১৮ই নভেম্বর, ২০১৮ ইং | ৪ঠা অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, হেমন্তকাল

পেট দিয়ে ঢুকে পিঠ দিয়ে বেরুলো তিনটি রড

প্রকাশিতঃ আগস্ট ৯, ২০১৮, ১১:০৮ পূর্বাহ্ণ


নির্মাণাধীন বাড়ির দোতলা থেকে পড়ে গিয়েছিলেন এক শ্রমিক। পড়ার সময় পেটে তিনটি লোহার রড ঢুকে গুরুতর জখম হন। হাসপাতালে অস্ত্রোপচার করে তার পেট থেকে বের করা হয় ওই তিনটি রড। অস্ত্রোপচারের পর আপাতত স্থিতিশীল রয়েছেন তিনি। বুধবার দুপুরে ভারতের পশ্চিমবঙ্গের বারুইপুর থানার চম্পাহাটির চিনের মোড় এলাকায় ঘটনাটি ঘটে।

আনন্দবাজার পত্রিকার প্রতিবেদনে বলা হয়, দুপুর দুটটা নাগাদ একটি বাড়ির দোতলার ছাদে কাজ করছিলেন উদয় সর্দার নামে ওই ব্যক্তি। বাড়িটির ছাদের পাশ দিয়ে বিদ্যুতের তার চলে গেছে। কোনোভাবে তাতে হাত লেগে যায় উদয়ের। এরপরই বেসামাল হয়ে ছাদ থেকে নিচে পড়ে যান তিনি। নিচে লোহার রডের উপরে সিমেন্টের ঢালাই করে স্তম্ভ তৈরি হচ্ছিল। কাজ সমাপ্ত না হওয়ায় তখনও রড বেরিয়েছিল। সোজা সেই রডের উপরেই গিয়ে পড়েন উদয়। তিনটি রড উদয়ের পেটের বাঁ দিকে ঢুকে যায়।

এক প্রত্যক্ষদর্শী জানান, উদয়ের কয়েক জন সহযোগী তাকে ওই স্তম্ভ থেকে না তুলে লোহার রডগুলি করাত দিয়ে কেটে ফেলেন। তার পরে অটোয় করে উদয়কে বারুইপুর হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। গোটা সময়ে তিনটি রড উদয়ের পেটেই গেঁথে থাকে। বারুইপুর হাসপাতালের চিকিৎসকেরা উদয়ের প্রাথমিক চিকিৎসা করেন। সেখানে তাকে স্যালাইন দেয়া হয়। ওই রড বিদ্ধ জায়গায় ওষুধও দেয়া হয়।

কিন্তু ওই হাসপাতালের এক চিকিৎসক জানান, ওই তিনটি লোহার রডের টুকরো প্রায় ফুঁড়ে দিয়েছে ওই ব্যক্তির শরীর। রড বার করার জন্য কঠিন অস্ত্রোপচার করা প্রয়োজন। কিন্তু সেই ব্যবস্থা বারুইপুর হাসপাতালে নেই। পরে উদয়কে চিত্তরঞ্জন ন্যাশনাল মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয়।

চিকিৎসকেরা জানান, ঘটনার পরেও উদয়ের জ্ঞান ছিল। সমস্ত ঘটনা তিনি চিকিৎসকদের জানাতে পেরেছেন। হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে, অস্ত্রোপচার করে রডগুলো বের করা সম্ভব হয়েছে। বর্তমানে তার অবস্থা স্থিতিশীল।

Leave a Reply

৯৭/৩/খ, উত্তর বিশিল, মিরপুর-১, ঢাকা-১২১৬
মোবাইলঃ ০১৭১২-৬৪৩৬৭৩, বার্তা বিভাগঃ ০১৭১২-৬৪৪৩৫০, সার্কুলেশন বিভাগঃ০১৯১৬০৯৯০২০
ইমেইলঃ [email protected], [email protected]

সম্পাদক:
মোঃ সুলতান চিশতী

ব্যবস্থাপনা সম্পাদকঃ
মহসিন হাসান খান (বুলবুল)

নির্বাহী সম্পাদকঃ
মোঃ ইব্রাহিম হোসেন

সহকারী সম্পাদকঃ
মোঃ আতোয়ার হোসেন

আইন উপদেষ্টাঃ
শাহিন সরকার


.: Developed By :.
Great IT