২৪শে সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং | ৯ই আশ্বিন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, শরৎকাল

আইনের শাসন: ১১৩ দেশের মধ্যে বাংলাদেশ ১০২

প্রকাশিতঃ ফেব্রুয়ারি ২, ২০১৮, ১১:৪০ পূর্বাহ্ণ


আইনের শাসন প্রতিষ্ঠায় বিশ্বের ১১৩ দেশের মধ্যে বাংলাদেশ ১০২তম স্থানে আছে। দক্ষিণ এশিয়ার ছয়টি দেশের মধ্যে বাংলাদেশের অবস্থান চতুর্থ। মধ্য আয়ের ৩০ দেশের মধ্যে বাংলাদেশ ২২তম।

আইনের শাসন পর্যবেক্ষণকারী আন্তর্জাতিক সংস্থা দি ওয়ার্ল্ড জাস্টিস প্রজেক্ট (ডব্লিইউজেপি) এর রুল অব ল ইনডেক্স প্রতিবেদনে এসব তথ্য উঠে এসেছে। বিশ্বের ১১৩ দেশের এক লাখ ১০ হাজার খানা ও তিন হাজার জন বিশেষজ্ঞের মতামতের ভিত্তিতে জরিপটি করা হয়েছে।

আইনের শাসন বিষয়ক আটটি সূচকের ভিত্তিতে জরিপটি করা হয়েছে। সরকারি ক্ষমতার সীমাবদ্ধতা, দুর্নীতির অনুপস্থিতি, উন্মুক্ত সরকার, মৌলিক অধিকার, নিয়ম ও নিরাপত্তা, নিয়ন্ত্রণমূলক ক্ষমতার প্রয়োগ, নাগরিক ন্যায়বিচার ও ফৌজদারি বিচার-এই আটটি সূচকের ভিত্তিতে তৈরি করা ওই প্রতিবেদনে বাংলাদেশের অবস্থান গত বছরের তুলনায় এক ধাপ উন্নতি হয়েছে। ২০১৬ সালের অক্টোবর মাসে সর্বশেষ প্রতিবেদনটি প্রকাশিত হয়েছিল। দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলোর মধ্যে সবচেয়ে ভালো অবস্থানে থাকা দেশের মধ্যে শীর্ষে রয়েছে শ্রীলঙ্কা। নয় ধাপ এগিয়ে দেশটির অবস্থান দাঁড়িয়েছে ৫২তম। তার পরে নেপাল পাঁচ ধাপ এগিয়ে ৫৮তম। ভারত ৬২ তম। তালিকায় বাংলাদেশের পরেই সবচেয়ে খারাপ অবস্থানে রয়েছে পাকিস্তান ১০৫তম ও আফগানিস্তান ১১১ তম।

প্রতিবেদনের ব্যাপারে মন্তব্য জানতে চাইলে আইনমন্ত্রী আনিসুল হক, যেই সূচকে নেপালের অবস্থান বাংলাদেশের ওপরে সেই প্রতিবেদন ওপর আমার আস্থা নেই। কেননা নেপাল এমন একটি দেশ যে এখন পর্যন্ত একটি স্থায়ী সরকার ও পূর্ণাঙ্গ সংবিধান তৈরি করতে পারেনি। সেই দেশের আইনের শাসন যদি বাংলাদেশের ওপরে থাকে তাহলে সেই প্রতিবেদন কতটুকু সঠিক তা আপনারাই বিবেচনা করেন। এই প্রশ্ন ছুড়ে দিয়ে আইনমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশে একটি শক্তিশালী সংবিধান ও সরকারের আইনগত ধারাবাহিকতা আছে।

তবে আইন বিশেষজ্ঞ ড. শাহদীন মালিক এ ব্যাপারে বলেন, ব্রিটেনে তো কোনো লিখিত সংবিধানই নেই। তাই বলে কী সেখানে আইনের শাসন নেই। বাংলাদেশে একটি সংবিধান আছে, কিন্তু কোনো প্রধান বিচারপতি নেই। আর সাধারণ মানুষের কাছে নির্বাচন মানে পাঁচ বছর পর ভোট হওয়া আর সেখান ৫০ শতাংশ মানুষ ভোট দিতে যাওয়া। তার কাছে এটা আইনের শাসন বলতে, তার ওপরে কোনো অন্যায় হলে তার বিচার পাওয়া। এটা দেশে নেই। যে কারণে এ ধরনের যত সূচক হচ্ছে তার মধ্যে বাংলাদেশ নিকৃষ্ট ১০ টি দেশের মধ্যে আছে।

ওই তালিকায় আইনের শাসনে শীর্ষ অবস্থানে উঠে এসেছে ইউরোপের দেশ ডেনমার্ক। তার পরে যথাক্রমে নরওয়ে ও ফিনল্যান্ড। আইনের শাসনে সবচেয়ে খারাপ অবস্থানে থাকা দেশের মধ্যে রয়েছে যথাক্রমে ভেনেজুয়েলা ও কম্বোডিয়া। এ মন্তব্য করে ওই প্রতিবেদনটি সম্পর্কে দেওয়া বক্তব্যে ডব্লিইউজেপির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা উইলিয়াম এইচ নিউকম বলেন, কার্যকর আইনের শাসন জনগণের মধ্যে ন্যায্যতা, সবার জন্য সমান সুযোগ ও শান্তি নিয়ে আসে।

ডব্লিইউজেপি নামের ওই প্রতিষ্ঠানটির বর্তমান সভাপতির দায়িত্ব পালন করছেন যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী ম্যাডেলিন অলব্রাইট। এ ছাড়া যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক রাষ্ট্রপতি জিমি কার্টার ইতালির সাবেক প্রধানমন্ত্রী গিউলিয়ানো আমাটো ও ফ্রান্সের সাবেক আইন মন্ত্রী রবার্ট বাদিনটার সংস্থাটির সভাপতির দায়িত্ব পালন করেছেন।

Leave a Reply

৯৭/৩/খ, উত্তর বিশিল, মিরপুর-১, ঢাকা-১২১৬
মোবাইলঃ ০১৭১২-৬৪৩৬৭৩, বার্তা বিভাগঃ ০১৭১২-৬৪৪৩৫০
ইমেইলঃ [email protected], [email protected]

সম্পাদক:
মোঃ সুলতান চিশতী

ব্যবস্থাপনা সম্পাদকঃ
মহসিন হাসান খান (বুলবুল)

নির্বাহী সম্পাদকঃ
মোঃ ইব্রাহিম হোসেন

সহকারী সম্পাদকঃ
মোঃ আতোয়ার হোসেন

আইন উপদেষ্টাঃ
শাহিন সরকার


.: Developed By :.
Great IT