২০শে সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং | ৫ই আশ্বিন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, শরৎকাল

এখনই বিশ্বকাপ নিয়ে ভাবছি না : ইমরুল

প্রকাশিতঃ আগস্ট ২৬, ২০১৮, ৭:২৪ অপরাহ্ণ


ঘনিয়ে আসছে ওয়ানডে বিশ্বকাপের দ্বাদশ আসর, আর মাস দশেক পরেই ইংল্যান্ডে বসবে বিশ্বকাপের মেলা। ২০১৯ সালের এই বিশ্বকাপকে ঘিরে ইতোমধ্যেই শুরু হয়েছে নানান আলোচনা। তবে বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের টপঅর্ডার ব্যাটসম্যান ইমরুল কায়েস এখনই বিশ্বকাপের হাওয়া গায়ে লাগাতে নারাজ।

বিশ্বকাপের আগে বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের সামনে অপেক্ষা করছে ব্যস্ত সময়। যার শুরু হবে সেপ্টেম্বরে হতে যাওয়া এশিয়া কাপ ক্রিকেটের মধ্য দিয়ে। এরপর টানা খেলার মধ্যেই থাকবেন ইমরুল-তামিমরা। এশিয়া কাপের জন্য ঘোষিত ৩১ সদস্যের প্রাথমিক স্কোয়াডে রয়েছেন ইমরুল। স্কোয়াডের আনুষ্ঠানিক অনুশীলন শুরু হবে ২৭ তারিখ সোমবার।

তবে ২৬ তারিখ রোববার নিজ গর্জেই মিরপুরের শেরে বাংলা ক্রিকেট স্টেডিয়ামে এসেছিলেন বাঁহাতি টপঅর্ডার ব্যাটসম্যান ইমরুল কায়েস। বেশ কিছুক্ষণ হালকা অনুশীলনে ঘাম ঝরিয়েছেন তিনি। পরে কথা বলেছেন সংবাদ মাধ্যমের সাথেও। তখনই জানিয়েছেন ১০ মাস পরের বিশ্বকাপ নিয়ে এখনই ভাবতে চান না তিনি।

তবে বিশ্বকাপের আগে যে সময়টা আছে তা কাজে লাগিয়ে নিজের ব্যাটিং দুর্বলতাগুলো দূর করতে চান ইমরুল। তিনি বলেন, ‘একজন খেলোয়াড়ের দুর্বলতা থাকেই। আমার মনে হয় কমবেশি সবার ব্যাটিংয়েই ত্রুটি থাকে। এটা সবারই থাকবে। আর এখনই আমি ২০১৯ বিশ্বকাপ নিয়ে ভাবছি না। কারণ ১০ মাসে অনেক কিছুই পরিবর্তন হবে। তবে যখনই সুযোগটা আসবে আমি চেষ্টা করবো তা কাজে লাগানোর। বিশ্বকাপটা ভাগ্যের বিষয়। অনেক সময় দলে থেকেও ইনজুরি বা অন্য কোন কারণে ম্যাচ খেলা সম্ভব হয় না। তাই আমার মনে হয় বিশ্বকাপ নিয়ে চিন্তা না করে সিরিজ বাই সিরিজ চিন্তা করা উচিৎ।’

জাতীয় দলের একসময়কার অবিচ্ছেদ্য অংশ ইমরুল বর্তমানে সেরা একাদশে জায়গা পাওয়ার জন্য লড়ছেন প্রতিনিয়ত। ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি ফরম্যাট বাদ থাকুক, নিজের পছন্দের টেস্ট ক্রিকেটেও আর নিয়মিত নন তিনি। সবশেষ ফেব্রুয়ারিতে ঘরের মাঠে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে খেলেছেন টেস্ট, আর সীমিত ওভারের ক্রিকেট খেলেছেন সবশেষ অক্টোবরে দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে।

তরুণ টপঅর্ডার ব্যাটসম্যান লিটন কুমার দাশ, এনামুল হক বিজয় কিংবা সৌম্য সরকারের সাথে পাল্লা দিয়ে প্রায়ই পেরে ওঠেন না ইমরুল। তবু এনিয়ে আক্ষেপ নেই তার মনে। বরং দলের খেলোয়াড়দের মধ্যে সুস্থ প্রতিযোগিতা থাকাটা দলের জন্যই ভালো মানেন ৩১ বছর বয়সী এই ক্রিকেটার।

তিনি বলেন, ‘যখন কোন দলে সুস্থ প্রতিযোগিতা থাকে তখন স্বাভাবিকভাবেই দলের পারফরম্যান্স ভালো হয়। আপনারা দেখছেন ওয়ানডে বা সীমিত ওভারের ক্রিকেটে আমরা অনেক ভালো খেলছি। এমন প্রতিযোগিতা থাকলে সবাই চেষ্টা করে নিজের জায়গাটা ধরে রাখতে। এটা একদিক থেকে ইতিবাচক ও আরেকদিক থেকে একটু নেতিবাচকও বটে। একটা প্লেয়ার যদি এক-দুই সিরিজে বাজে করে বাদ পড়ে, তাহলে সেটা তার জন্য কিছুটা হলেও নেতিবাচক প্রভাব ফেলে। একটু হতাশ হয়ে ফেলে ফর্মে ফেরা একটু কঠিন।’

এসময় বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের নতুন কোচ স্টিভ রোডসের ব্যাপারে নিজের সন্তুষ্টির কথাও জানান ইমরুল। ইংলিশ কোচ রোডস খেলোয়াড়দের যথাযথ উৎসাহ দিতে পারে বলে জানান বাঁহাতি এই টপঅর্ডার ব্যাটসম্যান।

‘আমার কাছে নতুন কোচকে ভালো লেগেছে। ম্যান ম্যানেজমেন্টের ক্ষেত্রে তিনি খুবই ভালো। তিনি একজন ভদ্রলোকের মতন। দলকে খুবই ভালো ভাবে প্রেরণা দিতে পারে। সবার সাথেই ভালো সম্পর্ক তার, যা আমাদের জাতীয় দলের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ। আমি মনে করি এটা অনেক ভালো দিক। সে আমার ব্যাটিং দেখেছে, ব্যাটিং দেখে তার ভালো লেগেছে। তিনি আমাকে বলেছেন, ‘তুমি কোয়ালিটি ব্যাটসম্যান, তোমার খেলা আমি এর আগে দেখেছি।’ ইংল্যান্ডে আগে আমার ব্যাটিং দেখেছিল সে। তিনি বলেছেন, ‘তোমার সুযোগ অবশ্যই আসবে। তুমি চেষ্টা কর।’

Leave a Reply

৯৭/৩/খ, উত্তর বিশিল, মিরপুর-১, ঢাকা-১২১৬
মোবাইলঃ ০১৭১২-৬৪৩৬৭৩, বার্তা বিভাগঃ ০১৭১২-৬৪৪৩৫০
ইমেইলঃ [email protected], [email protected]

সম্পাদক:
মোঃ সুলতান চিশতী

ব্যবস্থাপনা সম্পাদকঃ
মহসিন হাসান খান (বুলবুল)

নির্বাহী সম্পাদকঃ
মোঃ ইব্রাহিম হোসেন

সহকারী সম্পাদকঃ
মোঃ আতোয়ার হোসেন

আইন উপদেষ্টাঃ
শাহিন সরকার


.: Developed By :.
Great IT