১৬ই অক্টোবর, ২০১৮ ইং | ১লা কার্তিক, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, হেমন্তকাল

সরকারী জমি উদ্ধারে পূনরায় কক্সবাজার জেলা প্রশাসনের উচ্ছেদ অভিযান

প্রকাশিতঃ সেপ্টেম্বর ২৫, ২০১৮, ১১:৪৯ পূর্বাহ্ণ


মোঃ নুরুল হুসেন (কক্সবাজার প্রতিনিধি) বার বার উচ্ছেদের পরও পুনরায় দখল হয়ে যায় কক্সবাজার সমুদ্র সৈকতের পাড়ের কোটি টাকা মূল্যের সরকারি জমি।কিন্তু রাতের আধাঁরে স্থাপনা তৈরি করে পুনরায় জমিটি দখল করে নেয় ভূমিদস্যু চক্র। সর্বশেষ সোমবার বিকেলে ৬ষ্ঠ বারের মত উচ্ছেদ করে সমুদ্র সৈকতের সুগন্ধা পয়েন্টের সরকারি জমিটি উদ্ধার করেছে জেলা প্রশাসন। জেলা প্রশাসনের পক্ষে অভিযান পরিচালনা করেন কক্সবাজার সদর উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) নাজিম উদ্দিন।তিনি বলেন,টানা ৬ষ্ঠবারের মতো উচ্ছেদ করা হয়েছে সমুদ্র সৈকতের সুগন্ধা পয়েন্টের তরঙ্গ রেস্তোঁরার পাশে নির্মিত অবৈধ স্থাপনা। ঝাউগাছ কেটে বাতিলকৃত প্লটে স্থাপনা নির্মাণের অভিযোগে গত একবছরে পাঁচবার উচ্ছেদ করা হয়েছিল। এরপর চারমাসের ব্যবধানে সেখানে ‘হাঁড়ি’ নামে একটি রেঁস্তোরা তৈরি করা হয়। জমিটির মূল্য প্রায় এক কোটি টাকার।তিনি আরও বলেন,তরঙ্গ রেস্তোরার পাশে হাঁড়ি রেস্তোরা ছাড়াও ক্যাঙ্গারু শোরুম ও ফুড ভিলেজ নামে আরও দুটি অবৈধ স্থাপনা উচ্ছে করা হয়।এসময় জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট (পর্যটন শাখার দায়িত্বপ্রাপ্ত) শেখ সেলিম, আনসার ব্যাটালিয়ান ও পর্যটক সেবায় নিয়োজিত বিচ কর্মীর ইনচার্জ মো. বেলাল উপস্থিত ছিলেন।জানা গেছে, পাঁচবার উচ্ছেদের পরও মাত্র চার মাসের ব্যবধানে ওই জমিতে অর্ধকোটি টাকা ব্যয়ে গড়ে তোলা হয় ‘হাঁড়ি রেস্তোঁরা’ নামের অভিজাত এক খাবার হোটেল। রেস্তোরা নির্মাণের জন্য কাটা হয় ২০টিরও বেশি ঝাউগাছ।রীতিমতো প্রশাসনের সাথে চ্যালেঞ্জ ছুঁড়েই সেখানে প্রকাশ্যে দিনে-দুপুরে রেস্তোঁরার বর্ধিত কাজ করা হয়। কিন্তু এখন শেষ পর্যন্ত সরকারি জমিটি ভূমিদস্যুর হাত থেকে রক্ষা পাবে কি না তা নিয়ে সংশয় রয়ে গেছে।

Leave a Reply

৯৭/৩/খ, উত্তর বিশিল, মিরপুর-১, ঢাকা-১২১৬
মোবাইলঃ ০১৭১২-৬৪৩৬৭৩, বার্তা বিভাগঃ ০১৭১২-৬৪৪৩৫০
ইমেইলঃ [email protected], [email protected]

সম্পাদক:
মোঃ সুলতান চিশতী

ব্যবস্থাপনা সম্পাদকঃ
মহসিন হাসান খান (বুলবুল)

নির্বাহী সম্পাদকঃ
মোঃ ইব্রাহিম হোসেন

সহকারী সম্পাদকঃ
মোঃ আতোয়ার হোসেন

আইন উপদেষ্টাঃ
শাহিন সরকার


.: Developed By :.
Great IT