১২ই ডিসেম্বর, ২০১৮ ইং | ২৮শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, হেমন্তকাল

ট্রাফিক সপ্তাহ : চট্টগ্রামে ১০ দিনে সাড়ে ১১ হাজার মামলা

প্রকাশিতঃ আগস্ট ১৬, ২০১৮, ১১:৪৪ পূর্বাহ্ণ


সম্প্রতি পালিত হওয়া ট্রাফিক সপ্তাহে চট্টগ্রাম মহানগরীতে বিভিন্ন অনিয়মের অভিযোগে দশ দিনে ১১ হাজার ৭১২ মামলা দেয়া হয়েছে। আটক করা হয়েছে বিভিন্ন ধরনের ৯৪৫টি যানবাহন। এছাড়া যানবাহনের মালিক ও চালকের বিরুদ্ধে ৩৫ লাখ ৩৩ হাজার ১০০ টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

চট্টগ্রাম নগরের ট্রাফিক বিভাগের উত্তর ও বন্দর জোনের অধীনে গত ৫ থেকে ১৪ অাগাস্ট পর্যন্ত এসব মামলা ও যানবাহন আটক করা হয়। চলমান ট্রাফিক সপ্তাহে সবচেয়ে বেশি মামলা করা হয়েছে মোটর সাইকেল ও সিএনজিচালিত অটোরিকশার বিরুদ্ধে।

নিরাপদ সড়কের দাবিতে সারা দেশে শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের মুখে গত ৫ অাগাস্ট থেকে সারা দেশে ট্রাফিক সপ্তাহ পালানের ঘোষণা দেয় পুলিশ। গত শনিবার ট্রাফিক সপ্তাহ শেষ হওয়ার কথা থাকলেও তা আরও তিনদিন বাড়িয়ে মঙ্গলবার (১৪ আগস্ট) শেষ হয়।

ট্রাফিক সপ্তাহের বিভিন্ন দিক সম্পর্কে জানাতে গিয়ে নগর পুলিশের অতিরিক্ত কমিশনার (ট্রাফিক) কুসুম দেওয়ান বলেন, ‘গত ৫ আগস্ট শুরু হওয়া ট্রাফিক সপ্তাহে বিভিন্ন অনিয়মের অভিযোগে প্রতিদিন গড়ে এক হাজারের বেশি মামলা হয়েছে বিভিন্ন যানবাহনের বিরুদ্ধে। ট্রাফিক সপ্তাহের কারণে আমরা অনেক ইতিবাচক ফলাফল পেতে শুরু করেছি। ট্রাফিক আইন কঠোরভাবে প্রয়োগ করা হচ্ছে। এ অভিযান চলমান রাখা দরকার। তবেই নগরীর পরিবহন সেক্টর ধীরে ধীরে শৃঙ্খলার মধ্যে ফিরে আসবে।’

সিএমপির ট্রাফিক (উত্তর) বিভাগের প্রসিকিউশন ইনচার্জ আনোয়ারুল হক বলেন, গত দশদিন ধরে চলা ট্রাফিক সপ্তাহে ট্রাফিক আইন অমান্য করায় প্রতিদিনই হাজারের উপরে মামলা হয়েছে। সবচেয়ে বেশি মামলা হয়েছে লাইসেন্স সংক্রান্ত। এর মানে সড়কে যারা গাড়ি চালান তাদের মধ্যে অনেকেই গাড়ির লাইসেন্স নেই কিংবা সঙ্গে রাখেন না।’

তিনি আরও বলেন, ‘যাদের বেশি সমস্যা পাওয়া যাচ্ছে, আইন মেনে তাদের ডাম্পিংয়ে পাঠানো হয়েছে। এ ছাড়া গাড়ির ফিটনেস না থাকা, ট্রাফিক আইন অমান্য করা, উল্টো পথে গাড়ি চালানো, হাইড্রোলিক হর্ন ব্যবহার করা ও গাড়ি চালানোর সময় মোবাইল ফোন ব্যবহার করার দায়ে মামলা দেয়া হয়।’

সিএমপির ট্রাফিক নিয়ন্ত্রণ কক্ষে কর্তব্যরত ট্রাফিক পুলিশের সদস্য ওমর ফারুক বলেন, ‘ট্রাফিক সপ্তাহ চলাকালে অন্য সময়ের চাইতে বেশি মামলা হয়েছে। এর আগে সাধারণত প্রতিদিন দুই বিভাগ (উত্তর ও বন্দর জোন) মিলে সর্বোচ্চ ৩০০ মামলা হতো।’

Leave a Reply

৯৭/৩/খ, উত্তর বিশিল, মিরপুর-১, ঢাকা-১২১৬
মোবাইলঃ ০১৭১২-৬৪৩৬৭৩, বার্তা বিভাগঃ ০১৭১২-৬৪৪৩৫০, সার্কুলেশন বিভাগঃ০১৯১৬০৯৯০২০
ইমেইলঃ [email protected], [email protected]

সম্পাদক:
মোঃ সুলতান চিশতী

ব্যবস্থাপনা সম্পাদকঃ
মহসিন হাসান খান (বুলবুল)

নির্বাহী সম্পাদকঃ
মোঃ ইব্রাহিম হোসেন

সহকারী সম্পাদকঃ
মোঃ আতোয়ার হোসেন

আইন উপদেষ্টাঃ
শাহিন সরকার


.: Developed By :.
Great IT