২৫শে সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং | ১০ই আশ্বিন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, শরৎকাল

মিথ্যায় ভরা বই: ট্রাম্প

প্রকাশিতঃ জানুয়ারি ৫, ২০১৮, ৮:৩৮ অপরাহ্ণ


সদ্য প্রকাশিত ‘ফায়ার অ্যান্ড ফিউরি: ইনসাইড দ্য ট্রাম্প হোয়াইট হাউস’ বইটি সম্পর্কে মুখ খুলেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। তিনি বলেছেন, বইটিতে তাঁর নেতৃত্বাধীন প্রশাসন সম্পর্কে যেসব অভিযোগ উঠেছে, সেগুলো ‘মিথ্যায় ভরা’। স্থানীয় সময় শুক্রবার সকালে এক টুইট বার্তায় এ মন্তব্য করেছেন ট্রাম্প।

টুইট বার্তায় মার্কিন প্রেসিডেন্ট লিখেছেন, ‘ওই নকল বইয়ের লেখকের হোয়াইট হাউসে প্রবেশাধিকার বাতিল করে দিয়েছি আমি। ওই বইয়ের ব্যাপারে আমি তাঁর সঙ্গে কখনো কথাই বলিনি। মিথ্যায় ভরা, ভুল ব্যাখ্যা ও অস্তিত্বহীন সূত্রের বয়ান। ওই ব্যক্তির অতীতের দিকে তাকান এবং দেখুন তাঁর ও পচা স্টিভের কী হয়!’

বিবিসির খবরে বলা হয়েছে, বইটি আগামী মঙ্গলবার প্রকাশিত হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু ডোনাল্ড ট্রাম্পের আইনজীবীরা প্রকাশে বাধা দিতে আইনি নোটিশ পাঠানোর পর আগেভাগেই শুরু হয়ে গেছে বইটির বিক্রি। ট্রাম্প প্রশাসনের ভেতরের ও বাইরের বিভিন্ন ব্যক্তির প্রায় ২০০ সাক্ষাৎকারের ওপর ভিত্তি করে বইটি লেখা। রয়েছে হোয়াইট হাউসের উল্লেখযোগ্য অনেকের ঘটনার টুকরো টুকরো অংশ।

বইটি লিখেছেন মাইকেল ওলফ। প্রকাশের আগেই এর কিছু অংশ সংবাদমাধ্যমের হাতে চলে আসে। সেই থেকে শুরু হয়েছে বিতর্ক। বইটিতে দাবি করা হয়েছে, প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে জয়ের পর খোদ ট্রাম্পই বিস্মিত হয়েছিলেন। এ ছাড়া ট্রাম্পের সাবেক পরামর্শক স্টিভ ব্যাননের নানা বিস্ফোরক মন্তব্য আছে এই বইয়ে। ব্যাননের বরাতে বইয়ে বলা হয়েছে, ট্রাম্পের ছেলের সঙ্গে রুশদের বৈঠকটি ছিল ‘রাষ্ট্রদ্রোহমূলক’।

গত আগস্ট মাসে হোয়াইট হাউসের পদ থেকে স্টিভ ব্যাননকে বরখাস্ত করা হয়। এরপর থেকেই বিস্ফোরক মন্তব্য করে চলেছেন ব্যানন। এ বিষয়ে কিছুদিন আগে ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেছিলেন, হোয়াইট হাউসে পদ হারানোর সঙ্গে সঙ্গে ‘মাথাটাও গেছে’ ব্যাননের।

‘ফায়ার অ্যান্ড ফিউরি: ইনসাইড দ্য ট্রাম্প হোয়াইট হাউস’ বইয়ে আরও বলা হয়েছে, নির্বাচনে জয়ের খবরে প্রচারণায় কাজ করা ট্রাম্পের দলের সবাই আতঙ্কিত হয়ে পড়েছিলেন। নতুন প্রেসিডেন্ট হিসেবে ট্রাম্পের নাকি হোয়াইট হাউস ভালো লাগেনি। এ ছাড়া বলা হয়েছে, ‘যুক্তরাষ্ট্রের ইতিহাসে প্রথম নারী প্রেসিডেন্ট’ হওয়ার প্রস্তুতি নিয়ে রেখেছেন ট্রাম্পকন্যা ইভানকা।

গতকাল দ্য ওয়াশিংটন পোস্টের খবরে বলা হয়, প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের পক্ষ থেকে লেখক মাইকেল ওলফ ও বইটির প্রকাশককে আইনি নোটিশ পাঠানো হয়েছে। সেই নোটিশে বইটি প্রকাশ ও প্রচার তাৎক্ষণিকভাবে বন্ধ করতে বলা হয়। তবে উদ্ভূত পরিস্থিতিতে বইয়ের প্রকাশ এগিয়ে নেওয়ার সিদ্ধান্ত নেন লেখক ও প্রকাশক।

প্রেসিডেন্ট মুখ খোলার আগেই অবশ্য বইয়ে বর্ণিত তথ্যের বিশ্বাসযোগ্যতা নিয়ে প্রশ্ন তোলেন হোয়াইট হাউসের প্রেস সচিব সারাহ স্যান্ডার্স। তিনিও বইয়ে দেওয়া তথ্যকে মিথ্যা বলে অভিহিত করেছিলেন।

Leave a Reply

৯৭/৩/খ, উত্তর বিশিল, মিরপুর-১, ঢাকা-১২১৬
মোবাইলঃ ০১৭১২-৬৪৩৬৭৩, বার্তা বিভাগঃ ০১৭১২-৬৪৪৩৫০
ইমেইলঃ [email protected], [email protected]

সম্পাদক:
মোঃ সুলতান চিশতী

ব্যবস্থাপনা সম্পাদকঃ
মহসিন হাসান খান (বুলবুল)

নির্বাহী সম্পাদকঃ
মোঃ ইব্রাহিম হোসেন

সহকারী সম্পাদকঃ
মোঃ আতোয়ার হোসেন

আইন উপদেষ্টাঃ
শাহিন সরকার


.: Developed By :.
Great IT