২৫শে সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং | ১০ই আশ্বিন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, শরৎকাল

ঢাকায় বৃক্ষমেলায় নানা গাছের সমাহার

প্রকাশিতঃ আগস্ট ৩, ২০১৮, ১১:৪৯ পূর্বাহ্ণ


রাজধানী ঢাকার শেরেবাংলা নগরে চলছে বৃক্ষমেলা। ‘সবুজে বাঁচি, সবুজ বাঁচাই, নগর-প্রাণ-প্রকৃতি সাজাই’ প্রতিপাদ্য সামনে রেখে এবারের মেলার আয়োজন। মেলার মোট স্টল সংখ্যা ১০১, চলবে ১৮ আগস্ট পর্যন্ত।

এবারের মেলার অন্যতম আকর্ষণ পতঙ্গভুক উদ্ভিদ। এ উদ্ভিদ ঘিরে যেমন দর্শনার্থীদের ভিড়, তেমনি মেলায় আসা পথশিশুরাও এসব গাছ পরখ করে দেখছে। ব্র্যাক নার্সারির বিক্রেতা আবু তাহের জানান, এই উদ্ভিদগুলো বাড়ির পোকামাকড় নিয়ন্ত্রণে কাজ করে। দেখতে ব্যতিক্রম বলে অনেকেই এই উদ্ভিদের প্রতি আগ্রহী হচ্ছে।

বৃক্ষমেলায় ক্রেতারা আসছেন দেশি-বিদেশি ফুলের নানান জাত খুঁজে নিতে। বাসাব থেকে আসা সামিয়া জানান, তিনি হরেক রকমের রঙ্গন ফুলের চারা খুঁজছেন। তিন রঙের রঙ্গন ছাড়াও তিনি কিনেছেন অঞ্জলিকা ও কাঠগোলাপের চারা।

সাত বছরের ছোট্ট হাবিব এসেছে মেলায়। সে জানায়, দুটি গাছ কিনেছে। এখন তার মোট গাছ ছয়টা।

মেলায় বিদেশি ফুলের গাছ বেশি কিনছেন ক্রেতারা। ফুল ছাড়াও ফলের গাছ আছে। ক্রেতারা জানান, বিভিন্ন স্টলে রয়েছে আম, জাম্বুরা, পেয়ারা, লেবু ও আতার গাছ।

ফুল ও ফলের সঙ্গে ঘর সাজানোর গাছও কিনছেন ক্রেতারা। কয়েকজন ক্রেতা বলেন, বনসাই, পাতাবাহার, ছোট ছোট ক্যাকটাসের গাছ কেনা-বেচাও হচ্ছে। বীজ, মাটি, টবও পাওয়া যায় বৃক্ষমেলায়।

রাজধানীর বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র রিপন বলেন, তিনি মেলায় বিভিন্ন স্টল ঘুরে ঝুড়িভর্তি বিভিন্ন জাতের চারা কিনেছেন। তিনি বলেন, বৃক্ষমেলা শুরু হয়েছে জেনেই তাঁর বাবা সকালে একটা লিস্ট ধরিয়ে দিয়েছেন গাছ কেনার জন্য। এগুলো তাঁদের গাজীপুরের বাড়িতে লাগানো হবে। তবে দামটা একটু বেশি বলে জানালেন তিনি।

মেলায় গাছ বিক্রি করছে ময়মনসিংহ থেকে আসা ঝুমা নার্সারি। সেখানকার স্বত্বাধিকারী মাইদুল জানান, ময়মনসিংহ থেকে গাছ নিয়ে আসতে রাস্তায় খরচ অনেক বেশি। তাই দাম বাড়ছে। এখানে থাকতে ও খেতেও খরচ বেশি। এসব কারণেই দামটা একটু অতিরিক্ত।

গ্রিন বাংলা স্টলের বিক্রেতা আবদুল হায়াত জানান, ছাদে বা বারান্দায় যাঁরা বাগান করছেন তাঁরাই গাছ বেশি কিনছেন।

দীপ্ত অর্কেড লিমিটেড স্টলের বিক্রেতা মো. খলিল বলেন, তাঁর দোকানে বিভিন্ন প্রজাতির অর্কিড রয়েছে। একেকটি অর্কিডের চারার দাম ২৫০ থেকে ৪০০ টাকা। বড় অর্কিডের দাম ৪০০ থেকে ১২০০ টাকা। শুক্র ও শনিবার বিক্রি বেশি হয়।

Leave a Reply

৯৭/৩/খ, উত্তর বিশিল, মিরপুর-১, ঢাকা-১২১৬
মোবাইলঃ ০১৭১২-৬৪৩৬৭৩, বার্তা বিভাগঃ ০১৭১২-৬৪৪৩৫০
ইমেইলঃ [email protected], [email protected]

সম্পাদক:
মোঃ সুলতান চিশতী

ব্যবস্থাপনা সম্পাদকঃ
মহসিন হাসান খান (বুলবুল)

নির্বাহী সম্পাদকঃ
মোঃ ইব্রাহিম হোসেন

সহকারী সম্পাদকঃ
মোঃ আতোয়ার হোসেন

আইন উপদেষ্টাঃ
শাহিন সরকার


.: Developed By :.
Great IT