২২শে সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং | ৭ই আশ্বিন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, শরৎকাল

আওয়ামী লীগে বাঁশের চেয়ে কঞ্চি বড় !

প্রকাশিতঃ জানুয়ারি ৩, ২০১৮, ১০:০৯ অপরাহ্ণ | শেষ আপডেটঃ জানুয়ারি ৩, ২০১৮্‌, ১০:১৫ অপরাহ্ণ


রাজশাহীর তানোরে আওয়ামী লীগের উপজেলা, পৌরসভা ও ইউনিয়ন কমিটির কার্যক্রম প্রায় নিস্তেজ-স্থবির এবং সাংগঠনিক অবস্থাও অত্যন্ত নাজুক ও দলীয়কোন্দল-মতবিরোধ চরমে বলে অভিযোগ উঠেছে। আর এই কোন্দল-মতবিরোধ উপজেলা থেকে শুরু করে তৃণমূলে ছড়িয়ে পড়েছে। অথচ সেই কোন্দল নিরসনে নেই তেমন কোনো উদ্যোগ। এদিকে আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের মধ্যে গৃহবিবাদ-অর্ন্তদন্দ্ব ও মতবিরোধ তুঙ্গে তখন যুবলীগ ও বঙ্গবন্ধু সৈনিক লীগের বিভিন্ন ওয়ার্ড কমিটি গঠনে জমকালো কর্মীসভা আয়োজন নিয়ে তৃণমূলে মিশ্র প্রতিক্রিয়া দেখা দিয়েছে। স্থানীয় আওয়ামী লীগের প্রবীণ, ত্যাগী ও নিবেদিতপ্রাণ নেতাকর্মীরা এটাকে ‘বাশের চেয়ে কঞ্চি বড়’ বলে অবহিত করেছে। তাদের মনে প্রশ্ন তাহলে কি ? এখানে আওয়ামী লীগের সক্রিয় হওয়ার প্রয়োজন নাই, না কি ? অনুপ্রবেশকারী হাইব্রিডদের গুরুত্ব দিয়ে এবং আওয়ামী লীগকে পাশ কাটিয়ে যুবলীগ ও বঙ্গবন্ধু সৈনিক লীগ দিয়ে রাজনীতির মাঠ নিয়ন্ত্রণ ও নির্বাচনী বৈতরণী পার হবার স্বপ্ন দেখা হচ্ছে এমন প্রশ্ন উঠেছে। তবে বিশ্লেষকদের অভিমত এভাবে চলতে থাকলে আগামি দিনে আওয়ামী লীগের সামনে ভয়াবহ দূর্দীন অপেক্ষা করছে, সাধারণ নির্বাচনে আওয়ামী লীগ প্রার্থীদের বড় ধরণের পরাজয় ঘটলেও অবাক হবার কিছু থাকবে না। বরং এসবের থেকে আওয়ামী লীগের ত্যাগী-নিবেদিতপ্রাণ নেতা ও কর্মী-সমর্থক যারা নানা কারণে মান-অভিমান করে রাজনীতিতে নিস্ক্রিয় রয়েছে তাদের অভিমান নিরসণ করে আবারো প্রত্যাবর্তন বা সক্রিয় করানো হলে দল সাংগঠনিক ভাবে বেশি লাভবান হবে। উপজেলা ও পৌরসভা আওয়ামী লীগের নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একাধিক নেতা বলেন, আওয়ামী লীগের উপজেলা, পৌরসভা ও ইউনিয়ন কমিটির নীতিনির্ধারক পর্যায়ের অধিকাংশ নেতার সঙ্গে স্থানীয় সাংসদ ওমর ফারুক চৌধূরীর দুরুত্ব সৃষ্টি হয়েছে। এসব কারণে তাদের ওপর ভরসা রাখতে না পেরে যুবলীগ ও বঙ্গবন্ধু সৈনিক লীগের মাধ্যমে তাদের অভাব পুষিয়ে নিতে যুবলীগ ও বঙ্গবন্ধু সৈনিক লীগকে প্রাধান্য দিয়ে রাজনীতির মাঠে সক্রিয় করা হয়েছে। তারা বলেন, তানোরে স্বাধীনতার পর আওয়ামী লীগের এমন দুর্দীন এর আগে কখনো অনুভব করেননি তারা।
