২৩শে সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং | ৮ই আশ্বিন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, শরৎকাল

ক্রোয়েশিয়ান ফুটবলারের বিশ্বকাপ পদক নিতে অস্বীকার!

প্রকাশিতঃ জুলাই ২১, ২০১৮, ৪:৪৬ অপরাহ্ণ


রাশিয়া বিশ্বকাপে সবচেয়ে বড় চমকটি হলো ক্রোয়েশিয়ার রানার্সআপ হওয়া। ২৩ জনের স্কোয়াড নিয়ে বিশ্বকাপে এসেছিল দলটি। কিন্তু শেষ পর্যন্ত স্কোয়াড দাঁড়ায় ২২ জনের। ক্রোয়েশিয়ার ফরোয়ার্ড নিকোলা কালিনিচকে একটাও ম্যাচে না খেলিয়ে বাড়ি পাঠিয়ে দিয়েছিলেন কোচ লাটকে দালিচ।

প্রথম ম্যাচের পরই দেশে ফিরেছিলেন কালিনিচ। বিশ্বকাপে এক মিনিটের জন্যও দেশের হয়ে খেলা হয়নি তার। আর সে জন্যই বিশ্বকাপের রানার্সআপ হওয়ার জন্য ক্রোয়েশিয়ার ফুটবলারদের যে পদক দেওয়া হয়েছে তা নিতে অস্বীকার করেছেন তিনি। দেশ বিশ্বকাপ ফাইনাল খেলেছে। কিন্তু ক্রোয়েশিয়ার এই সাফল্যে তার কোনো অবদান নেই বলে মনে করেন কালিনিচ।

নাইজেরিয়ার বিপক্ষে প্রথম ম্যাচে তাকে বদলি হিসাবে নামাতে চেয়েছিলেন কোচ দালিচ। কিন্তু কালিনি চ চেয়েছিলেন মূল একাদশে থাকতে। তারপরই তাকে দল থেকে ছেঁটে ফেলেন ক্রোয়েশিয়ার কোচ। মিলানের হয়ে ক্লাব স্তরে খেলা কালিনিচ বিশ্বকাপ শুরুর আগে ওয়ার্ম আপ ম্যাচেও ব্রাজিলের বিপক্ষে খেলতে পারেননি। পিঠে ব্যাথার জন্য তাকে বেঞ্চে বসতে হয়েছিল।

দালিচ পরে বলেছিলেন, তিনি শতভাগ ফিট ফুটবলারদের নিয়ে বিশ্বকাপ যুদ্ধে নামতে চান।

ফ্রান্সের কাছে বিশ্বকাপ ফাইনালে হারের পর রূপোর পদক পেয়েছেন ক্রোয়েশিয়ান ফুটবলাররা। দলের অন্য ফুটবলার ও সাপোর্ট স্টাফরা কালিনিচকে পদক প্রাপকদের তালিকায় রেখেছিলেন। কিন্তু তিনি তা নিতে অস্বীকার করেন। কালিনিচের বদলে দলের একমাত্র স্ট্রাইকার মারিও মানজুকিচের উপর ভরসা রেখেছিলেন কোচ দালিচ। ৬ ম্যাচে ৩ গোল করে কোচের ভরসার মান রেখেছিলেন মানজুকিচ।

Leave a Reply

৯৭/৩/খ, উত্তর বিশিল, মিরপুর-১, ঢাকা-১২১৬
মোবাইলঃ ০১৭১২-৬৪৩৬৭৩, বার্তা বিভাগঃ ০১৭১২-৬৪৪৩৫০
ইমেইলঃ [email protected], [email protected]

সম্পাদক:
মোঃ সুলতান চিশতী

ব্যবস্থাপনা সম্পাদকঃ
মহসিন হাসান খান (বুলবুল)

নির্বাহী সম্পাদকঃ
মোঃ ইব্রাহিম হোসেন

সহকারী সম্পাদকঃ
মোঃ আতোয়ার হোসেন

আইন উপদেষ্টাঃ
শাহিন সরকার


.: Developed By :.
Great IT