১২ই ডিসেম্বর, ২০১৮ ইং | ২৮শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, হেমন্তকাল

আসলে কতটুকু টুথপেস্ট ব্যবহার করা উচিত?

প্রকাশিতঃ আগস্ট ২৯, ২০১৮, ৫:০২ অপরাহ্ণ


দাঁতের যত্নে সবারই দুই বেলা দাঁত ব্রাশ করা উচিত। ধবধবে সাদা দাঁতের জন্যে বহুল ব্যবহৃত এবং সবচেয়ে জনপ্রিয় উপাদানটি হলো টুথপেস্ট। বাজারে নানা ধরনের টুথপেস্ট মেলে। আপনি কোনটা ব্যবহার করবেন তা নির্ভর করে পছন্দের ওপর। ভালো মানের পেস্ট ব্যবহার করাই ভালো। গুরুত্বপূর্ণ বিষয়টা হলো, প্রতিবার দাঁত ব্রাশের জন্যে আপনার আসলে কতটুকু করে পেস্ট ব্যবহার করা উচিত। বিশেষজ্ঞরা সে সম্পর্কে ধারণা দিচ্ছেন এখানে।

অনেকেই ভাবেন বেশি পেস্ট ব্যবহার করলে বেশি কাজ হয়। এটা ভুল ধারণা। এতে কেবল পেস্ট নষ্টই হবে। আসলে এ ধারণা হওয়ার পেছনে আপনার দোষ নেই। মূলত এটা কম্পানিগুলো বেশি বিক্রির জন্যে বেশি বেশি ব্যবহারের কথা বলে।

বাস্তবতা হলো, দাঁত ব্রাশের জন্যে আপনার সামান্য পেস্টই যথেষ্ট। গোলাকার একটা মুক্তোদানা যতটুকু হয়, টিউব থেকে পেস্ট বের করার সময় ততটুকু নিলেই চলবে। এতেই দাঁত পুরোপুরি ব্রাশ করা সম্ভব। আবার বাচ্চাদের ক্ষেত্রেও সাবধান থাকতে হবে। বয়স ৬ বা তার নিচে হলে একেবারে সামান্য পেস্টই যথেষ্ট। চালের একটা দানার সমান পেস্ট নিলেই হবে। শিশুরা পেস্ট গিলে ফেলে। কাজেই তাদের যতটা কম পরিমাণ দেয়া সম্ভব ততোই ভালো। যদিও শিশুরা গিলে ফেললেও ক্ষতি নেই এমন পেস্ট তৈরি হয়। কিন্তু রাসায়নিক উপাদানের তৈরি একটা জিনিস কেনই বা গিলতে দেবেন? পেস্ট প্রচুর পরিমাণে ফ্লুরাইড থাকে। এটা ক্ষতিকর।

যদিও বড়দের প্রয়োজনের চেয়েও বেশি পরিমাণ পেস্ট ব্যবহারে কোনো ক্ষতি নেই। তবে এতে কেবল পেস্ট নষ্টই হবে।

কাজেই আসল কথা হলো, সামান্য বড় সাইজের বুদ্বুদের সমান পেস্ট নিলেই চলবে বড়দের। আর ছোটদের একটা শস্যদানার সমান পেস্ট নিলেই হবে। পেস্ট ব্যবহারের কারণ একটাই। এটা দাঁতে ফ্লুরাইড সরবরা করে। যা দাঁতকে পরিষ্কার রাখে।