তৃণমূলের অভিযোগ, তানোরে আওয়ামী লীগের প্রবীণ,ত্যাগী ও নিবেদিতপ্রাণ নেতাকর্মী যারা নানা কারণে মান-অভিমান করে নিন্ক্রীয় রয়েছে তাদের সক্রিয় করতে তেমন কোনো উদ্যোগ নেয়া হচ্ছে না। অনেকক্ষেত্রে আবার উদ্যোগ নিলেও তাদের কাছে থেকে তেমন কোনো সাড়া পাওয়া যাচ্ছে না। এসব কারণে অধিকাংশ সময় আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী তো দুরের কথা কেন্দ্রীয় কর্মসূচিও তেমন পালিত হয় না (অথচ আওয়ামী লীগকে এমন ভগ্নদশা থেকে বের না করেই যুবলীগ ও বঙ্গবন্ধু সৈনিক লীগকে ঘিরে এমন লাফালাফি আওয়ামী লীগের অনেক জৈষ্ঠ, প্রবীণ ও ত্যাগী নেতাকে আশাহত করেছে। কেউ কেউ বলছে, আওয়ামী লীগ ও যুবলীগ-বঙ্গবন্ধু সৈনিক লীগের এমন বিপরীতমূখী অবস্থানে নেতাকর্মীরা বহুধারায় বিভক্ত হয়ে পড়েছে। এসব নিয়ে প্রতিনিয়ত তৃণমূলে বাড়ছে ক্ষোভ ও অসন্তোষ, ক্ষমতার অর্ন্তদ্বন্দ্ব, গ্র“পিং আর দলাদলি নিয়েও সৃষ্টি হয়েছে জটিলতা। আবার অবহেলিত থাকার অভিযোগ তুলেছেন প্রবীণ, তাগী, নিবেদিতপ্রাণ ও পরীক্ষিত নেতাকর্মীরা। এছাড়াও তাদের ওপর বির্তকিত বগি নেতা, গ্রহণযোগ্যহীণ ও সুযোগসন্ধানীদের হস্তক্ষেপের কথাও বলছেন তারা, সবকিছু মিলে বিরাজ করছে হতাশাজনক পরিস্থিতি। আওয়ামী লীগের রাজনীতিতে খুব একটা প্রতিষ্ঠিত নয় বা কখনও সক্রীয়ভাবে আওয়ামী লীগের রাজনীতি করেননি ও যাদের রাজনৈতিক অবস্থানটাই পালাবদলের এমন বির্তকিত, গ্রহণযোগ্যহীণ ও সুযোগসন্ধানীদের দেয়া হয়েছে দলের গুরুত্বপূর্ণ পদ ও বিভিন্ন উন্নয়ন কর্মকান্ডের তদারকির দায়িত্ব বলেও গুঞ্জন রয়েছে। আবার এসব কারণে উপজেলা আওয়ামী লীগে এখন হ-য-ব-র-ল অবস্থা বিরাজ করছে বলেও তৃণমূলের অভিযোগ। স্থানীয় রাজনৈতিক পর্যবেক্ষক মহলের অভিমত, আওয়ামী লীগের মধ্যে বিরাজমান এসব অভ্যন্তরীণ কোন্দল অবসান, প্রবীণ, ত্যাগী ও নিবেদিতপ্রাণ নেতাকর্মীদের যথাযথ মূল্যায়নের মাধ্যমে সক্রিয় করা না হলে আগামি দিনে ভোটের মাঠে আওয়ামী লীগের জন্য অপেক্ষা করে অশনি শঙ্কেত। এমনকি আওয়ামী লীগের বড় ধরণের পরাজয় ঘটলেও অবাক হওয়ার কিছু থাকবে না। এসব বিষয়ে জানতে চাইলে তানোর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও মুন্ডুমালা পৌর মেয়র গোলাম রাব্বানী বলেন, আওয়ামী লীগ হলো দেশের সর্ববৃহত গণতান্ত্রিক রাজনৈতিক দল। তিনি বলেন, এখানে নেতৃত্ব নিয়ে নেতাকর্মীদের মধ্যে প্রতিযোগীতা থাকতেই পারে, তাই বলে এটাকে দলীয়কোন্দল বলা ঠিক নয়, যারা আওয়ামী লীগের ভালো চাইনা তারাই এসব অপপ্রচার করছে আওয়ামী লীগে কোনো দলীয়কোন্দল নাই বলে তিনি দাবি করেছেন।

Leave a Reply

৯৭/৩/খ, উত্তর বিশিল, মিরপুর-১, ঢাকা-১২১৬
মোবাইলঃ ০১৭১২-৬৪৩৬৭৩, বার্তা বিভাগঃ ০১৭১২-৬৪৪৩৫০
ইমেইলঃ [email protected], [email protected]

সম্পাদক:
মোঃ সুলতান চিশতী

ব্যবস্থাপনা সম্পাদকঃ
মহসিন হাসান খান (বুলবুল)

নির্বাহী সম্পাদকঃ
মোঃ ইব্রাহিম হোসেন

সহকারী সম্পাদকঃ
মোঃ আতোয়ার হোসেন

আইন উপদেষ্টাঃ
শাহিন সরকার


.: Developed By :.
Great IT