২৫শে সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং | ১০ই আশ্বিন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, শরৎকাল

মালিক সমিতির দ্বন্দে দক্ষিণাঞ্চলে ফের ৬ রুটে বাস বন্ধ

প্রকাশিতঃ জানুয়ারি ৩, ২০১৮, ৯:২৯ অপরাহ্ণ


বরিশাল ও ঝালকাঠি মিনিবাস মালিক সমিতির দ্বন্দে বরিশাল থেকে সরাসরি ৬ রুটে ফের বাস চলাচল বন্ধ রয়েছে। এতে বরিশাল থেকে যাত্রীদের নগরির রুপাতলী থেকে বিকল্প পরিবহনে ৪ কিলোমিটার দূরে গিয়ে বাসে চেপে গন্তব্যে যেতে হচ্ছে। এ ছাড়া বরিশালের উদ্দেশে দক্ষিণাঞ্চলের খুলনার রূপসা, বাগেরহাট, মহেষপুর ও পিরোজপুর থেকে ছেড়ে আসা বাসগুলো বরিশালের শেষ সীমানার চার কিলোমিটার আগে ঝালকাঠির রায়াপুরে আটকে যাচ্ছে। এতে দুর্ভোগে পড়েছেন যাত্রীরা। তবে ঝালকাঠি বাস মালিক সমিতি আগের মতো তাদের আওতাধীন রায়াপুরা নামক স্থান থেকে বাস চলাচল চালু রেখেছে। বুধবার (০৩ জানুয়ারি) সকাল থেকে এ অবস্থা তৈরি হওয়ায় যাত্রীদের কিছুটা বিড়ম্বনায় পড়তে হচ্ছে। ঝালকাঠি বাস ও মিনিবাস শ্রমিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক মো. বাহাদুর চৌধুরী জানান, দীর্ঘদিন ধরে ওই ছয় রুটে বরিশাল, পটুয়াখালী, পিরোজপুর ও বাগেরহাট সমিতির বাস সমন্বয় করে চলাচল করলেও বরিশাল-কুয়াকাটা রুটে ঝালকাঠি সমিতির কোনো বাস চলতে দেওয়া হচ্ছে না। কিন্তু বরিশাল-কুয়াকাটা রুটে ঝালকাঠি জেলার নলছিটি উপজেলাধীন ৮ কিলোমিটার রাস্তা রয়েছে। তিনি বলেন, ওই ৮ কিলোমিটার সড়ক বরিশাল ও পটুয়াখালী মালিক সমিতি ব্যবহার করলেও ঝালকাঠি মালিক সমিতির কোনো বাস চলতে দেওয়া হয় না। তাই ন্যায্য হিস্যার দাবিতে আল্টিমেটাম অনুযায়ী তারা গত ১৮ ডিসেম্বর বরিশাল নগরের রুপাতলী বাসস্ট্যান্ড থেকে বাস চলাচল বন্ধ করে দেন। এতে করে বরিশাল সমিতির কোনো বাস ঝালকাঠি কিংবা ঝালকাঠি হয়ে অন্য কোথাও যেতে পারেনি। পরে ২০ ডিসেম্বর বিভাগীয় কমিশনারের কার্যালয়ে একসভার মাধ্যমে এ বিষয়ে সমাধানের জন্য বেশ কিছু সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। যার মধ্যে ২ জানুয়ারি বরিশাল সার্কিট হাউজে বিভাগের ৬ জেলার বাস মালিক সমিতির সভা করার ঘোষনা করে এবং সভার সিদ্ধান্ত অনুযায়ী ওইদিন বিকেল থেকেই বরিশাল থেকে বাস চলাচল স্বাভাবিক হয়। কিন্তু আগের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী ২ জানুয়ারির সভায় তারা আসলেও বরিশাল রুপাতলীস্থ বাস-মিনিবাস মালিক সমিতির কেউ আসেননি। ঝালকাঠি বাসমালিক সমিতির নেতৃবৃন্দ জানান, বৈঠকে বরিশাল বাস মালিক সমিতির নেতৃবৃন্দ না আসায় সমঝোতা বৈঠক ভেস্তে যায়। অপরদিকে বরিশাল থেকে যাত্রীদের চার কিলোমিটার বিকল্পযানে করে ঝালকাঠির রায়াপুরে এসে দক্ষিণাঞ্চলের বিভিন্ন গন্তব্যে যেতে বাস ধরতে হচ্ছে। এতে চরম ভোগান্তি নেমে এসেছে বরিশাল-খুলনা অঞ্চলের অসংখ্য যাত্রীদের।
রাজাপুর থেকে বরিশালে যাওয়ার যাত্রী সুমন তালুকদার জানান, রাজাপুর থেকে বরিশালে যাবার জন্য ৬০ টাকা দিয়ে টিকিট কেটেছি। কিন্তু চার কিলোমিটার আগেই আমাদের নামিয়ে দেয়া হয়েছে। বিকল্প পরিবহনে এই চার কিলোমিটার পথ যেতে আরও ১৫ থেকে ২০ টাকা লাগছে সঙ্গে ভোগান্তিতো রয়েছেই।
বুধবার সকাল ৮টা থেকে ঝালকাঠির রায়াপুর এলাকায় ঝালকাঠি সমিতির লোকজন অবস্থান নিয়ে বরিশাল মালিক সমিতির বাস বন্ধ করে দেয়। ফলে বরিশালের সঙ্গে ঝালকাঠি, পিরোজপুর, বাগেরহাট, মহেষপুর ও রূপসা মালিক সমিতির সরাসরি বাস চলাচল বন্ধ হয়ে গেছে। এতে দুর্ভোগে পড়েছে যাত্রীরা।
এদিকে বরিশাল-পটুয়াখালী মিনিবাস শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি সুলতান মাহামুদ জানান, ঝালকাঠি বাস মালিক সমিতি সকাল থেকে তাদের কোনো বাস ঝালকাঠিতে প্রবেশ করতে দিচ্ছে না, কিংবা বরিশালেও আসতে দিচ্ছে না। মঙ্গলবার বিকেলেই তারা তাদের মালিক সমিতির সব বাস রুপাতলী থেকে সরিয়ে নিয়েছে। তবে বিষয়টি সমাধানে তারা সভা করছেন, যেখানে এ সমস্যার সমাধানে চেষ্টা চলছে। ঝালকাঠি বাস মালিক সমিতির দপ্তর সম্পাদক মো. হুমায়ুণ কবির জানান, আমাদের যৌক্তিক দাবি পূরণ না হওয়া পর্যন্ত এই রুটগুলোতে সরাসরি বাস চলাচল বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। আমাদের দাবি পূরণ না হওয়া পর্যন্ত আন্দোলন সংগ্রাম চলবে।

Leave a Reply

৯৭/৩/খ, উত্তর বিশিল, মিরপুর-১, ঢাকা-১২১৬
মোবাইলঃ ০১৭১২-৬৪৩৬৭৩, বার্তা বিভাগঃ ০১৭১২-৬৪৪৩৫০
ইমেইলঃ [email protected], [email protected]

সম্পাদক:
মোঃ সুলতান চিশতী

ব্যবস্থাপনা সম্পাদকঃ
মহসিন হাসান খান (বুলবুল)

নির্বাহী সম্পাদকঃ
মোঃ ইব্রাহিম হোসেন

সহকারী সম্পাদকঃ
মোঃ আতোয়ার হোসেন

আইন উপদেষ্টাঃ
শাহিন সরকার


.: Developed By :.
Great IT