১৫ই নভেম্বর, ২০১৮ ইং | ১লা অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, হেমন্তকাল

আসামে দুইয়ের বেশি সন্তান হলেই চাকরি যাবে

প্রকাশিতঃ জুলাই ১০, ২০১৮, ৪:৩৯ অপরাহ্ণ


জনসংখ্যা নিয়ন্ত্রণে অভিনব আইন আনতে চলেছে বিজেপি-শাসিত ভারতের আসাম রাজ্য সরকার। প্রস্তাবিত আইনে দুইয়ের বেশি সন্তান হলেই চাকরি চলে যাবে সরকারি কর্মীদের। এমনই জানিয়েছেন রাজ্যের স্বাস্থ্যমন্ত্রী হীমন্ত বিশ্বশর্মা। তবে সরকারের এই উদ্যোগের কড়া সমালোচনা করেছে কংগ্রেস।

তৃতীয় সন্তান জন্মালেই চাকরি চলে যাবে—সরকারি কর্মীদের জন্য এমন কড়া আইন চালু করার কথা জানিয়েছেন আসামের স্বাস্থ্যমন্ত্রী হীমন্ত বিশ্বশর্মার। আসামের গুয়াহাটিতে এক অনুষ্ঠানে তিনি এ ঘোষণা দেন। সরকারি কর্মীদের সতর্ক করে দিয়ে তিনি বলেন, দুই সন্তানের সীমা লঙ্ঘন করলেই বিপাকে পড়তে হবে। আইন হচ্ছেই। রাজ্য সরকার সেই লক্ষ্যে অনেকটা এগিয়ে গিয়েছে বলেও দাবি করেন তিনি।

মন্ত্রীর এই বক্তব্যের কড়া সমালোচনা করেছে কংগ্রেস। রাজ্যের বিরোধী দলনেতা দেবব্রত শইকিয়া মুঠোফোনে প্রথম আলোক বেলন, ‘জনসংখ্যা নিয়ন্ত্রণ নয়, এর পেছনে কোনো অসৎ উদ্দেশ্য আছে। কারণ, রাজ্যের তিন কোটিরও বেশি মানুষের মধ্যে মাত্র পাঁচ লাখ সরকারি কর্মী। শুধু তাঁদের জন্মনিয়ন্ত্রণ করে কী লাভ হবে?’

দেবব্রতর মতে, সরকার রাজ্যবাসীর আকাঙ্ক্ষা পূরণ করতে ব্যর্থ হয়ে নজর অন্যদিকে ঘোরাতে চাইছে। স্বাস্থ্যমন্ত্রীকে তাঁর পরামর্শ, শুধু সরকারি কর্মীদের জন্মনিয়ন্ত্রণের চেষ্টা করে লাভ নেই। প্রয়োজন চিকিৎসার পরিকাঠামো উন্নয়ন।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী জানান, রাজ্যের জনসংখ্যা নীতিকে কার্যকর করতে আইন করা হচ্ছে। সেই নীতিকে কার্যকর করতে আইন করা হবে আসামে।

স্বাস্থ্য দপ্তর সূত্রে খবর, বর্তমানে কর্মরতদের চাকরি বহাল থাকবে। এমনকি দ্বিতীয় সন্তান প্রসবের সময় যমজ বাচ্চা প্রসব হলেও সেটিকে ‘ব্যতিক্রম’ হিসেবে বিবেচনা করে ছাড় দেওয়া হবে।

শুধু সরকারি চাকরি নয়, শহর বা গ্রামাঞ্চলের স্বশাসিত পরিষদে জনপ্রতিনিধিদের নতুন আইনের আওতায় আনতে চাইছেন হীমন্ত। তবে পুরোটাই নির্ভর করছে আসাম বিধানসভার ওপর। কারণ, এ বিষয়ে আইন পাস করাতে হবে সরকারকে।

Leave a Reply

৯৭/৩/খ, উত্তর বিশিল, মিরপুর-১, ঢাকা-১২১৬
মোবাইলঃ ০১৭১২-৬৪৩৬৭৩, বার্তা বিভাগঃ ০১৭১২-৬৪৪৩৫০, সার্কুলেশন বিভাগঃ০১৯১৬০৯৯০২০
ইমেইলঃ [email protected], [email protected]

সম্পাদক:
মোঃ সুলতান চিশতী

ব্যবস্থাপনা সম্পাদকঃ
মহসিন হাসান খান (বুলবুল)

নির্বাহী সম্পাদকঃ
মোঃ ইব্রাহিম হোসেন

সহকারী সম্পাদকঃ
মোঃ আতোয়ার হোসেন

আইন উপদেষ্টাঃ
শাহিন সরকার


.: Developed By :.
Great IT