩৭৭ কোটি টাকা!

মোনাকোর বিক্রি করা খেলোয়াড়দের তালিকাটা বেশ ভারী ও লম্বা। এ তালিকায় আছেন কিলিয়ান এমবাপ্পের মতো তারকা। আর তালিকায় শেষ সংযোজন আলজেরিয়ান উইঙ্গার রাচিদ গেজাল। লেস্টারসিটির কাছে আলজেরীয় এই উইঙ্গারকে ১৪ মিলিয়ন ইউরোতে বিক্রি করাতেই ৫৫০ মিলিয়ন ইউরোর অবিশ্বাস্য অঙ্কটা ছুঁয়েছে মোনাকো।

৫৫০ মিলিয়ন ইউরো আয়ের সবচেয়ে বড় অংশটা এসেছে ফ্রান্সের খেলোয়াড়দের মাধ্যমে। সবচেয়ে বড় দানটা মেরেছে ফরাসি ফরোয়ার্ড এমবাপ্পেকে বিক্রি করে। গত গ্রীষ্মে দল বদলের বাজারে এমবাপ্পেকে ধারে প্যারিস সেন্ট জার্মেইয়ের কাছে পাঠানো হয়েছে। সে সঙ্গে শর্ত, এ মৌসুমে তাদের হাতে তুলে দেওয়া হবে ১৮০ মিলিয়ন ইউরো। ফ্রান্সের আরেক মিডফিল্ডার থমাস লেমারকে অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদের কাছে বিক্রি করা হয়েছে ৭০ মিলিয়নে, ফরাসি ডিফেন্ডার বেঞ্জামিন মেন্ডিকে ম্যানচেস্টার সিটির কাছে বিক্রি করা হয়েছে ৫৭.৫ মিলিয়নে।

ইংলিশ একই ক্লাবের কাছে ৫০ মিলিয়নে বিক্রি করা হয়েছে পর্তুগিজ মিডফিল্ডার বার্নান্দো সিলভাকে, ব্রাজিলিয়ান রাইটব্যাক ফাবিনহোকে ৫০ মিলিয়নে ছাড়া হয়েছে লিভারপুলে, মিডফিল্ডার তিয়েমো বাকাইয়োকো চেলসিতে গেছেন ৪০ মিলিয়নে।

এ ছাড়া হাডার্সফিল্ডের কাছে কংগোলোকে ২০ মিলিয়ন ও আদামা দিয়াখাবিকে বিক্রি করা হয়েছে ১০ মিলিয়ন ইউরোতে। জোয়াও মুতিনহোকে ৫.৫ মিলিয়ন ও মেইতাকে ১০ মিলিয়নে বিক্রি করা হয়েছে লেস্টার সিটির কাছে।

Leave a Reply

৯৭/৩/খ, উত্তর বিশিল, মিরপুর-১, ঢাকা-১২১৬
মোবাইলঃ ০১৭১২-৬৪৩৬৭৩, বার্তা বিভাগঃ ০১৭১২-৬৪৪৩৫০
ইমেইলঃ [email protected], [email protected]

সম্পাদক:
মোঃ সুলতান চিশতী

ব্যবস্থাপনা সম্পাদকঃ
মহসিন হাসান খান (বুলবুল)

নির্বাহী সম্পাদকঃ
মোঃ ইব্রাহিম হোসেন

সহকারী সম্পাদকঃ
মোঃ আতোয়ার হোসেন

আইন উপদেষ্টাঃ
শাহিন সরকার


.: Developed By :.
Great IT