২১শে নভেম্বর, ২০১৮ ইং | ৭ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, হেমন্তকাল

আমার রাজনৈতিক জীবনের কিছু কথা-কিছু স্মৃতি : ইসতিয়াক হুসাইন খান তারেক

প্রকাশিতঃ জুলাই ৫, ২০১৮, ৪:৫৬ অপরাহ্ণ


আমি আলহাজ্ব ইসতিয়াক হুসাইন খান তারেক, সাংগঠনিক সম্পাদক, বিএনপি সৌদি আরব কেন্দ্রীয় কমিটি (অবিভক্ত) ও অন্যতম যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক, বিএনপি সৗদি আরব পূর্বাঞ্চল কেন্দ্রীয় কমিটি। আমার রাজনৈতিক জীবনের কিছু কথা-কিছু স্মৃতি নি¤েœ দেওয়া হলো : ১ লা নভেম্বর ১৯৭৯ বাংলাদেশের প্রথম খাল কাটা কর্মসূচী শুরু মানিকগঞ্জ জেলা হরিরামপুর থানার কাসাদহ্। এই খালকাটা কর্মসূচীতে অংশ গ্রহণ করেন, বিএনপি’র প্রতিষ্ঠাতা ও শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমান। তাঁর হাতে হাত রেখে বিএনপিতে যোগদান করা হয়। এসময় বিএনপি’র প্রয়াত মহাসচিব এ্যাডভোকেট খোন্দকার দেলোয়ার হোসেন, ক্যাপ্টেন (অবঃ) আব্দুল হালিম চৌধুরী, মোঃ নিজাম উদ্দিন খান, এ্যাডভোকেট আনেয়ায়ার হোসেন সিকদার ও ইসতিয়াক হুসাইন খান তারেক সহ হাজার হাজার নেতা কর্মীর মিলন মেলায় পরিণত হয়ে ছিল।
১০ ই জুলাই ১৯৮৭ ইং থেকে সৌদি আরবে রুটি রোজগারের জন্য এসেছি। মানিকগঞ্জ জেলার সিংগাইর থানা, ১৯৯১ সনে সিংগাইর থানা বিএনপি’র সভাপতি ডাঃ কেরামত আলী ও আমি সম্মানিত সদস্য নির্বাচিত হয়ে ছিলাম। মানিকগঞ্জ জেলা বিএনপি’র সভাপতি তৎকালীন প্রয়াত মহাসচিব এ্যাডভোকেট দেলোয়ার হোসেন ১৯৯৭ সনে ডাঃ কেরামত আলী’ক সভাপতি ও দেওয়ান মাজহারুল ইসলাম মোহর’কে সাধারণ সম্পাদক করে সিংগাইর থানা কমিটি অনুমোদন করেন। এছাড়াও আমি শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমান এর জানাজায় শরীক হতে পেরেছি।
সু-দীর্ঘ সময়ে প্রবাসের রাজনীতি করে জিয়া পরিবারের সাথে ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক গড়তে পেরেছি, দেশের রাজনীতিতে হয়তো এতদূর এগিয়ে যেতে অনেক কষ্ট হতো। এই জন্য মহান আল্লাহ’র দরবারে শুকরিয়া জ্ঞাপন করছি। হে আল্লাহ্ জিয়া পরিবারকে রক্ষা করুন। প্রবাসের রাজনীতিতে রাজনৈতিক ভাবে অনেক সম্মান পেয়েছি, লাখ লাখ শুকরিয়া আল্লাহ’র দরবারে।
৯০’র স্বৈরাচার বিরোধী আন্দোলন, ৯১, ৯৬ ও ২০০১ এর নির্বাচন সহ দেশের বিভিন্ন সময়ের আন্দোলন সংগ্রামে যোগদান করেছি। বিশেষ করে ১৯৯১ নির্বাচনে প্রয়াত শামছুল ইসলাম খান নয়া কাকা’র নির্বাচনে বলধারা ইউনিয়নের প্রতিটা ঘরে ঘরে নির্বাচনী প্রচার-প্রচারণা করে সিংগাই’র থানার মধ্যে বলধারা ইউনিয়নে বিপুল ভোটে নয়া কাকা’কে বিজয়ী করে ছিলাম। ১/১১’র ক্রান্তিলগ্নে দলের প্রয়োজনে প্রয়াত মহাসচিব এ্যাডভোকেট খোন্দকার দেলোয়ার হোসেন এর মাধ্যমে দেশ-বিদেশে যোগাযোগ রক্ষা করেছি। দেলোয়ার ভাইয়ের পাশে থেকে দলের কাজ করতে পেরে নিজেকে ধন্য মনে করছি।
সৌদি আরব কেন্দ্রীয় বিএনপি’র নেতা দেওয়ান সিরাজুল ইসলাম (মানিকগঞ্জ) এর মাধ্যমে হাটি হাটি পা পা করে সৌদি আরব বিএনপি’তে যোগদান করি। সৌদি আরব কেন্দ্রীয় বিএনপি’র সভাপতি প্রকৌশলী আফসারুল আলম কর্তৃত অনুমোদিত হারা শাখা কমিটির প্রথম সহ-সভাপতি হিসেবে কাজ করেছি। বিএনপি সৌদি আরব কেন্দ্রীয় কমিটি’র সফল সভাপতি আব্দুল গনি মানু’র কমিটির দীর্ঘ ৮ বৎসর বিভিন্ন পদে কাজ করেছি। ২০০৫ আব্দুল গনি মানু’র সর্বশেষ কমিটি’তে সাংগঠনিক সম্পাদক হিসেবে সমগ্র সৌদি আরবের ২২টি প্রদেশ কমিটিতে রাজনৈতিক সফর করে দলের প্রয়োজনে সাংগঠনিক দায়িত্ব পালন করেছি। সৌদি আরব কেন্দ্রীয় আহবায়ক কমিটি’র সম্মানিত আহবায়ক শাহাব উদ্দিন তূর্কি’র সাথে দলের একজন নিবেদিত কর্মি হিসেবে কাজ করেছি। বিএনপি সৌদি আরব পূর্বাঞ্চল কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি অধ্যাপক আ.