২৬শে সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং | ১১ই আশ্বিন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, শরৎকাল

এখনই শাস্তি হচ্ছে না নাসির-মোসাদ্দেকের, পার পাবেন না সাব্বির

প্রকাশিতঃ আগস্ট ৩১, ২০১৮, ৫:১৮ অপরাহ্ণ


তার সামনে আবার শাস্তির খড়গ ঝুলছে। হয়তো আগামীকাল (শনিবার) দুপুর গড়াতেই নতুন করে নিষেধাজ্ঞার কবলে পড়তে যাচ্ছেন সাব্বির রহমান রুম্মন। একটু কি গোলমেলে ঠেকছে? ডাকা হল সাব্বির, নাসির ও মোসাদ্দেককে- কিন্তু শাস্তির খড়গের কথা বলা হলো শুধুমাত্র সাব্বিরের উপর।

মেলাতে নিশ্চয় কষ্ট হচ্ছে। তা কষ্ট হবারই কথা। সাব্বির, নাসির ও মোসাদ্দেককে আগামীকাল বিসিবিতে স্বশরীরে উপস্থিত থাকতে বলা হয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে সাম্প্রতিক যে শৃঙ্খলাবিরোধী কার্যক্রমে জড়িত থাকার অভিযোগ উঠেছে তারই প্রেক্ষিতে বিসিবিতে তলব করা হয়েছে এই তিন ক্রিকেটারকে।

বিসিবির ডিসিপ্লিনার কমিটির চেয়ারম্যান শেখ সোহেল এবং বোর্ডের অন্যতম শীর্ষ পরিচালক জালাল ইউনুসসহ ডিসিপ্লিনারি কমিটির মুখোমুখি হতে হবে ওই তিন ক্রিকেটারকে। তবে খোঁজ নিয়ে জানা গেছে সাব্বির ছাড়া বাকি দুজনের আপাতত কোন শাস্তির সম্ভাবনা নেই।

ডিসিপ্লিনারি কমিটির অন্যতম সদস্য জালাল ইউনুস জাগোনিউজকে জানান, ‘নাসির এখন তার অপারেশনের পর ঘরে বিশ্রামে। আর মোসাদ্দেকের বিপক্ষে তার স্ত্রীর করা নারী নির্যাতনের মামলাটি আদালতে। এখন আদালতে গড়ানো কোন ইস্যু নিয়ে কথা বলার অবকাশ নেই। আদালতই সিদ্ধান্ত দেবেন মোসাদ্দেক দোষী না নির্দোষ। আইনের চোখে দোষী সাব্যস্ত হলে মোসাদ্দেককে অবশ্যই শাস্তি দেবে বিসিবি। তবে সেটা এখন নয়। তার বিষয়ে আদালত কি সিদ্ধান্ত দেন তার উপরে নির্ভর করবে আমাদের (বোর্ডের) সিদ্ধান্ত।’

‘আর নাসিরের ব্যাপারে কথা হল যেহেতু সে আপাতত খেলার অবস্থায় নেই তাই তাকে সাময়িকভাবে বহিষ্কার করাটাও অযৌক্তিক। বাকি থাকলো সাব্বির। তাকে এর আগে ঘরোয়া ক্রিকেটে নিষিদ্ধ করা হয়েছিল পাশাপাশি অর্থ দণ্ডেও দন্ডিত হয়েছিল। কিন্তু তারপরেও আচরণে বড় কোন পরিবর্তন আসেনি। আবারও তার বিরুদ্ধে বলগাহীন ও শৃঙ্খলাবিরোধী আচরণের অভিযোগ। তাই আমরা তাকে একটা নির্দিষ্ট সময়ের জন্য ক্রিকেটের বাইরে রাখার চিন্তাভাবনা করছি।’

তার মানে অনিবার্য সাসপেনশনের মুখে সাব্বির। তবে এবার আর শুধু ঘরোয়া ক্রিকেট থেকে নয় আন্তর্জাতিক ক্রিকেটেও হয়তো নির্দিষ্ট সময়ের জন্য নিষিদ্ধ হতে যাচ্ছেন এই ড্যাশিং ব্যাটসম্যান। তার প্রমাণ তাকে ছাড়াই সাজানো হয়েছে এশিয়া কাপের দল। তবে জালাল ইউনুস নিশ্চিত করে বলতে পারেননি বা বলতে চাননি আসলে কতদিনের জন্য নিষিদ্ধ হবেন সাব্বির? এ বিষয়ে তার ব্যাখ্যা, ‘সেটা ডিসিপ্লিনারি কমিটির সবাই মিলেই ঠিক করবেন।’

এদিকে গুঞ্জন আছে ছয় মাসের জন্য ক্রিকেট থেকে নিষিদ্ধ হতে পারেন সাব্বির। সে ব্যাপারে জিজ্ঞেস করা হলে জালালের জবাব, ‘সেটা ৩ মাস, ৬ মাস কিংবা এক বছরের কথা হচ্ছে। তাই আমার একার পক্ষে বলা সম্ভব নয় তাকে কতদিনের জন্য নিষিদ্ধ করা হবে।’

জালাল বিস্তারিত কিছু না জানালেও বোর্ডের ভেতরের খবর সাব্বিরকে বিশ্বকাপ স্কোয়াডে রাখার কথা ভেবেই হয়তো ছয় মাসের নিষেধাজ্ঞা দেয়া হতে পারে। সেক্ষেত্রে যদি তাই হয় তাহলে জিম্বাবুয়ে ও ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে হোম সিরিজের পাশাপাশি বিপিএলও খেলা হবে না সাব্বিরের। যা তার জন্য একটা বড় ধরনের আর্থিক ধাক্কাও হবে।

তবে শেষ মুহূর্তে তাকে তিন মাসের জন্য নিষিদ্ধ করা হলেও অবাক হওয়ার কিছুই থাকবে না। সেক্ষেত্রে জিম্বাবুয়ে ও ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ঘরের মাটিতেই শুধু নিষিদ্ধ থাকবেন সাব্বির, জানুয়ারিতে বিপিএল খেলার সুযোগ মিলবে তখন।

Leave a Reply

৯৭/৩/খ, উত্তর বিশিল, মিরপুর-১, ঢাকা-১২১৬
মোবাইলঃ ০১৭১২-৬৪৩৬৭৩, বার্তা বিভাগঃ ০১৭১২-৬৪৪৩৫০
ইমেইলঃ [email protected], [email protected]

সম্পাদক:
মোঃ সুলতান চিশতী

ব্যবস্থাপনা সম্পাদকঃ
মহসিন হাসান খান (বুলবুল)

নির্বাহী সম্পাদকঃ
মোঃ ইব্রাহিম হোসেন

সহকারী সম্পাদকঃ
মোঃ আতোয়ার হোসেন

আইন উপদেষ্টাঃ
শাহিন সরকার


.: Developed By :.
Great IT