২১শে সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং | ৬ই আশ্বিন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, শরৎকাল

মন্তব্য করলে মৃত্যুর ভয়!

প্রকাশিতঃ জুলাই ১৬, ২০১৮, ৬:৫৫ অপরাহ্ণ


ভারতে কেউ অন্য জাতের কারও সঙ্গে প্রেম করলে তাকে হত্যা করা হতে পারে। আমার কাছে মনে হয়, বিষয়টা সে রকমই। আমি জানি না, ভারতে সরকারের সমালোচনা কতটা করা যায়। সরকারের সমালোচনা করলেও হত্যা করা হবে!’ বললেন সাইফ আলী খান। ওয়েব সিরিজ ‘সেক্রেড গেমস’-এ অভিনয় করেছেন তিনি। ৬ জুলাই থেকে নেটফ্লিক্সে এই ওয়েব সিরিজের প্রচার শুরু হয়েছে। এরপর ‘সেক্রেড গেমস’ নিয়ে বিতর্ক এখন তুঙ্গে।

বিক্রম চন্দ্রের থ্রিলার উপন্যাস ‘সেক্রেড গেমস’ প্রকাশিত হয় ২০০৬ সালে। এই উপন্যাস অবলম্বনে তৈরি হয়েছে ওয়েব সিরিজটি। উপন্যাসের নামেই এই ওয়েব সিরিজের নাম ‘সেক্রেড গেমস’। পরিচালনা করেছেন অনুরাগ কাশ্যপ ও বিক্রমাদিত্য মোতওয়ানে। এখানে অভিনয় করেছেন সাইফ আলী খান, নওয়াজউদ্দিন সিদ্দিকি ও রাধিকা আপ্তে। একজন পুলিশ কর্মকর্তাকে ঘিরে তৈরি হয়েছে গল্প। মুম্বাইয়ে জঙ্গি হামলার হুমকি দেয় এক অপরাধী। এরপর একজন পুলিশ কর্মকর্তা কীভাবে সেই হামলা ঠেকানোর চেষ্টা করেন, তা নিয়ে ‘সেক্রেড গেমস’।
এই ওয়েব সিরিজের গল্পে কংগ্রেসের শাসন আমলে মুম্বাইয়ের অপরাধ জগৎকে দেখানো হয়েছে। পাশাপাশি রয়েছে ইন্দিরা গান্ধীর জরুরি অবস্থা জারি। রয়েছে বোফোর্স কেলেঙ্কারি আর ১৯৮৫ সালের আলোচিত শাহ বানু মামলা৷ এসব ঘটনায় সাবেক প্রধানমন্ত্রী রাজীব গান্ধী কীভাবে জড়িয়ে গিয়েছিলেন, রয়েছে তা৷ আরও আছে লালকৃষ্ণ আদভানির রথযাত্রা, বাবরি মসজিদ ধ্বংস, মুম্বাইয়ে বোমা বিস্ফোরণসহ বিভিন্ন ঘটনা।

‘সেক্রেড গেমস’-এ মুম্বাইয়ের ডন গণেশ গাইতোন্ডের চরিত্রে অভিনয় করেছেন নওয়াজউদ্দিন সিদ্দিকি। এই ওয়েব সিরিজের বিরুদ্ধে অভিযোগ, এখানে রাজীব গান্ধীকে নিয়ে গাইতোন্ড অশালীন মন্তব্য করেছে। ১৯৮৫ সালের আলোচিত শাহ বানু মামলা ও রাম মন্দিরের দরজা খোলার মতো সিদ্ধান্ত নেওয়ার জন্য রাজীব গান্ধীকে লক্ষ্যবস্তুতে পরিণত করেন গণেশ গাইতোন্ড।

নেটফ্লিক্সের ওয়েব সিরিজ ‘সেক্রেড গেমস’-এর প্রচার বন্ধ অথবা বিতর্কিত সংলাপ ও অংশ বাদ দেওয়ার দাবি হচ্ছে দিল্লি, কলকাতা, মুম্বাইসহ বিভিন্ন শহরে। এ ব্যাপারে সাইফ আলী খান বলেন, ‘এটা খুবই হতাশাজনক।’

