২০শে সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং | ৫ই আশ্বিন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, শরৎকাল

আমার দেহ ডিজেল ইঞ্জিনের মতো, গরম হলে চলতেই থাকে: সালমান

প্রকাশিতঃ জানুয়ারি ৪, ২০১৮, ১১:১৭ পূর্বাহ্ণ | শেষ আপডেটঃ জানুয়ারি ৪, ২০১৮্‌, ১১:১৮ পূর্বাহ্ণ


সালমান খান হয়তো ডিসেম্বেরে আরো এক বছর বুড়ো হয়েছেন কিন্তু টাইগার জিন্দা হ্যায় সিনেমার পর্দায় তার অ্যাকশন দৃশ্যগুলো দেখে আপনি তার বয়স আসলেই কত সে বিষয়টি দ্বিতীয়বার চেক করতে চাইবেন।

সম্প্রতি সালমান মিড ডে-র সঙ্গে এক সাক্ষাতকারে বলেন, ‘আমার দেহ ডিজেল ইঞ্জিনের মতো। একবার গরম হলে শুধু চলতেই থাকে।’

‘আমি হয়তো হাতে ভর দিয়ে দাঁড়াতে পারি না বা পা উপরে মাথা নিচে দিয়ে কসরত করতে পারি না। তবে আমি দ্রুতগতির মুভমেন্ট করতে পারি। যেমন সামনে বা পিছনের দিকে ডিগবাজি দেওয়া। অথবা ফ্লোর রোলিং করা।’

২০১৬ সালে সুলতান সিনেমায় সালমান তার দেহের অসাধারণ রুপান্তর দিয়ে তার সিনেমার ভক্তদেরকে তাক লাগিয়ে দিয়েছিলেন। এতে তিনি মধ্যবয়সী এক রেসলার এবং তার তরুণ সংস্করণ দুটি চরিত্রেই অসাধারণ এক অবতারে হাজির হয়েছিলেন। এজন্য সালমান ব্যাপক পরিশ্রম করেছিলেন। সিনেমাটির পরিচালক আলী আব্বাস জাফরী বলেন, ৫০ বছর বয়সে মাত্র ৬ থেকে ৮ মাসের মধ্যে সালমান যা করে দেখিয়েছেন সে জন্য ব্যাপ পরিশ্রমের দরকার। সালমান যখন সেটে ছিলেন না তখনও অন্তত ৪ ঘন্টা ধরে ট্রেনিং নিতে হয়েছে। একজন অভিনেতার জন্য এমন তারকাখ্যাতি উপভোগ করাটা এক কিংবদন্তীই বটে।’ জাফর এক থা টাইগার-এও সালমানের পরিচালক ছিলেন।

সালমান বলেন, এই সিনেমাগুলো করতে আমি রাজি হয়েছি মূলত আমার শারীরিক ফিটনেসকে পরের ধাপে নিয়ে যাওয়ার জন্য। এজন্য আমি শরীরকে ওজন কমানো থেকে শুরু করে ওজন বাড়ানো এবং পেশীবহুল দেখানোর জন্য অতিরিক্ত শরীরচর্চা করতেও প্রস্তুত ছিলাম। যদিও আমি জানি যে এতে বড় ধরনের কোনো ক্ষতিও হয়ে যেতে পারে। টাইগার জিন্দা হ্যায় (২০১৭), সুলতান (২০১৬), এক থা টাইগার (২০১২) রেস ৩ (২০১৮) এই সিনেমাগুলোই এর প্রমাণ।

Leave a Reply

৯৭/৩/খ, উত্তর বিশিল, মিরপুর-১, ঢাকা-১২১৬
মোবাইলঃ ০১৭১২-৬৪৩৬৭৩, বার্তা বিভাগঃ ০১৭১২-৬৪৪৩৫০
ইমেইলঃ [email protected], [email protected]

সম্পাদক:
মোঃ সুলতান চিশতী

ব্যবস্থাপনা সম্পাদকঃ
মহসিন হাসান খান (বুলবুল)

নির্বাহী সম্পাদকঃ
মোঃ ইব্রাহিম হোসেন

সহকারী সম্পাদকঃ
মোঃ আতোয়ার হোসেন

আইন উপদেষ্টাঃ
শাহিন সরকার


.: Developed By :.
Great IT