ক.ম রফিকুল ইসলাম এর কমিটিতে (যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক পদ মর্যাদা) দপ্তর সম্পাদক হিসেবে কাজ করেছি। ১২ ই এপ্রিল ২০১৮ থেকে সৌদি আরব পূর্বাঞ্চল কেন্দ্রীয় কমিটি’র সভাপতি এ্যাডভোকেট সিদ্দিকুর রহমান এমরান এর কমিটিতে অন্যতম যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হিসেবে কাজ করে যাচ্ছি।
বিভিন্ন সময়ে দলের প্রয়োজনে আমার ওপর অর্পিত দায়িত্ব অক্ষরে অক্ষরে পালন করার চেষ্টা করেছি। ইনশাআল্লাহ্ যতদিন সৌদি আরব আছি ঐক্যবদ্ধ ভাবে দলের একজন দায়িত্বশীল কর্মি হিসাবে কাজ করে যাবো। এমন কি দেশের রাজনীতির সঙ্গে যথেষ্ট যোগাযোগ আছে। আর দিন ঘনাইয়ে এসেছে, দেশের রাজনীতিই শেষ ভরসা। জাতীয়তাবাদী স্বেচ্ছাসেবক দলের তৎকালীন কেন্দ্রীয় সংগ্রামী সভাপতি এ্যাডভোকেট রুহুল কবির রিজভী আহমেদ কর্তৃক অনুমোদিত (২রা মে ২০০০) স্বেচ্ছাসেবক দল সৌদি আরব কেন্দ্রীয় কমিটি’র প্রতিষ্ঠাতা সাধারণ সম্পাদক ও সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছি। ২০০৬ প্রবাসী মানিকগঞ্জ জেলা বিএনপি’র প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি নির্বাচিত হয়েছি। সৌদি আরব প্রবাসী মানিকগঞ্জ জেলা বিএনপি’র উদ্যোগে আমার নিজ অর্থায়নে সৌদি আরব বিএনপি’র বিভিন্ন অনুষ্ঠান বিশেষ করে শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমান এর শাহাদাৎ দিবস, ২১ শে ফেব্রুয়ারি-আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস ও ৭ ই নভেম্বর জাতীয় সংহতি বিপ্লব দিবস পালন করেছি।
১৯ শে মার্চ ২০১৬ বিএনপি’র ৬ষ্ঠ জাতীয় কাউন্সিলে যোগদান করে উপ-প্রকাশনা কমিটিতে সদস্য হিসাবে দলের কাজ করতে পেরে নিজেকে ধন্য মনে করছি। কিন্তু দলের কোন পদ পদবীর জন্য কাজ করিনি। দলকে ভালোবেসে অতীতে ছিলাম, আছি ও আমরন থাকবো, ইনশাআল্লাহ্। দেশের জন্য জীবন দান করেছেন, আমার আপন জনেরা, যার মধ্যে ১৯৫২ ভাষা আন্দোলনে শহীদ রফিক (ফুপাতো ভাই) ও ১৯৬৯ ছাত্র আন্দোলনে শহীদ মোঃ ইসহাক খান সাহন আপন বড় ভাই শহীদ হন। বলা বাহুল্য এই শহীদ পরিবারের ১৩ জন মুক্তিযোদ্ধা স্বাধীনতা যুদ্ধে অংশ গ্রহণ করে ছিলেন। সবাই আমার জন্য দোয়া করবেন, আমি যেন দেশের জন্য, দলের জন্য নিজেকে নিবেদিত রাখতে পারি। এছাড়াও আমার আত্মীয়-স্বজনদের জন্যও সকলের দোয়া কামনা করছি, আমিন, আল্লাহ্ হাফেজ। – লেখক: আলহাজ্ব ইসতিয়াক হুসাইন খান তারেক, সাংগঠনিক সম্পাদক, বিএনপি সৌদি আরব কেন্দ্রীয় কমিটি (অবিভক্ত) ও অন্যতম যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক , বিএনপি সৗদি আরব পূর্বাঞ্চল কেন্দ্রীয় কমিটি।

৯৭/৩/খ, উত্তর বিশিল, মিরপুর-১, ঢাকা-১২১৬
মোবাইলঃ ০১৭১২-৬৪৩৬৭৩, বার্তা বিভাগঃ ০১৭১২-৬৪৪৩৫০, সার্কুলেশন বিভাগঃ০১৯১৬০৯৯০২০
ইমেইলঃ [email protected], [email protected]

সম্পাদক:
মোঃ সুলতান চিশতী

ব্যবস্থাপনা সম্পাদকঃ
মহসিন হাসান খান (বুলবুল)

নির্বাহী সম্পাদকঃ
মোঃ ইব্রাহিম হোসেন

সহকারী সম্পাদকঃ
মোঃ আতোয়ার হোসেন

আইন উপদেষ্টাঃ
শাহিন সরকার


.: Developed By :.
Great IT