২৫শে সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং | ১০ই আশ্বিন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, শরৎকাল

‘গুপ্তধন’ উদ্ধার

প্রকাশিতঃ জুলাই ২৩, ২০১৮, ১০:২১ পূর্বাহ্ণ


ক্লাবের পরিত্যক্ত লকারগুলো নিয়ে দীর্ঘদিন বিব্রত ছিলেন ক্লাব কর্তৃপক্ষ। বারবার নোটিশ দেওয়া হলেও কোনো সদস্যই লকারের খোঁজে আসেননি। উপায় না দেখে ভেঙে ফেলা হয় লকার। কিন্তু ভেঙে ফেলার পর হতভম্ব হয়ে পড়তে হয়। কারণ লকারগুলো ভেঙে পাওয়া গেছে ৫০০ কোটি রুপি। এর মধ্যে আছে জমির দলিল, রোলেক্স ঘড়ি, সোনা, হীরা, ভারতীয় ও বিদেশি মুদ্রা।

এনডিটিভি ও টাইমস অব ইন্ডিয়ার খবরে বলা হয়েছে, ভারতের কর্ণাটক রাজ্যের রাজধানীর বেঙ্গালুরুর একটি অভিজাত এলাকা সেন্ট মার্কস রোড। এ রোডের একটি ব্যাডমিন্টন ক্লাবের প্রায় ১০০০ হাজার জন সদস্য রয়েছেন। ওই ক্লাবের কিছু পরিত্যক্ত কক্ষে বেশ কিছু লকার রয়েছে। লকারগুলো কার, এটা জানতে সদস্যদের চিঠি দিয়েছে ক্লাব কর্তৃপক্ষ। চিঠির উত্তর না পেয়ে গত শুক্রবার আয়কর বিভাগের লোকজন প্রায় ১৫০ বছর পুরোনো ওই ভবনের কয়েকটি লকার ভেঙে ফেলেন। ভেঙে ফেলার পর তিনটি লকার থেকে নগদ অর্থ, হীরা ও সোনা উদ্ধার করা হয়। লকারগুলোতে নগদ ১৪ কোটি রুপি, ৭ কোটি ৮০ লাখ রুপি মূল্যর হীরা এবং ৬৫০ গ্রাম সোনা পাওয়া গেছে। একটি রোলেক্স ঘড়ি ও অন্য আর একটি ঘড়ির আর্থিক মূল্য ৩৫ থেকে ৪০ লাখ রুপি।

লকারের ছয়টি ব্যাগে এসব পাওয়া যায়। ৬৯, ৭১ ও ৭৮ নম্বরের লকারের মধ্যে এসব সম্পদ পাওয়া যায়। পরে অবশ্য স্থানীয় রিয়েল এস্টেট ব্যবসায়ী অবিনাশ অমরলাল কুকরেজা সম্পদের মালিকানা দাবি করেন। তবে তার দাবি এখনো বিশ্বাস করেনি স্থানীয় আয়কর বিভাগ। তারা সব সম্পদ বাজেয়াপ্ত করেছে।

Leave a Reply

৯৭/৩/খ, উত্তর বিশিল, মিরপুর-১, ঢাকা-১২১৬
মোবাইলঃ ০১৭১২-৬৪৩৬৭৩, বার্তা বিভাগঃ ০১৭১২-৬৪৪৩৫০
ইমেইলঃ [email protected], [email protected]

সম্পাদক:
মোঃ সুলতান চিশতী

ব্যবস্থাপনা সম্পাদকঃ
মহসিন হাসান খান (বুলবুল)

নির্বাহী সম্পাদকঃ
মোঃ ইব্রাহিম হোসেন

সহকারী সম্পাদকঃ
মোঃ আতোয়ার হোসেন

আইন উপদেষ্টাঃ
শাহিন সরকার


.: Developed By :.
Great IT