সাইফ আলী খান ও কারিনা কাপুরের বিয়ের পর রাষ্ট্রীয় স্বয়ংসেবক সংঘ (আরএসএস) থেকে মন্তব্য করা হয়, ‘এটি লাভ জিহাদ।’ এরপর এই মন্তব্যের জবাবে সাইফ আলী খান লিখেছিলেন, ‘বিভিন্ন ধর্মাবলম্বীদের বিয়েই ভারত। তা লাভ জিহাদ নয়।’

আপ্তেএদিকে ওয়েব সিরিজ ‘সেক্রেড গেমস’ নিয়ে তৈরি বিতর্ক যখন তুঙ্গে, তখন এ ব্যাপারে মুখ খুললেন কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী। বিজেপি ও আরএসএসের বিরুদ্ধে অভিযোগ করে টুইটারে তিনি লিখেছেন, ‘আরএসএস ও বিজেপি বাক্‌স্বাধীনতা খর্ব করতে চায়। এটা দেশের মৌলিক অধিকার। আমার বাবা দেশের জন্য প্রাণ দিয়েছেন। একটা কাল্পনিক চরিত্রের মতামত তাঁর অবদান মুছে দিতে পারবে না।’

তাঁর মতে, এসব ইস্যু নিয়ে কংগ্রেসের বিরুদ্ধে বারবার প্রচার-প্রচারণা চালাচ্ছে বিজেপি। এরই মধ্যে বিজেপির আইটি সেলের প্রধান অমিত মালব্য এ-সংক্রান্ত কয়েকটি টুইট করেন। এরপরই পালটা টুইট করেছেন রাহুল।

রাহুল গান্ধীর এমন মতামতের প্রশংসা করে টুইট করেছেন বলিউড তারকা স্বরা ভাস্কর। তিনি লিখেছেন, ‘রাহুল গান্ধীর মতামত দেখে ভালো লাগছে। তিনি গণতান্ত্রিক অধিকারের বৃহত্তর লক্ষ্যে ব্যক্তিগত বিষয়টি দূরে সরিয়ে রেখেছেন। তিনি প্রশংসনীয় ও পরিণত মনোভাবের পরিচয় দিয়েছেন।’

আইনি জটিলতায় জড়িয়ে পড়েছে নেটফ্লিক্সের ওয়েব সিরিজ ‘সেক্রেড গেমস’৷ এখানে সাবেক প্রধানমন্ত্রী প্রয়াত রাজীব গান্ধীর সম্পর্কে অশ্লীল শব্দ ব্যবহার করা হয়েছে, তাঁকে অপমান করা হয়েছে—এমন অভিযোগ এনে দিল্লি হাইকোর্টে মামলা দায়ের করা হয়েছে৷ রাজীব গান্ধীকে অপমান করার অভিযোগে কলকাতায় গিরিশ পার্ক থানায় নওয়াজউদ্দিন সিদ্দিকির বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেছেন শশাঙ্ক গর্গ নামে একজন কংগ্রেস নেতা৷ ওয়েব সিরিজের প্রযোজক ও পরিচালকের বিরুদ্ধেও অভিযোগ করেছেন তিনি৷ তাঁর দাবি, নেটফ্লিক্সের এই ওয়েব সিরিজে বোফোর্স মামলা, শাহ বানু মামলা, বাবরি মসজিদের মতো ঐতিহাসিক ঘটনাগুলো বিকৃত করে দেখানো হয়েছে৷

Leave a Reply

৯৭/৩/খ, উত্তর বিশিল, মিরপুর-১, ঢাকা-১২১৬
মোবাইলঃ ০১৭১২-৬৪৩৬৭৩, বার্তা বিভাগঃ ০১৭১২-৬৪৪৩৫০
ইমেইলঃ [email protected], [email protected]

সম্পাদক:
মোঃ সুলতান চিশতী

ব্যবস্থাপনা সম্পাদকঃ
মহসিন হাসান খান (বুলবুল)

নির্বাহী সম্পাদকঃ
মোঃ ইব্রাহিম হোসেন

সহকারী সম্পাদকঃ
মোঃ আতোয়ার হোসেন

আইন উপদেষ্টাঃ
শাহিন সরকার


.: Developed By :.
Great IT