১৪ই নভেম্বর, ২০১৮ ইং | ৩০শে কার্তিক, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, হেমন্তকাল

তানোরে এডিপি প্রকল্প বাস্তবায়নে অনিয়ম

প্রকাশিতঃ আগস্ট ৬, ২০১৮, ৮:৩০ অপরাহ্ণ


আলিফ হুসেন (তানোর প্রতিনিধি) – রাজশাহীর তানোরে চলতি অর্থবছরে সাবমার্সিবুল পাম্প স্থাপন, গ্রামীণ অবকাঠামো রক্ষাণাবেক্ষন ও সংস্কারের জন্য স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তর ‘এলজিইডি’ বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসুচির (এডিপি) প্রকল্প গ্রহণে রাজনৈতিক বিবেচনায় স্বজনপ্রীতি ও বাস্তবায়নে অনিয়মের অভিযোগ উঠেছে। তানোরের ৭টি ইউনিয়নে (ইউপি) ১৩টি উন্নয়ন প্রকল্প বাস্তবায়নের জন্য প্রায় ৫০ লাখ টাকা বরাদ্দ করা হয়েছে। চলতি বছরের ১২ এপ্রিল বৃহ¯প্রতিবার উপজেলা স্থানীয় সরকার ও প্রকৌশল অধিদপ্তর (এলজিইডি) প্রায় ৫০ লাখ টাকা ব্যয়ে ১৩টি উন্নয়ন প্রকল্প বাস্তবায়নের জন্য দরপত্র আহবান করেছে। সংশ্লিষ্ট প্রকল্প এলাকার জনসাধারণের অভিযোগ, অধিক গুরুত্বপূর্ণ ও জনস্বার্থে ব্যবহার হয় এমন প্রকল্প গ্রহণ ও বাস্তবায়নে অগ্রাধিকারের কথা বলা আছে। অথচ অধিকাংশক্ষেত্রে তেমন কোনো সাম্ভব্যতা যাচাই না করে রাজনৈতিক বিবেচনায় স্বজনপ্রীতির মাধ্যমে প্রকল্প গ্রহণ এবং বছর না ঘুরতেই বাস্তবায়িত অধিকাংশ প্রকল্প অস্থিত্বহীন হয়ে পড়েছে বলেও এলাকায় জনমনে ব্যাপক গুঞ্জন বইছে।
স্থানীয়দের অভিযোগ, তানোর উপজেলা স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তর (এলজিইডি) চলতি বছরের ১২ এপ্রিল বৃহ¯প্রতিবার এডিপি প্রকল্পের ১৩টি গ্র“পের দরপত্র বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে ও ২৫ এপ্রিল বুধবার দরপত্র গ্রহণের শেষ দিন এবং ২৬ এপ্রিল বৃহ¯প্রতিবার দরপত্র খোলার কথা বলা হয়। এদিকে ২৬ এপ্রিল দরপত্র খোলার পর যাচাই-বাছাই ও লট্রারি সম্পন্ন করতে আরা কিছু সময় ব্যয় যায়। এর পরেও কার্যাদেশ প্রাপ্তির ৩০ দিনের মধ্যে কাজ সম্পন্ন করার কথা বলা হঢ। সচেতন মহলের অভিমত, তাহলে এতো অল্প সময়ের (৩০ জুন) মধ্যে কি আদৌ সুষ্ঠুভাবে কাজ সম্পন্ন করা সম্ভব তাই জুন (৩০ জুন) ক্লোজিংয়ের নামে যেনতেন ভাবে কাজ করে ঠিকাদারগণ প্রকল্পের বরাদ্দকৃত অর্থ উত্তোলন করে নিয়েছে। সংশ্লিষ্ট এলাকার জনসাধারণের দাবি সরেজমিন এডিপির বাস্তবায়িত প্রকল্পগুলো অসনুসন্ধান করা হলেই এসব অনিয়ম-দূর্নীতির অবিযোগের সত্যতা পাওয়া যাবে তাই তারা সরেজমিন পরিদর্শনের দাবি তুলেছে। সংশ্লিষ্ট প্রকল্প ও ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানের নাম, বরাদ্দের পরিমাণ এবং কাজের অগ্রগতি ইত্যাদি বিষয়ে জানতে চাইলে উপজেলা এলজিইডি প্রকৌশলী আব্দুল্লাহ আল-মামুন এসব বিষয়ে সুনিদ্রিষ্ট কোনো তথ্য জানাতে অপপারগতা প্রকাশ করেছেন।
স্থানীয়দের অভিযোগ, এডিপি প্রকল্পের প্রয়োজনীয়তা নিয়ে প্রশ্ন তোলার কোনো সুযোগ নাই, কিšত্ত বাস্তবায়ন নিয়ে অনিয়ম-দূর্নীতির বিস্তর অভিযোগ রয়েছে। অধিকাংশ প্রকল্প গ্রহণে রাজনৈতিক বিবেচনায় স্বজনপ্রীতির আশ্রয় নেয়া হয়েছে, এছাড়াও এডিপি প্রকল্পের বাস্তবায়ন নিয়ে সাধারণের মধ্যে সাসা সন্দেহ-সংশয় সৃষ্টি হয়েছে। কারণ প্রতি বছর লাখ লাখ টাকা ব্যয়ে এডিপি প্রকল্পের বাস্তবায়ন দেখানো হলেও বছর না ঘুরতেই অধিকাংশ প্রকল্পের তেমন কোনো দৃশ্যমান অস্থিত্ব খুঁজে পাওয়া যায় না। সচেতন মহল ও প্রকল্প সংশ্লিষ্ট এলকাবাসির অভিমত. চলতি বছরেও এর কোনো ব্যতিক্রম হয়নি। এব্যাপারে তানোর উপজেলা এলজিইডি প্রকৌশলী আব্দুল্লাহ আল-মামুন সব অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, যথযথ নিয়মানুসারে প্রকল্প গ্রহণ, দরপত্র আহবান ও বাস্তবায়ন করা হয়েছে, তবে কারো বিরুদ্ধে সুনিদ্রিষ্ট অভিযোগ পেলে গুরুত্বসহকারে খতিয়ে দেখা হবে বলে তিনি জানান।

Leave a Reply

এই বিভাগের আরো খবর

৯৭/৩/খ, উত্তর বিশিল, মিরপুর-১, ঢাকা-১২১৬
মোবাইলঃ ০১৭১২-৬৪৩৬৭৩, বার্তা বিভাগঃ ০১৭১২-৬৪৪৩৫০, সার্কুলেশন বিভাগঃ০১৯১৬০৯৯০২০
ইমেইলঃ [email protected], [email protected]

সম্পাদক:
মোঃ সুলতান চিশতী

ব্যবস্থাপনা সম্পাদকঃ
মহসিন হাসান খান (বুলবুল)

নির্বাহী সম্পাদকঃ
মোঃ ইব্রাহিম হোসেন

সহকারী সম্পাদকঃ
মোঃ আতোয়ার হোসেন

আইন উপদেষ্টাঃ
শাহিন সরকার


.: Developed By :.
Great IT