২১শে সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং | ৬ই আশ্বিন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, শরৎকাল

দুই মাস ধরে নিখোঁজ ছিলেন নিহত মেজবা

প্রকাশিতঃ জানুয়ারি ১৫, ২০১৮, ১১:১৯ পূর্বাহ্ণ


রাজধানীর পশ্চিম নাখালপাড়ায় জঙ্গিবিরোধী অভিযানে নিহত তিন যুবকের মধ্যে একজনের পরিচয় পাওয়া গেছে। মেজবা উদ্দিন ওরফে জাহিদ নামের ওই যুবকের বাড়ি কুমিল্লার মনোহরগঞ্জে। তিনি ঢাকায় ব্যবসা করতেন। দুই মাস ধরে নিখোঁজ ছিলেন।

গত বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত দুইটা থেকে পশ্চিম নাখালপাড়ার রুবি ভিলার পঞ্চম তলার একটি কক্ষে ‘জঙ্গি আস্তানা’ সন্দেহে অভিযান চালায় র‍্যাব। শুক্রবার সকালে নিষিদ্ধঘোষিত জঙ্গি সংগঠন জেএমবির তিন সদস্য নিহত হয়েছেন বলে জানায় তারা। র‍্যাবের মহাপরিচালক বেনজীর আহমেদ সাংবাদিকদের জানান, একই ব্যক্তির ছবিযুক্ত দুটি জাতীয় পরিচয়পত্র পাওয়া গেছে। একটিতে তাঁর নাম জাহিদ অন্যটিতে সজীব লেখা রয়েছে।

গতকাল রোববার বেলা সোয়া ৩টায় র‍্যাবের গণমাধ্যম শাখা থেকে একটি খুদে বার্তায় মেজবা উদ্দিনের পরিচয়ের বিষয়ে গণমাধ্যমকে জানানো হয়। এরপর সন্ধ্যা ৬টা ২৫ মিনিটে আরেকটি খুদে বার্তা পাঠিয়ে জানানো হয়, মেজবা উদ্দিনের বাবা, মা, স্ত্রী ও ভাইকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য কুমিল্লা থেকে ঢাকায় আনা হচ্ছে।

র‍্যাব মেজবার বাড়ির পূর্ণাঙ্গ ঠিকানা গণমাধ্যমকে জানায়নি। তবে প্রথম আলোর অনুসন্ধানে জানা যায়, মেজবার বাড়ি কুমিল্লার মনোহরগঞ্জ উপজেলার হাসনাবাদ ইউনিয়নের ৪ নম্বর ওয়ার্ডের বাদুয়ারায়। তাঁদের বাড়িটি মৌলভীবাড়ি নামে এলাকায় পরিচিত।

প্রথম আলোর কুমিল্লা প্রতিনিধি জানিয়েছেন, র‍্যাব গতকাল সকালেই বাড়ি থেকে মেজবা উদ্দিনের পরিবারের সদস্যদের জিজ্ঞাসাবাদের জন্য নিয়ে এসেছে। হাসনাবাদ ইউনিয়নের চেয়ারম্যান কামাল হোসেন গতকাল রাতে প্রথম আলোকে জানিয়েছেন, মেজবা দুই মাস আগে নিখোঁজ হন।

৪ নম্বর ওয়ার্ডের সাধারণ সদস্য সাইফুল ইসলাম বলেন, গতকাল সকালে র‍্যাবের একটি দল মেজবার বাড়িতে আসে। এরপর তারা মেজবার বাবা এনামুল হক, মা তাহমিনা আক্তার, অটোরিকশাচালক ভাই ও মেজবার স্ত্রীকে লাশ শনাক্তকরণের জন্য ঢাকায় নিয়ে যায়।

মনোহরগঞ্জ থানার পরিদর্শক (তদন্ত) নজরুল ইসলাম প্রথম আলোকে বলেন, মেজবা গত ১৫ বছর ধরে ঢাকায় থাকত। সায়েদাবাদ এলাকায় গাড়ির পুরোনো টায়ার মেরামত করে বিক্রির ব্যবসা করত। তার একটা দোকানও ছিল। গত রমজানের পরে সে বিয়ে করেছে। তার স্ত্রী তিন মাসের গর্ভবতী। মেজবার বাবা বৃদ্ধ, তিনি বাড়িঘর দেখাশোনা করতেন।

মনোহরগঞ্জ থানায় কোনো নিখোঁজ ডায়েরি হয়েছিল কিনা এই প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, মেজবা মাঝেমধ্যে বাড়িতে আসত। সে ঢাকা থেকেই নিখোঁজ হয়। এরপর ঢাকাতেই সাধারণ ডায়েরি হয়েছে। তবে কোন থানায় জিডি করেছে তা তার স্বজনেরা বলতে পারেনি।

র‍্যাব-৩-এর অধিনায়ক এমরানুল হাসান প্রথম আলোকে বলেন, আঙুলের ছাপ দিয়ে জাতীয় তথ্যভান্ডার থেকে মেজবার পরিচয় পাওয়া গেছে। বাকি দুজনের পরিচয় এখনো মেলেনি।

Leave a Reply

৯৭/৩/খ, উত্তর বিশিল, মিরপুর-১, ঢাকা-১২১৬
মোবাইলঃ ০১৭১২-৬৪৩৬৭৩, বার্তা বিভাগঃ ০১৭১২-৬৪৪৩৫০
ইমেইলঃ [email protected], [email protected]

সম্পাদক:
মোঃ সুলতান চিশতী

ব্যবস্থাপনা সম্পাদকঃ
মহসিন হাসান খান (বুলবুল)

নির্বাহী সম্পাদকঃ
মোঃ ইব্রাহিম হোসেন

সহকারী সম্পাদকঃ
মোঃ আতোয়ার হোসেন

আইন উপদেষ্টাঃ
শাহিন সরকার


.: Developed By :.
Great IT