২০শে সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং | ৫ই আশ্বিন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, শরৎকাল

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রলীগের দুই পক্ষের সংঘর্ষে আহত ৮

প্রকাশিতঃ জুলাই ৩১, ২০১৮, ৯:৫৯ পূর্বাহ্ণ


কথা-কাটাকাটির জের ধরে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে (চবি) ছাত্রলীগের দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এতে উভয় পক্ষের আট কর্মী আহত হয়েছেন। সোমবার বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে এই ঘটনা ঘটে।

ক্যাম্পাস সূত্রে জানা যায়, বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সিএফসি ও বিজয়ের পক্ষের মধ্যে এই সংঘর্ষ হয়। দুই পক্ষই কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মহিবুল হাসান চৌধুরীর অনুসারী। সংঘর্ষে আহত কর্মীদের চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল (চমেক) ও বিশ্ববিদ্যালয় চিকিৎসাকেন্দ্রে ভর্তি করা হয়েছে।

ছাত্রলীগের দুই পক্ষের সংঘর্ষে জড়িত ছাত্রদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানান বিশ্ববিদ্যালয়ের সহকারী প্রক্টর নিয়াজ মোরশেদ। সংঘর্ষে বিজয় পক্ষের চার কর্মী আহত হন। তাঁরা হলেন লোকপ্রশাসন বিভাগের তৃতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী আজিজুল হক, আরবি বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী জুবায়ের আহমেদ, রাজনীতিবিজ্ঞান বিভাগের স্নাতকোত্তর শ্রেণির শিক্ষার্থী সাইমুন ইসলাম ও ইতিহাস বিভাগের প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থী ইমাম আহমেদ। তাঁরা ক্যাম্পাসে সাবেক যুগ্ম সম্পাদক আবু সাঈদের অনুসারী।

সংঘর্ষে আহত সিএফসি পক্ষের কর্মীরা হলেন ইতিহাস বিভাগের প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থী আপন ইসলাম, মৃত্তিকাবিজ্ঞান বিভাগের তৃতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী শাহদাব হোসেন, ফিজিক্যাল এডুকেশন অ্যান্ড স্পোর্টস সায়েন্স বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী রিংকু দাশ ও আইন বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী সাইমুন হক। সিএফসি পক্ষের কর্মীরা সাবেক সহসভাপতি রেজাউল হকের অনুসারী হিসেবে পরিচিত।

প্রত্যক্ষদর্শী ব্যক্তিরা জানান, পূর্বশত্রুতা ও কথা-কাটাকাটির জের ধরে সোমবার বেলা একটার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের চাকসুর সামনে সিএফসি পক্ষের কর্মী রিংকু দাশকে বিজয় গ্রুপের কর্মীরা মারধর করেন। পরে বেলা দেড়টায় এফ রহমান হলে বিজয় পক্ষের কর্মীদের ওপর হামলা করে সিএফসি পক্ষের কর্মীরা। তাঁরা হলের তিনটি কক্ষ ভাঙচুর করেন। দুই পক্ষের সংঘর্ষ শাহ আমানত হলেও ছড়িয়ে পড়ে। পরে প্রক্টরিয়াল বডির সদস্য ও পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

সংঘর্ষের বিষয়ে জানতে চাইলে সাবেক যুগ্ম সম্পাদক আবু সাঈদ বলেন, জুনিয়র কর্মীদের মধ্যে কথা-কাটাকাটির জেরে এ ঘটনা ঘটেছে। বিষয়টি সমাধান করা হচ্ছে।

বিলুপ্ত কমিটির সহসভাপতি ও সিএফসি পক্ষের নেতা রেজাউল হক বলেন, ক্যাম্পাস অস্থিতিশীল করতে একটি পক্ষ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটাচ্ছে। তাঁদের বিরুদ্ধে সিএফসির কর্মীরা সব সময় সোচ্চার আছে।

বিশ্ববিদ্যালয় চিকিৎসাকেন্দ্রের প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা মোহাম্মদ আবু তৈয়ব বলেন, আহত কর্মীদের মধ্যে তিনজনকে চমেক হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

Leave a Reply

৯৭/৩/খ, উত্তর বিশিল, মিরপুর-১, ঢাকা-১২১৬
মোবাইলঃ ০১৭১২-৬৪৩৬৭৩, বার্তা বিভাগঃ ০১৭১২-৬৪৪৩৫০
ইমেইলঃ [email protected], [email protected]

সম্পাদক:
মোঃ সুলতান চিশতী

ব্যবস্থাপনা সম্পাদকঃ
মহসিন হাসান খান (বুলবুল)

নির্বাহী সম্পাদকঃ
মোঃ ইব্রাহিম হোসেন

সহকারী সম্পাদকঃ
মোঃ আতোয়ার হোসেন

আইন উপদেষ্টাঃ
শাহিন সরকার


.: Developed By :.
Great IT