২৬শে সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং | ১১ই আশ্বিন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, শরৎকাল

প্রথম দিনে ইংল্যান্ড ও অস্ট্রেলিয়া সমানে সমান

প্রকাশিতঃ জানুয়ারি ৪, ২০১৮, ৭:১০ অপরাহ্ণ


সিডনিতে অ্যাশেজ সিরিজের পঞ্চম ও শেষ টেস্টের প্রথম দিন সমানতালে লড়াই করেছে স্বাগতিক অস্ট্রেলিয়া ও ইংল্যান্ড। টস জিতে প্রথমে ব্যাট হাতে নেমে অধিনায়ক জো রুট ও ডেভিড মালানের জোড়া হাফ-সেঞ্চুরিতে ৮১ দশমিক ৪ ওভারে ৫ উইকেটে ২৩৩ রান করে প্রথম দিন শেষ করেছে ইংলিশরা।

সিরিজের প্রথম তিন টেস্ট জিতে ইতোমধ্যে অ্যাশেজ পুনরুদ্ধার করেছে অস্ট্রেলিয়া। চতুর্থ টেস্ট ড্র হলে অস্ট্রেলিয়ার কাছে হোয়াইওয়াশের লজ্জা এড়ানোর পথ পেয়ে যায় ইংল্যান্ড। তাই জয় দিয়ে সিরিজ শেষ করার লক্ষ্য নিয়ে সিডনি টেস্টে টস জিতেই প্রথমে ব্যাট করার সিদ্বান্ত নেয় ইংল্যান্ড। শুরুটা সর্তকতার সাথেই করেছিলেন ইংলিশ ওপেনার ও সাবেক অধিনায়ক অ্যালিষ্টার কুক। তবে তার সঙ্গী মার্ক স্টোনম্যান ছিলেন মারমুখী। ওয়ানডে স্টাইলে ব্যাট করে ৪টি বাউন্ডারি তুলে নেন তিনি।

স্টোনম্যানের মারমুখী মেজাজ অবশ্য খুব বেশিক্ষণ স্থায়ী হয়নি। কারন ইংল্যান্ড ইনিংসের ১০ম ওভারে স্টোনম্যানকে থামিয়ে দেন অস্ট্রেলিয়ার ডান-হাতি পেসার প্যাট কামিন্স। কুকের সাথে জুটিতে ২৮ রান যোগ করে নিজের নামের পাশে ২৪ বলে ২৪ রান রেখে থামেন স্টোনম্যান।

এরপর কুকের সাথে জুটি বাঁেধন জেমস ভিন্স। অস্ট্রেলিয়ার বোলারদের বিপক্ষে প্রতিরোধ গড়ে তুলেন কুক ও ভিন্স। দু’জনের ব্যাট চড়ে রানের চাকা ঘুরছিলো ইংল্যান্ডের। তাই এই জুটিতেই শতরানের কোটা স্পর্শ করার স্বপ্ন দেখছিলো ইংলিশার। এমন সময় ইংল্যান্ড শিবিরে দ্বিতীয় আঘাত হানেন কামিন্স। ৫৪ বলে ২৫ রানে থাকা ভিন্সকে নিজের দ্বিতীয় শিকার বানান কামিন্স।

দলীয় ৮৮ রানে ভিন্সকে হারানোর ক্ষত ভুলার আগেই কুকের বিদায় দেখে ইংল্যান্ড। ভিন্সের বিদায়ের ৭ রান পরই থামেন আগের টেস্টের প্রথম ইনিংসে অপরাজিত ২৪৪ রান করা কুক। এবার ৩টি বাউন্ডারিতে ১০৪ বলে ৩৯ রান করেন কুক।

৯৫ রানে ৩ উইকেট হারানোর পর অধিনায়ক রুট ও চলতি সিরিজে তৃতীয় টেস্টের সেঞ্চুরিয়ান মালানের ব্যাট চড়ে ঘুড়ে দাড়ানোর চেষ্টা করে ইংল্যান্ড। এতে সফলতার মুখ দেখে ইংল্যান্ড। শক্ত হাতে দলের হাল ধরে বড় জুটিই গড়েন তারা। ১৩৩ রানের জুটি গড়তে গিয়ে টেস্ট ক্যারিয়ারের ৩৬তম ও এবারের সিরিজে চতুর্থ হাফ-সেঞ্চুরির দেখা পান রুট।

হাফ-সেঞ্চুরির পরও নিজের ইনিংসটা বড় করেছেন রুট। সেঞ্চুরির পথেই এগিয়ে যাচ্ছিলেন রুট। কিন্তু ৮৩ রানে রুটের ইনিংসের সমাপ্তি টানের অস্ট্রেলিয়ার বাঁ-হাতি পেসার মিচেল স্টার্ক। ৮টি চারে ১৪১ বলে ৮৩ রান করেন তিনি।

রুটের ফিরে যাবার উইকেটরক্ষক জনি বেয়াস্টোকে নিয়ে দিন শেষ করার ইচ্ছা ছিলো মালানের। কিন্তু সেটি হতে দেননি অসি পেসার জশ হ্যাজেলউড। ৫ রান করে হ্যাজেলের শিকার হন বেয়ারস্টো। এরপর আলো স্বল্পতার জন্য দিনের খেলা শেষ করে দেন আম্পায়াররা। ফলে টেস্ট ক্যারিয়ারের পঞ্চম হাফ-সেঞ্চুরি তুলে ৫৫ রানে অপরাজিত থাকেন মালান। তার ১৬০ বলের ইনিংসে ৫টি চার ছিলো। অস্ট্রেলিয়ার পক্ষে ২টি করে

সংক্ষিপ্ত স্কোর :

ইংল্যান্ড : ২৩৩/৫, ৮১.৪ ওভার (রুট ৮৩, মালান ৫৫*, কামিন্স ২/৪৪)।

Leave a Reply

৯৭/৩/খ, উত্তর বিশিল, মিরপুর-১, ঢাকা-১২১৬
মোবাইলঃ ০১৭১২-৬৪৩৬৭৩, বার্তা বিভাগঃ ০১৭১২-৬৪৪৩৫০
ইমেইলঃ [email protected], [email protected]

সম্পাদক:
মোঃ সুলতান চিশতী

ব্যবস্থাপনা সম্পাদকঃ
মহসিন হাসান খান (বুলবুল)

নির্বাহী সম্পাদকঃ
মোঃ ইব্রাহিম হোসেন

সহকারী সম্পাদকঃ
মোঃ আতোয়ার হোসেন

আইন উপদেষ্টাঃ
শাহিন সরকার


.: Developed By :.
Great IT