২০শে সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং | ৫ই আশ্বিন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, শরৎকাল

ইউপিডিএফ নেতাকে তুলে নিয়ে হত্যা

প্রকাশিতঃ জানুয়ারি ৪, ২০১৮, ৯:০৫ পূর্বাহ্ণ


বাসার সামনে থেকে তুলে নিয়ে দুর্বৃত্তরা গুলি করে হত্যা করেছে পাহাড়ের আঞ্চলিক রাজনৈতিক দল ইউপিডিএফের কেন্দ্রীয় সংগঠক (নেতা) মিঠুন চাকমাকে (৪০)। গতকাল বুধবার দুপুর সোয়া ১২টার দিকে খাগড়াছড়ি শহরের পানখাইয়াপাড়ার স্লুইসগেট এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। এ হত্যাকাণ্ডের জন্য ইউপিডিএফ (গণতান্ত্রিক)কে দায়ী করেছেন ইউপিডিএফের নেতা-কর্মীরা।
গতকাল সকালে একটি মামলার হাজিরা দিতে খাগড়াছড়ি আদালতে যান মিঠুন। আদালত থেকে ফিরে দুপুর ১২টার দিকে শহরের গোলাবাড়ি অপর্ণা চৌধুরীপাড়ায় বাসার গেটের সামনে দাঁড়িয়ে দুই ভাই কথা বলছিলেন। এ সময় দুটি মোটরসাইকেলে করে চারজন অস্ত্রধারী জোর করে মিঠুনকে একটি মোটরসাইকেলে তুলে নিয়ে যায়। ভাইকে বাঁচানোর জন্য অস্ত্রধারীদের পেছনে ছুটতে থাকেন তিনি। পরে অপর্ণা চৌধুরীপাড়া থেকে এক কিলোমিটার দূরে স্লুইসগেট এলাকায় মিঠুনকে গুলি করে রাস্তায় ফেলে দেয় সন্ত্রাসীরা।

খাগড়াছড়ি সদর হাসপাতালে চিকিৎসক ধনিষ্ঠা চাকমা বলেন, হাসপাতালে আনার আগেই মিঠুনের মৃত্যু হয়। তাঁর মাথায়, হাতে ও বুকে ছয়টি গুলি লেগেছে।

খাগড়াছড়ি সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা তারেক মো. আবদুল হান্নান বলেন, গুলির সংবাদ পেয়ে ঘটনাস্থলে যান তাঁরা। এরপর শহর ও আশপাশের এলাকায় সংঘাত এড়াতে পুলিশি টহল জোরদার করেন তাঁরা। সন্ত্রাসীদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা করা হচ্ছে।

মিঠুন এক যুগ আগে ইউপিডিএফ নেতৃত্বাধীন পাহাড়ি ছাত্র পরিষদের কেন্দ্রীয় সভাপতি ছিলেন। তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতকোত্তর করেন। তাঁর এক সন্তান রয়েছে।

মিঠুন হত্যাকাণ্ডের পর খাগড়াছড়ি শহরে উত্তেজনা দেখা দেওয়ায় পুলিশি টহল জোরদার করা হয়। সন্ধ্যায় ইউপিডিএফ সমর্থিত পাহাড়ি ছাত্র পরিষদের নেতা-কর্মীরা শহরে বিক্ষোভ মিছিল করেন।

ইউপিডিএফ ছেড়ে কিছু নেতা-কর্মী গত ১৫ নভেম্বর ইউপিডিএফ (গণতান্ত্রিক) নামে নতুন দল গঠনের ঘোষণা দেন। তপন জ্যোতি চাকমাকে আহ্বায়ক করে তাঁর নেতৃত্বে গঠন করা হয় নতুন এই দল। ইউপিডিএফ তাদের ‘নব্য মুখোশ বাহিনী’ হিসেবে আখ্যা দিয়ে প্রতিরোধের ডাক দেয়। ১৯৯৭ সালে পার্বত্য চুক্তির বিরোধিতা করে ইউপিডিএফ গঠন করা হয়। গণতান্ত্রিক ইউপিডিএফ গঠনের প্রতিবাদে তিন পার্বত্য জেলায় গত ১৬ নভেম্বর সকাল-সন্ধ্যা হরতাল পালন করে ইউপিডিএফ। দল ভেঙে যাওয়ার পর খাগড়াছড়িতে প্রথম হত্যাকাণ্ডের শিকার হলেন মিঠুন চাকমা। এর আগে গত ৫ ও ১৫ ডিসেম্বর রাঙামাটিতে দুজনকে গুলি করে হত্যা করা হয়।

Leave a Reply

৯৭/৩/খ, উত্তর বিশিল, মিরপুর-১, ঢাকা-১২১৬
মোবাইলঃ ০১৭১২-৬৪৩৬৭৩, বার্তা বিভাগঃ ০১৭১২-৬৪৪৩৫০
ইমেইলঃ [email protected], [email protected]

সম্পাদক:
মোঃ সুলতান চিশতী

ব্যবস্থাপনা সম্পাদকঃ
মহসিন হাসান খান (বুলবুল)

নির্বাহী সম্পাদকঃ
মোঃ ইব্রাহিম হোসেন

সহকারী সম্পাদকঃ
মোঃ আতোয়ার হোসেন

আইন উপদেষ্টাঃ
শাহিন সরকার


.: Developed By :.
Great IT