২৪শে সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং | ৯ই আশ্বিন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, শরৎকাল

রাজশাহীতে দেশি বলে বিক্রি হচ্ছে ভারতীয় গরু

প্রকাশিতঃ আগস্ট ১৫, ২০১৮, ১১:০৬ অপরাহ্ণ


রাজশাহীর সিটিহাটে দেশি হিসেবেই দেদারছে বিক্রি হচ্ছে ভারতীয় গরু। যদিও মাস তিনেক আগে আসা এসব গরু মোটাতাজা করেছেন মৌসুমি খামারিরা। দেশি হিসেবে সেগুলোই এখন বাজারে উঠেছে।

খামারি ও ব্যবসায়ীরা বলছেন, ভারত থেকে আসা এসব গরু প্রাকৃতিক উপায়েই মোটাতাজা করা হয়েছে। কোরবানি সামনে রেখে প্রতিবছরই এমনটি করেন মৌসুমি খামারিরা। এসব গরুতে লাভও হয় বেশি। ফলে দিন দিন দেশি গরু বাদ দিয়ে ভারতীয় গরু মোটাতাজায় ঝুঁকছেন অনেকেই।

বুধবার হাটবার ছিল রাজশাহীর সিটিহাটে। হাটে গিয়ে দেখা গেলো কোরবানিযোগ্য গরুর আধিক্য। এর সিংহভাগই ভারতীয় গরু। ভারতীয় গরুগুলো দেশীয় গরুর চেয়ে তুলনামূলক বড় সাইজের। ৭৫ হাজার থেকে এক লাখে মিলছে এসব গরু। হাটে দেশি কোরবানিযোগ্য গরুও তুলেছেন খামারিরা। তবে ৪০ হাজার থেকে দেড়লাখ টাকায় বিক্রি হচ্ছে গরুগুলো।

ভারত সীমান্তবর্তী গোদাগাড়ী উপজেলার দিয়াড় মানিকচক এলাকার বাসিন্দা একরামুল হক। বুধবার হাটে ২২টি গরু নিয়ে এসেছেন তিনি। এই গরু ব্যবসয়ী বলেন, তিনমাস আগে সীমান্তেই ভারত থেকে আনা এসব গরু কিনেছেন। এরপর বাড়িতে রেখে প্রকৃতিক খাবার খাইয়ে মোটাতাজা করেছেন। এলাকার অনেকেই কোরবানি সামনে রেখে ভারতীয় গরু মোটাতাজা করে বাজারে তুলেছেন।

পবা উপজেলার বড়গাছি এলাকার গরু ব্যবসায়ী নামাজি শেখ। গ্রামে গ্রামে ঘুরে গরু কেনেন তিনি। তিনিও হাটে তুলেছেন ৮টি কোরবানিযোগ্য বলদ। এর সবগুলোই ভারতীয়। তিনি বলেন, সিটিহাট থেকে কিনে নিয়ে গিয়ে মোটাতাজা করেছেন গ্রামের লোকজন। লাভ বেশি হওয়ায় ভারতীয় গরু মোটাতাজা করেন এলাকার মৌসুমি খামারিরা।

এদিকে, রাজশাহীর কাস্টমস জানিয়েছে এ বছরের মে থেকে জুলাই এই তিন মাসে রাজশাহী অঞ্চলের সাতটি করিডোর হয়ে এসেছে ৬৩ হাজার ৮৭৮ গবাদি পশু। গত বছরের একই সময়ের এসেছিল এর প্রায় দ্বিগুণ। গত বছরের মে থেকে জুলাই পর্যন্ত এসেছিল এক লাখ ৭৫ হাজার ২৮।

এ বছর কোরবানির আগের এই তিন মাসে ৪৫ হাজার ৫১৮ গবাদি পশু এসেছে চাঁপাইনবাবগঞ্জের কানসাট করিডোর হয়ে। গত বছর একই সময়ে এই করিডোর পেরিয়েছে এ লাখ ৩০ হাজার ৬৮০ গবাদি পশু।

Leave a Reply

৯৭/৩/খ, উত্তর বিশিল, মিরপুর-১, ঢাকা-১২১৬
মোবাইলঃ ০১৭১২-৬৪৩৬৭৩, বার্তা বিভাগঃ ০১৭১২-৬৪৪৩৫০
ইমেইলঃ [email protected], [email protected]

সম্পাদক:
মোঃ সুলতান চিশতী

ব্যবস্থাপনা সম্পাদকঃ
মহসিন হাসান খান (বুলবুল)

নির্বাহী সম্পাদকঃ
মোঃ ইব্রাহিম হোসেন

সহকারী সম্পাদকঃ
মোঃ আতোয়ার হোসেন

আইন উপদেষ্টাঃ
শাহিন সরকার


.: Developed By :.
Great IT